Mukul Roy to Meet Mamata Banerjee: দুপুর দুটোয় কালীঘাটে মমতার কাছে মুকুল রায়! তৃণমূলে ফেরা সম্ভবত আজই!

আজই মুকুল রায়ের যোগদান তৃণমূলে? ফের একফ্রেমে চাণক্য মুকুল ও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ?

Mukul Roy to Meet Mamata Banerjee: পুত্র শুভ্রাংশুকে নিয়ে আজই তৃণমূলে যোগদান এর সম্ভাবনা রয়েছে মুকুল রায়ের।

  • Share this:

#কলকাতা: অলৌকিক সমাপতন। আজ শুক্রবার দুপুর দুটোর সময় তৃণমূল ভবনে যাচ্ছেন মুকুল রায় (Mukul Roy)। দেখা করবেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Mamata Banerjee) সঙ্গে। এখানেই শেষ নয়, পুত্র শুভ্রাংশুকে নিয়ে আজই তৃণমূলে যোগদানের সম্ভাবনা রয়েছে মুকুল রায়ের। থাকবেন  অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ও। তেমনটা হলে আজই বিজেপির সঙ্গে চিরবিচ্ছেদ পর্ব রচিত হবে মুকুল রায়ের। ভারতীয় রাজনীতির প্রেক্ষাপটে সেক্ষেত্রে আজকের দিনটি ঐতিহাসিক বললে এতটুকুও অত্যুক্তি হবে না।

মুকুল রায়ের ঘর ওয়াপাসি আর পাঁচ জন নয়া বিজেপি নেতার ফেরার তাগিদের সঙ্গে তুলনীয় নয়। তিনি একসময় দলের সেকেন্ড ইন কমান্ড ছিলেন। সাম্প্রতিক অতীতে দূরত্ব হয়তো এসেছে। কিন্তু চাণক্যকে নিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কখনও কটূ বাক্য বলেননি। অন্য দিকে মুকুলও তাঁর প্রসঙ্গে 'মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়' ছাড়া অন্য কোনও বাঁকা শব্দবন্ধে তাঁকে ব্যঙ্গ-বিদ্রূপ করেননি। দল ছাড়লেও বজায় থেকেছে সৌজন্যে। এমনকি ভোটের আগে মঞ্চে দাঁড়িয়ে শুভেন্দু অধিকারীর সমালোচনায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেও ফেলেছিলেন, মুকুল শুভেন্দুর চেয়ে ভালো।

এদিকে ভোট পর্ব মিটতে শুভেন্দু অধিকারীর বিজেপিতে উত্থান হয়েছে। কিন্তু মুকুল রায়কে বিজেপি যেন খাদের ধারের ঠেলে দিয়েছে। সস্ত্রীক তিনি অসুস্থ হলে কেউ যোগাযোগ রাখেনি বিজেপির। অথচ সৌজন্যে দেখিয়েছে তৃণমূলই, পরে অবশ্য ড্যামেজ কন্ট্রোলের চেষ্টা করেছিল বিজেপি। তাতে খুব একটা লাভ হয়নি। মমতা-অভিষেক দুজনেই নিয়মিত খোঁজ খবর রেখেছেন মুকুল রায়-কৃষ্ণা রায়ের, ক্রমে বরফ গলেছে। এরই মাঝে শুভ্রাংশু ফেসবুকে আত্মসমালোচনা তত্ত্ব ফেসবুক তুলে ধরে বুঝিয়ে দিয়েছিলেন তিনি তৃণমূলের পথেই পা বাড়িয়ে। বুঝিয়ে দিয়েছিলেন পারিবারিকভাবেই সাম্প্রদায়িক মেরুকরণের রাজনীতি তাঁরা পছন্দ করছেন না। ফলে তাঁরা যে বিজেপি থেকে তৃণমূলের যাবেন, ইঙ্গিতটা ছিলই।

মুকুল ঘনিষ্ঠরা মনে করেন, বিজেপি যে আজ ৩ থেকে ৭৭-এ পৌঁছেছে, তার পিছনে মুকুল রায়ের অনস্বীকার্য অবদান রয়েছে। কারণ তৃণমূল ভাঙানো থেকে শুরু করে সাংগঠনিক নানা সিদ্ধান্ত, বিজেপির ডিভিডেন্ট হয়েছে মুকুল রায়ের অভিজ্ঞতা। কিন্তু বিনিময়ে প্রাপ্যটা তিনি পাননি এমনাটই মত তাঁদের।

পক্ষান্তরে গত কয়েক বছরে বিজেপির  মধ্যে থেকে মুকুল রায় সেই দলের আটঘাঁট জেনে এসেছন। ফলে তৃণমূল যখন দিল্লিকেই পাখির চোখ করছে, তখন বিজেপির মন কি বাত জানা মুকুলের ফেরত আসাটা তাদের কাছেও রাজনৈতিক ভাবে ব্যাপক তাৎপর্যপূর্ণ হবে। বলা যায় মুকুল রায় ফিরবেন সুদ-সমেত।

সামনে ত্রিপুরার ভোট। হাতের তালুর মতো ত্রিপুরা চেনেন মুকুল রায়। রাজনৈতিক মহল মনে করছে, মুকুল ঘরে ফিরলে তৃণমূল সাম্রাজ্যবিস্তার শুরু করবে সেখান থেকেই। আপাতত গোটা বাংলা অধীর আগ্রহে অপেক্ষমান মুকুল মমতাকে এক ফ্রেমে দেখার জন্য।

Published by:Arka Deb
First published: