• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • Babul Supriyo: মুকুলের 'ঘর-ওয়াপসি', কটাক্ষের সুরে 'শুভেচ্ছা' বাবুলের 

Babul Supriyo: মুকুলের 'ঘর-ওয়াপসি', কটাক্ষের সুরে 'শুভেচ্ছা' বাবুলের 

এদিক ওদিক করারও তো বয়স আছে…, মুকুলকে আক্রমণ বাবুলের

এদিক ওদিক করারও তো বয়স আছে…, মুকুলকে আক্রমণ বাবুলের

এদিক ওদিক করারও তো বয়স আছে…, মুকুলকে আক্রমণ বাবুলের

  • Share this:

#কলকাতা: কুল রায়ের ঘর-ওয়াপসির পর থেকেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ঝড় উঠেছে। একদিকে যেমন দলের একাংশের বিরুদ্ধে ক্ষোভ জানিয়ে বিস্ফোরক পোস্ট করেছেন বিজেপি নেতা অনুপম হাজরা। তার পরে পরেই বিজেপি নেত্রী বৈশালী ডালমিয়ার 'আবর্জনা' সাফ করার আবেদন জানিয়ে শুভেন্দু অধিকারীর কাছে আর্জি জানিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট।

সাড়ে তিন বছর পর নিজের 'ঘরে' ফিরেছেন মুকুল রায়। তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের  উপস্থিতিতে তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন বিজেপির সর্বভারতীয় সহ সভাপতি মুকুল। আর তারপরই মুকুলকে নিয়ে কী প্রতিক্রিয়া দেওয়া হবে, তা নিয়ে দ্বিধায় বিজেপি। কেউ বলছেন বিজেপিতে যথেষ্ট সম্মান ও গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে মুকুল রায়কে। কেউ বলছেন, মীরজাফর। বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ আবার বলেছেন, 'উনি দলে আসায় দলের কী লাভ হয়েছে জানিনা। ফের নিজের পুরনো দলে মুকুল রায় ফিরে যাওয়ায় বিজেপির কোনও ক্ষতি হবে বলে মনে করিনা'।

তবে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী তথা আসানসোলের সাংসদ বাবুল সুপ্রিয় মুকুলের ঘর- ওয়াপসির পরপরই সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্টে কটাক্ষের সুরেই মুকুল রায়কে 'শুভেচ্ছা' জানিয়েছেন। বাবুল লিখেছেন, 'আচ্ছা বলুন তো, রাজনৈতিক নেতাদের মানুষ অপছন্দ কেন করবে না? কোনও রাজনৈতিক নেতার থেকে ‘নৈতিক’ কিছু মানুষ (আর) আশা করে না, তাদের দোষও দেব না। দলও অনেকেই বদলায়, সেটাও ঠিক আছে। কিন্তু ব্যাডমিন্টনের শাটল-এর মতো এদিক ওদিক করার একটা বয়সও তো আছে। আত্মসম্মান ব্যাপারটা না হয় ছেড়েই দিলাম.. যাইহোক, মুকুলদা যে ধরণের ঘোলাজলে সাঁতার কাটতে ভালোবাসেন আর 'গভীর জলের মাছ' ধরেন, সেখানেই খুশি মনে ফিরে গেছেন এটা বেশ ভালোই হয়েছে ! All the Very Best to him। '

এরই মধ্যে অবশ্য সোশ্যাল মিডিয়ায় 'নানা মুনির নানা মত' আসতে থাকে। একদিকে যেমন মুকুল রায়ের দলত্যাগকে 'লবিবাজির শিকার' বলছেন অনুপম হাজরার মতো নেতা, অপরদিকে এবার মুকুলকেই সরাসরি 'মীরজাফর' বলে আক্রমণ শানাচ্ছেন তাঁরই ঘনিষ্ঠ বলে এতদিন পরিচিত সাংসদ তথা বিজেপি যুব মোর্চার সভাপতি সৌমিত্র খাঁ। এরই মধ্যে দলের 'আবর্জনা' দূর করতে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ নয়, বরং 'এমএলএ' শুভেন্দু অধিকারীর কাছে আর্জি জানালেন বৈশালী ডালমিয়া।

Published by:Ananya Chakraborty
First published: