Mukul Roy: ফিরলেন ভবনের সেই পুরনো ঘরেই, মুকুলের 'পূর্বাভাসে' দুশ্চিন্তা বাড়ল BJP-তে!

পুরনো ফর্মে মুকুল রায়

Mukul Roy: চোখের উপর থেকে কালো রোদ চশমা সরিয়ে মুকুল রায় একবার দেখে নেন তার পরিচিত তৃণমূল ভবনকে।

  • Share this:

#কলকাতা: পুরনো চেহারায় দেখা গেল মুকুল রায়কে (Mukul Roy)। বাইপাসের ধারে তৃণমূল ভবনে সোমবার ফের এলেন বিধায়ক মুকুল রায়। বসলেন নিজের পুরনো ঘরেই। দেখা গেল সাংবাদিক সম্মেলনে যোগদানও করালেন বিরোধী দল থেকে আসা নেতাদের। পুরনো ফর্মেই দেখা গেল মুকুল'কে। এদিন বেলা ১২.২০ নাগাদ তৃণমূল ভবনে আসেন মুকুল রায়। ধীর গতিতে তার এসইউভি এসে দাঁড়ায় ভবনের সামনে বাইপাসের রাস্তায়। চোখের উপর থেকে কালো রোদ চশমা সরিয়ে একবার দেখে নেন তার পরিচিত তৃণমূল ভবনকে। যদিও গোটা ভবন জুড়ে এখন দেখা যাচ্ছে "বাংলা তার নিজের মেয়েকেই চায়" ফ্লেক্স।

গাড়ি থেকে নেমেই সংবাদমাধ্যমের ক্যামেরার ভিড় সরিয়ে চলে যান ঘরে। কোন ঘর? দীর্ঘ সময় ধরে ভবনের যে ঘরে বসতেন মুকুল রায়। এদিনও সেই ঘরে গিয়েই বসেন তিনি। ভবনের সিঁড়ি দিয়ে উঠে, অনুসন্ধান অফিসের পাশের ঘরটা। সেখানে গিয়েই চেয়ার টেনে বসে পড়েন তিনি। কিছু সময় পড়েই সেখানে আসেন রাজ্যসভার সাংসদ সুখেন্দু শেখর রায়। আসেন রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু। চলে আসেন আলিপুরদুয়ার জেলা তৃনমূল সভাপতি মৃদুল গোস্বামী। আর ধীরে ধীরে আসতে শুরু করেন বিজেপি ছেড়ে তৃণমূল যোগদানকারী নেতারা। বদ্ধ ঘরে প্রায় আধ ঘন্টা ধরে চলতে থাকে মুকুল রায়ের সাথে তাদের বার্তালাপ। প্রসঙ্গত, এদিনই তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন আলিপুরদুয়ার জেলার বিজেপি সভাপতি গঙ্গাপ্রসাদ শর্মা সহ আট জন।

সূত্রের খবর, এই যোগদানের পিছনে রয়েছেন মুকুল রায়। সম্ভাবনা অবশ্য উড়িয়ে দেননি মুকুলবাবু। এদিন তিনি বলেছেন, "আজ যা দেখছেন এটা তো পূর্বাভাস। বিজেপির শেষের শুরু হয়ে গিয়েছে।" তবে বিজেপির এক শীর্ষ নেতার কথায় এমন কথা তিনি তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগদানের পরেও করেছিলেন। তবে এদিন মুকুল রায় যে ভাবে পুরনো ঘরে এসে বসলেন, দলে যোগদানের পিছনে ভূমিকা পালন করলেন তাতে সেই পুরনো মুকুল রায়কেই দেখা গেল। তবে তিনি কোন ঘরে বসবেন তা এখনও নিশ্চিত নয় বলেই সূত্রের খবর। তবে ভবনে মুকুল রায় নিয়মিত আসবেন বলেই সূত্র জানাচ্ছে। জোড়া ফুলে যোগদানের সময়েই মমতা বন্দোপাধ্যায় বলেছিলেন, পুরনো দায়িত্ব পালন করবেন মুকুল রায়। রাজনৈতিক মহলের মতে, সেই দায়িত্বই পালন করা শুরু করলেন মুকুল রায়।

Published by:Suman Biswas
First published: