• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • MUKUL ROY AND OTHE BJP LEADERS FOCUSING ON NORTH BENGAL TO PRESSURIZE BJP AKD

বিজেপি ভাঙিয়ে তৃণমূল বলছে- আজ পূর্বাভাস দেওয়া হলো, আগামী দিনে দেখতে থাকুন

ধীর লয়ে বিজেপিতে ভাঙন ধরাচ্ছে তৃণমূল।

মুকুল রায় বুঝিয়ে দিচ্ছেন, উত্তরে তৃণমূলের ভাঙন দিয়ে একদা যেমন বিজেপির উত্থান শুরু হয়েছিল তেমনই বিজেপির পতনও তিনি দেখছেন ওই পথেই।

  • Share this:

#কলকাতা: উত্তরবঙ্গ ভাগ নিয়ে বিজেপি শিবির যখন দ্বিধাগ্রস্ত তখন পদ্ম শিবিরে ভাঙন ধরাল তৃণমূল কংগ্রেস।  আলিপুরদুয়ার জেলায় ভাঙন ধরাল জোড়া ফুল শিবির।পদ্ম শিবির ছেড়ে জোড়াফুল শিবিরে নাম লেখালেন  আলিপুরদুয়ারের বিজেপি সভাপতি গঙ্গাপ্রসাদ শর্মা।  তৃণমূলের বডি ল্যাঙ্গুয়েজ বলছে, "ইয়ে তো স্রিফ ঝাঁকি হ্যায়।" মুকুল রায় বুঝিয়ে দিচ্ছেন, উত্তরে তৃণমূলের ভাঙন দিয়ে একদা যেমন বিজেপির উত্থান শুরু হয়েছিল তেমনই বিজেপির পতনও তিনি দেখছেন ওই পথেই।

রাজ্যের বিধানসভা ভোটের আগে ঘাস ফুল ছাড়ার হিড়িক পড়ে গিয়েছিল। একাধিক হেভিওয়েট নেতা কর্মী সহ অনেকেই তৃণমূল ছেড়ে নাম লিখিয়েছিলেন বিজেপি শিবিরে। ভোটের ফল বেরোতেই এবার উলটো ছবি। বিজেপি শিবির ছেড়ে ধাপে ধাপে তৃণমূল শিবিরে নাম লেখাচ্ছেন একাধিক নেতা কর্মী। গঙ্গাপ্রসাদ শর্মা বহুদিন ধরেই আর এস এসের সাথে যুক্ত। ২০১৯ এর লোকসভা ভোটের আগে বিজেপি তাকে জেলা সভাপতি করে। ২০১৯ সালের লোকসভা ভোটে বিজেপিকে জয় এনে দেন তিনি।

২০২১ এর বিধানসভা ভোটে আলিপুরদুয়ার জেলায় ভালো ফল করে বিজেপি৷ জেলার সব আসন বিজেপির দখলে আছে। তার পরেও জেলা সভাপতির বিপরীত রাজনৈতিক শিবিরে নাম লেখানোকে গুরুত্ব দিতে নারাজ বিজেপির শীর্ষ নেতারা। দলের এক শীর্ষ নেতা জানিয়েছেন, "গঙ্গাপ্রসাদ বিমল গুরুংয়ের চেয়ে বড় নেতা হয়ে যাননি। বিমল গুরুং পাহাড় থেকে সমতলে ঘুরে ঘুরে প্রচার করলেও জয় ছিনিয়ে আনতে পারেননি। গঙ্গাপ্রসাদবাবু চলে গেলেও কোনও প্রভাব পড়বে না। অন্য অনেক বড় নেতা আসবে। মানুষ ভোট দিয়ে বিজেপিকে উত্তরবঙ্গে জিতিয়েছেন।"

একই সুর আলিপুরদুয়ারের সাংসদ জন বার্লার গলায়। তিনি জানিয়েছেন, "সমুদ্র থেকে এক বালতি জল তুলে নিলে তার কোনও প্রভাব পড়ে না।" তবে বিজেপির সাংগঠনিক নেতার দলে যোগ দেওয়ায় খুশি ঘাস ফুল শিবির। বিশেষ করে, আলিপুরদুয়ারের সাংসদ নিজেই যখন উত্তরবঙ্গকে আলাদা করার দাবিতে অনড় হয়ে আছেন। এক্ষেত্রে দাঁড়িয়ে আগামী দিনে জেলায় এই ইস্যুতে বিজেপি বিরোধীতায় কাজে লাগানো হবে গঙ্গাপ্রসাদ শর্মাকে। তবে গঙ্গাপ্রসাদ শর্মা জানিয়েছেন, আগেই দল ছাড়তে পারতাম। তাহলে আমাকে গদ্দার বলা হত। একই সাথে তৃণমূলে যোগ দিয়েই গঙ্গাপ্রসাদ জানিয়েছেন, "শুভেন্দু অধিকারী নয়, বিরোধী দলনেতা হওয়া উচিত ছিল মনোজ টিগগার"।

Published by:Arka Deb
First published: