corona virus btn
corona virus btn
Loading

আর্থিক প্রতারণার বড় অভিযোগ, বিজেপি নেতার বিরুদ্ধে থানায় স্বয়ং বিজেপি কর্মীই 

আর্থিক প্রতারণার বড় অভিযোগ, বিজেপি নেতার বিরুদ্ধে থানায় স্বয়ং বিজেপি কর্মীই 
প্রতীকী চিত্র।

দলের রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষকেও কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়েছেন মৃনাল।

  • Share this:

#কলকাতা: শুধু মাত্র নারীঘটিত কেলেঙ্কারিই নয় এবার টাকা নিয়ে ফেরত না দেওয়ার অভিযোগ উঠলো বিজেপি দক্ষিণ কলকাতার বিদায়ী সভাপতি সোমনাথ বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে। দলের এক সংগঠক মৃনালকান্তি দাস সোমনাথের বিরুদ্ধে হরিদেবপুর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করছেন। সোমনাথের বিরুদ্ধে ছয় লক্ষ টাকা নিয়ে ফেরত না দেওয়ার অভিযোগের পাশাপাশি দলের রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষকেও কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়েছেন মৃনাল।লিখেছেন, "বারে বারে সব ঘটনা জানানোর পরও সোমনাথের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেন নি সভাপতি।"

হরিদেবপুর থানায় লিখিত অভিযোগে মৃনালকান্তি দাস আরও লিখেছেন "একশো সতেরো নম্বর ওয়ার্ডে প্রার্থী হয় সোমনাথ। আমার থেকে সেই সময় দু'লক্ষ টাকা নেয় ।পরবর্তী সময়ে আরও চার লক্ষ টাকা নেয়।"

অভিযোগপত্রের অংশ। অভিযোগপত্রের অংশ।

চিঠিতে উল্ল্যেখ, মৃণালের ফাঁকা জমিতে বাড়ি তৈরির বরাতও দেওয়া হয়েছিল সোমনাথকে ।কিন্তু তার পর সে টাকা ফেরত দেয়নি সোমনাথ । মৃণালের অভিযোগ, রাজ্য নেতারা সব জানলেও ব্যবস্থা নেয়নি সোমনাথের বিরুদ্ধে । এমনকী দিলীপের কাছে তিনটি চিঠিও লেখেন মৃনাল। তাঁর অভিযোগ সব জেনেও চুপ ছিলেন রাজ্য সভাপতি, বলছেন অভিযোগকারী।

সম্প্রতি সোমনাথের বিরুদ্ধে প্রতিশ্রুতি দিয়ে সহবাসের অভিযোগ জমা পড়ে হরিদেবপুর থানায়।তার জেরে সভাপতি পদ থেকে সোমনাথ কে সরিয়ে দেয় দল। এরই মধ্যে দলের পুরোনো দিনের সক্রিয় সদস্য মৃনাল কান্তি দাসের এই অভিযোগ ঘিরে জল কতদূর গড়ায় , সে দিকেই তাকিয়ে রাজনৈতিক মহল।

Published by: Arka Deb
First published: July 5, 2020, 6:00 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर