• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • ফটোশপেই এভারেস্ট বিজয়!

ফটোশপেই এভারেস্ট বিজয়!

সত্যরূপ সিদ্ধান্তেরই ছবি ব্যবহার করেই নকল পোস্ট করেছেন ভারতীয় পর্বতারোহী দম্পতি। নেপাল সরকারের পর্যটন বিভাগের তদন্তে উঠে এসেছে এমনই তথ্য।

সত্যরূপ সিদ্ধান্তেরই ছবি ব্যবহার করেই নকল পোস্ট করেছেন ভারতীয় পর্বতারোহী দম্পতি। নেপাল সরকারের পর্যটন বিভাগের তদন্তে উঠে এসেছে এমনই তথ্য।

সত্যরূপ সিদ্ধান্তেরই ছবি ব্যবহার করেই নকল পোস্ট করেছেন ভারতীয় পর্বতারোহী দম্পতি। নেপাল সরকারের পর্যটন বিভাগের তদন্তে উঠে এসেছে এমনই তথ্য।

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #কলকাতা: সত্যরূপ সিদ্ধান্তেরই ছবি ব্যবহার করেই নকল পোস্ট করেছেন ভারতীয় পর্বতারোহী দম্পতি। নেপাল সরকারের পর্যটন বিভাগের তদন্তে উঠে এসেছে এমনই তথ্য।

    পবর্তারোহণের ভুয়ো ছবি দাখিল করার অভিযোগে বাতিল হতে চলেছে ওই দম্পতির সামিট শংসাপত্র। শুধু তাই নয় ওই দম্পতির জন্য আগামী দশ বছরের জন্য নেপাল দিয়ে পর্বতারোহণের অনুমতিও  বাতিল হওয়ার সম্ভাবনা  রয়েছে।  নেপাল সরকারের পর্যটন মন্ত্রকের ডিজি সুদর্শন ঢাকাল কলকাতা এসে এটাই জানালেন।

    জুন মাসে মহারাষ্ট্রের দম্পতি দীনেশ এবং তারকেশ্বরী জানান, তাঁরা এভারেস্ট জয় করেছেন। পর্বতারোহণ সম্পর্কিত বেশ কিছু ছবিও তাঁরা জমা দেন নেপাল সরকারের পর্যটন মন্ত্রকের কাছে। পর্যটন মন্ত্রক সফল অভিযাত্রীদের শংসাপত্র দেয়।

    যদিও দম্পতির দেওয়া ছবি দেখে সন্দেহ হয় চলতি বছরেই এভারেস্ট জয় করা বাঙালি পর্বতারোহী সত্যরূপ সিদ্ধান্তের। তিনি জানান, তাঁরই ছবি ব্যবহার করেছে মহারাষ্ট্রের ওই দম্পতি। এই ঘটনায় দীর্ঘ কয়েক দশকের এভারেস্ট জয়ের ইতিহাসে তৈরি হয়েছে নতুন বিতর্ক।

    সমালোচনার মুখে পড়ে স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে তদন্ত কমিটি তৈরি করে নেপাল সরকারের পর্যটন ও অসামরিক বিমান পরিবহণ মন্ত্রক। তদন্তের দায়িত্বে থাকেন খোদ ডিজি। সেই তদন্তে উঠে এল ছবি জাল করার তথ্য।

    IMG-20160629-WA0001

    এদিন কলকাতায় হিমালয়ন ক্লাবের একটি অনুষ্ঠানে এভারেস্ট জয়ীদের সম্মান দিতে উপস্থিত ছিলেন সুদর্শন ঢাকাল। সেখানে সত্যরূপ সিদ্ধান্তের সঙ্গে দীর্ঘক্ষণ তিনি কথা বলেন ।

    নেপাল সরকারের তরফ থেকে জানানো হয়েছে মিথ্যা সামিটের ছবি জমা দেওয়ায় কড়া শাস্তির মুখে পড়তে চলেছেন দীনেশ ও তারকেশ্বরী।

    সত্যরূপ সিদ্ধান্ত ইতিমধ্যেই আইনি লড়াই শুরু করেছেন। তার আগে নেপাল সরকারের তদন্তে, অভিযোগের সত্যতা কার্যত প্রমাণ হওয়ায় সত্যরূপের জয় হল বলে মনে করছেন এভারেস্ট জয়ী অন্যান্য বাঙালি পর্বতারোহীরা।

    এদিনের অনুষ্ঠানে অন্যান্য পর্বতারোহীর পাশাপাশি দার্জিলিঙের দুই সফল পর্বতারোহী কলেজ ছাত্রী সুলক্ষ্ণণা তামাং ও ত্রিশলা গুরুংকেও সম্মান জানানো হয়।

    ফেল টাকা, চড়ো এভারেস্ট’ ৷ এভারেস্ট অভিযানের বাড়বাড়ন্ত দেখে অভিমানী পর্বতারোহী বিশেষজ্ঞরা এরকমই মত প্রকাশ করেছিলেন ৷ কারণ মাত্র আট লক্ষ টাকা খরচ করলেই মিলছিল এভারেস্ট অভিযানের ছাড়পত্র ৷ তাতে কৌলিন্যের সেই শৃঙ্গ জয় এখন অনেকটাই সহজ হয়ে গিয়েছে বলে মত বিশেষজ্ঞদের।

    মাউন্টেন লাভারদের আশঙ্কা, এবার কোনও শারীরিক ও মানসিক পরিশ্রম ছাড়াই ফটোশপের কারিকুরিতে তৈরি এভারেস্ট জয়ের রুটম্যাপ হাতে পেয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় এভারেস্ট জয়ে ঝাঁপিয়ে পড়বে লাখ লাখ ‘পর্বতারোহী’ ৷

    First published: