কলকাতা

corona virus btn
corona virus btn
Loading

জোরালো বিস্ফোরণ আর ভয়াল আগুন, পর্ণশ্রীতে অগ্নিদগ্ধ হয়ে মৃত্যু মা-মেয়ের

জোরালো বিস্ফোরণ আর ভয়াল আগুন, পর্ণশ্রীতে অগ্নিদগ্ধ হয়ে মৃত্যু মা-মেয়ের
এই বাড়িতেই আগুন লাগে।

দরজা ভিতর থেকে বন্ধ থাকায় উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি সোমা ও কাকালিকে।

  • Share this:

#কলকাতা: পর্ণশ্রীর দ্বিজেন মুখার্জি রোডে একটি বাড়ি কেঁপে উঠল প্রবল বিস্ফোরণে। প্রতিবেশীরা যতক্ষণে ঘটনাস্থলে পৌঁছলেন ততক্ষণে সবই শেষ।

শনিবার সকাল ১১টা।  হঠাৎই প্রবল বিস্ফোরণ সেই সঙ্গে ধোঁয়া বেরোতে থাকে বেহালা পর্ণশ্রী এলাকার একটি দোতালা বাড়িতে। এই বাড়িতে থাকতেন বছর ৮৯-এর সোমা মাইতি ও মেয়ে কাকলির মাইতি। ওই বাড়িতে সেই সময় ছিলেন সোমা দেবীর ভাইপো হীরক ঘোষ ও তাঁর স্ত্রী মৌসুমি ঘোষ। দ্বিতীয় তলার ঘর থেকে আগুন দেখে ছুটে উপরে যান।

ঘরের মধ্যে রয়েছেন পিসি  ও বোন জেনেও দরজা খুলতে পারেনি হীরক। দরজা ভিতর থেকে বন্ধ থাকায় উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি সোমা ও কাকালিকে। প্রতিবেশীদের চেষ্টায় বন্ধ দরজা ভাঙা হলেও ততক্ষণে সবই শেষ।

অল্প কিছুক্ষণে দমকলের দু'টি ইঞ্জিন ঘটনাস্থলে এসে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনার চেষ্টা করে। বন্ধ ঘর থেকে মা ও মেয়ের  ঝলসে যাওয়া দেহ উদ্ধার করে দমকল। সেই দেহ উদ্ধার করে বেহালার বিদ্যাসাগর হাসপাতালে পাঠানো হয়। হাসপাতালে নিয়ে যাবার পরেই চিকিৎসক মৃত বলে ঘোষণা করেন।

দমকলের এক অফিসার জানান, আগুন নেভাতে এসে ঘরের মধ্যে বৈদ্যুতিক কাজ ঠিক মত ছিল না তা চোখে পড়েছে, প্রাথমিক ভাবে এটি শর্ট সার্কিট বলে মনে করা হচ্ছে। হীরক ঘোষ জানান, "আগুন দেখে দৌড়ে গিয়ে দরজা অনেকবার ধাক্কা দিয়েছি। কোন শব্দ নেই, দরজাটা খোলা থাকলে এই ঘটনা ঘটত না। মৌসুমি ঘোষ জানান, হঠাৎ করে একটা শব্দ পেয়ে দেখি ওপরের ঘরগুলো থেকে দাউদাউ করে জ্বলছে। তখন আগুন নেভানোর চেষ্টা বৃথা হল।

একই কথা জানাচ্ছেন এক প্রতিবেশীও। "পাশের বাড়ির ঘরে আগুন জ্বলছে প্রথমে বোঝা যায় নি। বাইরে বেরিয়ে দেখি সোমাদের ঘরের প্রত্যেকটি জানালা জ্বলছে। সোমা দীর্ঘদিন ধরেই শয্যাশায়ী, কাকলি শারীরিকভাবে দুর্বল থাকায় দরজা খোলা সম্ভব হয়নি বলে মনে করছি।"

Published by: Arka Deb
First published: July 4, 2020, 9:13 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर