সোশ্যাল মিডিয়ায় বাজিমাত, মমতার নন্দীগ্রাম সফর দেখেছেন ৩৬ লক্ষের বেশি মানুষ

সোশ্যাল মিডিয়ায় বাজিমাত, মমতার নন্দীগ্রাম সফর দেখেছেন ৩৬ লক্ষের বেশি মানুষ

তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্য়োপাধ্যায়। ছবি-পিটিআই।

ই লাইভ স্ট্রিমিংয়ে নন্দীগ্রামে 'মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় অফিশিয়াল' পেজ থেকে ভিউজ হয়েছে ৩৬৮০কে (3680K)। অর্থাৎ ৩৬ লক্ষ ৮০ হাজার।

  • Share this:

#কলকাতা: প্রচারের অন্যতম অস্ত্র এখন সোশ্যাল মিডিয়া। সকলের কাছে সহজে নিজের কথা বা দলের কথা পৌঁছে দিতে ভরসা এখন সোশ্যাল মিডিয়ায় লাইভ৷ সেই লাইভ স্ট্রিমিংয়ে নন্দীগ্রামে 'মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় অফিশিয়াল' পেজ থেকে  ভিউজ হয়েছে ৩৬৮০কে (3680K)। অর্থাৎ ৩৬ লক্ষ ৮০ হাজার। এক কথায় বললে সভা বাদ দিয়ে এই পরিমাণ সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহারকারী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের লাইভ স্ট্রিমিং দেখেছেন নন্দীগ্রাম থেকে। যার বেশিরভাগই জুড়ে ছিল মন্দির, মাজার ও শহিদ বেদী দর্শন ও শ্রদ্ধা জ্ঞাপন।

প্রসঙ্গত চলতি মাসের ৯ ও ১০ তারিখ নন্দীগ্রামে ছিলেন মমতা বন্দোপাধ্যায়। ১০ মার্চ সন্ধ্যাবেলায় তাঁর পায়ে আঘাত লাগে। তার আগে অবধি মমতার কর্মসূচিতে যা লাইভ ভিউজ হয়েছে তাতে খুশি তৃণমূল কংগ্রেস।গত ৯ মার্চ বিকেল তিনটে নাগাদ নন্দীগ্রামে পৌছন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ১০ মার্চ তিনি নন্দীগ্রাম ছাড়েন সন্ধ্যা ৬টা ৪০ মিনিটে। এই সময়ের মধ্যেই তাঁর ফেসবুক পেজ থেকে লাইভ হয়েছে ২০ বার। যার মধ্যে সভা একবার। সাংবাদিক সম্মেলন ২ বার। মনোনয়ন জমা দিতে যাওয়ার সময় হলদিয়ায় ৩ বার। ‌বাকি ক্ষেত্রে, ১১ বার লাইভ হয়েছে মন্দির দর্শনে। ১ বার লাইভ হয়েছে পীরস্থান মাজার দর্শনে। ১ বার লাইভ হয়েছে শহীদ বেদীতে শ্রদ্ধা জানানোর সময়। ১ বার লাইভ হয়েছে চায়ের দোকানে জনগণের সাথে কথা বলার সময়ে।

৯ মার্চ নন্দীগ্রামে পৌছে গিয়ে তিনি যখন কর্মী ‌সভা করেন তখন লাইভ ভিউজ ছিল ১ মিলিয়ন বা দশ লক্ষ। ওই দিনে বাকি লাইভ হয় ৯ বার। তার সম্মিলিত লাইভ ভিউজ ছিল ১৪৬৯ কে (1469K) বা ১৪ লক্ষ ৬৯ হাজার। পরের দিন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অফিসিয়াল পেজ থেকে লাইভ হয়েছে ১০ বার। তার সম্মিলিত লাইভ ভিউজ হয়েছে ২২১১ কে (2211K).. বা ২২ লক্ষ ১১ হাজার। তবে ৯ তারিখ সবচেয়ে বেশি ভিউজ হয়েছে চা'য়ের দোকানে চা বানানোর সময়ে। লাইভ ভিউজ ছিল সেই সময় ৩০৪কে (304K) অর্থাৎ৩ লক্ষের কিছু বেশি। ১০ তারিখ সবচেয়ে বেশি ভিউ ছিল মনোনয়ন পেশ করতে যাওয়ার সময়ে মমতা বন্দোপাধ্যায়ের পদযাত্রা যখন চলছিল। সেই সময় ভিউজ হয়েছে ৪২৯ কে (429K) বা চার লক্ষ ২৯ হাজার।

এক নজরে দেখে নেওয়া যাক কবে কত ভিউজ-

৯ মার্চ কর্মী সন্মেলন- ১মিলিয়ন, চন্ডী মন্দির ২৯০ কে, চন্ডী মন্দির ১৩৪ কে, চন্ডী মন্দির ২৫৫ কে, শহিদ বেদি ৭৪ কে, পারুল মন্দির ৭১ কে, পীরস্থান মাজার ১৬৫ কে, চায়ের দোকান ৩০৪ কে, জানকীনাথ মন্দির ৫৮ কে, রেয়াপাড়ায় বাড়ি ঢোকার আগে সাংবাদিক সম্মেলনে ১১৮ কে।

১০ মার্চ ভিউজ এসেছে -শিব মন্দির ৩২৭ কে মনোনয়ন জমা দেওয়ার সময়, তিন বার লাইভ স্ট্রিমিং ১৫৫ কে, ৫৫ কে ও ৪২৯ কে। মনোনয়ন জমা দেওয়ার পরে হলদিয়ায় সাংবাদিক সম্মেলনে ১৭৩ কে, শিবরামপুর মন্দির ৩২৪ কে, চালমারী মন্দির ১৪৪ কে, মন্দির ৩৭৫ কে, শিবালয় মন্দির ৯৯ কে, রাণীচক গিরিবাজার মন্দির ১৩০ কে। তৃণমূল শিবিরের দাবি, এই লাইভ ভিউজ প্রমাণ করছে মমতা বন্দোপাধ্যায়ের জনপ্রিয়তা কতটা।

Published by:Arka Deb
First published: