corona virus btn
corona virus btn
Loading

৬০% উপর নম্বর তিন লক্ষেরও বেশী পড়ুয়ার, স্নাতক স্তরে কলেজগুলিতে আসন কি বাড়বে? নিশ্চিত নয় কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়

৬০% উপর নম্বর তিন লক্ষেরও বেশী পড়ুয়ার, স্নাতক স্তরে কলেজগুলিতে আসন কি বাড়বে? নিশ্চিত নয় কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়

১০ অগাস্ট থেকে ছাত্র ভর্তির প্রক্রিয়া শুরু হলেও সামগ্রিকভাবে স্নাতক স্তরের আসন বাড়ানো হবে নাকি সে বিষয়ে এখনও পর্যন্ত নিশ্চিত হতে পারছে না কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

  • Share this:

#কলকাতা: কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনস্থ কলেজগুলিতে স্নাতক স্তরের প্রথম বর্ষের করার জন্য আসন সংখ্যা কি বাড়বে? এখনও পর্যন্ত নিশ্চিত হতে পারছে না কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। কারণ কলেজগুলিতে আসন বাড়াতে গেলে সে ক্ষেত্রে কলেজগুলির তরফে আবেদন আসতে হবে বিশ্ববিদ্যালয়ের কাছে। দ্বিতীয়ত, বিশ্ববিদ্যালয়ের কাছে আবেদন এলে সেই আবেদন সম্মতি দেওয়ার জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট বৈঠকে অনুমোদন করাতে হবে। কিন্তু বর্তমানে করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতির জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ে কার্যত বন্ধ। আবার সে অর্থে বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনস্থ কোন কলেজের তরফেই আবেদন আসেনি আসন বাড়ানোর জন্য। তাই ১০ অগাস্ট থেকে ছাত্র ভর্তির প্রক্রিয়া শুরু হলেও সামগ্রিকভাবে স্নাতক স্তরের আসন বাড়ানো হবে নাকি সে বিষয়ে এখনও পর্যন্ত নিশ্চিত হতে পারছে না কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

এ প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় রেজিস্ট্রার দেবাশীষ দাস বলেন " আসন বাড়ানোর অনুমোদন দিতে গেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট বৈঠক করতে হবে। কিন্তু এখনও পর্যন্ত এই পরিস্থিতিতে সিন্ডিকেট বৈঠক সেটা সম্ভব নাকি তা বোঝা মুশকিল। অনেক আগে একটি বা দুটি কলেজ থেকে আসন বাড়ানোর আবেদন এসেছিল।কিন্তু তারপর থেকে লকডাউন ও কলেজ বন্ধ থাকার জন্য নতুন করে আর আবেদন এসে পৌঁছায়নি। তাই আসন কতটা বাড়বে তা এখনই নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না।"

গত শুক্রবারই উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ এ বছরের উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার ফল প্রকাশ করেছে। গতবারের তুলনায় এবছর একদিকে যেমন ৯০ শতাংশের উপরে পাওয়া নম্বরের সংখ্যা অনেকটাই বেড়েছে। তেমনি ৬০% বা ফার্স্ট ডিভিশন পাওয়ার নম্বরের সংখ্যা ছাত্র-ছাত্রীদের অনেকটাই বেড়েছে।৩ লক্ষের বেশি ছাত্র-ছাত্রী ৬০ শতাংশের ওপর নম্বর পেয়েছে এ বছর যা গতবারের তুলনায় ৬০ হাজারেরও বেশি এমনটাই শুক্রবার সাংবাদিক সম্মেলন করে দাবি করেছিলেন উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদের সভাপতি মহুয়া দাস। তবে এত বিপুল সংখ্যক নম্বর ছাত্রছাত্রীদের কাছে আসাতে রাজ্যের কলেজগুলিতে কাট অফ মার্কস কি হবে বা কিভাবে এত বেশি নম্বর পাওয়া ছাত্রছাত্রীদের কলেজগুলিতে পর্যাপ্ত আসন দেওয়া সম্ভব নাকি তা নিয়েই এখন চুলচেরা বিশ্লেষণ চলছে। কেননা এখনও পর্যন্ত কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনস্থ ১০০টিরও বেশি কলেজে আসন সংখ্যা বাড়বে নাকি সে বিষয়ে নিশ্চিত নয় খোদ বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষই। অনেকেই মনে করছেন যেহেতু এবছর একাধিক পরীক্ষা বাতিল হয়ে গেছিল তাই পরীক্ষা না হওয়া বিষয়গুলিতে সর্বোচ্চ নম্বর পাওয়া বিষয় নম্বর পেয়ে যাওয়ার দরুণ একাধিক ছাত্র-ছাত্রীর নম্বর অনেকটাই বেড়ে গিয়েছে। যার জেরে কলেজগুলির কাছেও এখন প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে বাদ হয়ে যাবে পরীক্ষা গুলির ক্ষেত্রে ছাত্রছাত্রীদের অনার্স পড়ার সুযোগ দিলে কিভাবে তা যাচাই করা সম্ভব?

আগামী ১০ অগাস্ট থেকে রাজ্যের উচ্চ শিক্ষা দফতর কলেজে ছাত্র ভর্তি প্রক্রিয়া শুরু করতে বলেছে। যদিও ছাত্র ভর্তির প্রক্রিয়া শুরু করতে বললেও তা অনলাইন অ্যাপ্লিকেশন করার প্রক্রিয়া শুরু করতে বলেছে নাকি অ্যাডমিশন অর্থাৎ ভর্তি শুরু করার কথা বলা হয়েছে তা নিয়ে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিটি রাজ্যের উচ্চ শিক্ষা দফতরের কাছে জানতে চাওয়া হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে খবর, সেই বিষয়ে প্রয়োজনীয় উত্তর এলেই তার পরবর্তী ক্ষেত্রে ভর্তির বিজ্ঞপ্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনস্থ কলেজগুলির জন্য জারি করা হবে। সে ক্ষেত্রে উচ্চ শিক্ষা দফতরের তরফের যদি ভর্তির বিজ্ঞপ্তি বলা হয় তাহলে আগামী সপ্তাহেই অনলাইন অ্যাপ্লিকেশন শুরু করার জন্য কলেজগুলোকে নির্দেশ দিতে পারে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়।

 সোমরাজ বন্দ্যোপাধ্যায়

Published by: Elina Datta
First published: July 19, 2020, 5:51 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर