কলকাতা

corona virus btn
corona virus btn
Loading

রাতের কলকাতায় চলন্ত গাড়িতে তরুণীর শ্লীলতাহানি, অভিযোগ দায়ের যাদবপুর থানায় 

রাতের কলকাতায় চলন্ত গাড়িতে তরুণীর শ্লীলতাহানি, অভিযোগ দায়ের যাদবপুর থানায় 
Representative Image

এই ঘটনার পর রাতের শহরে মহিলাদের নিরাপত্তা নিয়ে ফের প্রশ্ন উঠল |

  • Share this:

#কলকাতা: শহরে চলন্ত গাড়িতে তরুণীকে শীলতাহানির অভিযোগ| চাঞ্চল্যকর  ঘটনায় অভিযোগ দায়ের যাদবপুর থানায় | অভিযোগকারিণী জানান, গত ২৭তারিখ মহেশতলা থেকে যাদবপুর  বিজয়গড়ে  তাঁর  বান্ধবী বাড়িতে গিয়েছিলেন তিনি| ছিল বার্থডে পার্টি৷ তারপর মঙ্গলবার রাতে তরুণীকে তাঁর বান্ধবী প্রস্তাব দেন বাইরে যাবার জন্য| বান্ধবীর সঙ্গে তাঁর বয়ফ্রেইন্ডর  ঝামেলা  হয়েছিল,  সেই ঝামেলা  মিটমাট  করতেই বাইরে বেরনোর পরিকল্পনা ছিল | তাই বান্ধবীকে তিনি নিয়ে যেতে চান |  গাড়িতে উঠে তরুণী  দেখেন তিন যুবক  গাড়িতে  রয়েছে | তরুণীর  অভিযোগ, ওই তিন যুবক ও তাঁর বান্ধবী নেশা করেছিল| অভিযোগকারিণীকে  নেশা করতে বললেও তিনি করেননি বলে দাবি | এরপরই  তাঁকে উত্তক্ত্য  করতে থাকে  গাড়িতে  থাকা  যুবকেরা | অভিযোগ, তাঁকে  চলন্ত গাড়িতে শীলতাহানি  করা  হয় | শহর কলকাতার বিভিন্ন প্রান্তে প্রায় দের ঘণ্টা ধরে ঘুরতে থাকে গাড়ি|

অভিযোগকারিণী  বলেন, " বিজয়গড় থেকে লেক গার্ডেন্স বাইপাস ধাবা, আক্ক্রপলিস, ভিক্টোরিয়া, পার্কস্ট্রিট ফ্লাইওভার হয়ে একাধিক  জায়গাতে ঘুরতে থাকে গাড়ি|" তরুণী সঙ্গে অভব্য আচরণ করে ওই যুবকেরা, এমনই অভিযোগ | এদের মধ্যে গাড়ির সামনে সিটে চালকের আসনে যে বসেছিল, সে ছিল যাদবপুরের বান্ধবীর বয়ফ্ৰেন্ড | পাশে ছিল তার প্রেমিকা | বান্ধবীর  পিছনে সিটে বসেছিলেন জানালার পাশে অভিযোগকারিণী | তার পাশে  ছিল মূল অভিযুক্ত এবং তার পাশে আরও এক  যুবক বসেছিল|  কয়েকঘন্টা এভাবে অশালীন  আচরণ ও বেগতিক  দেখে তরুণী শেয়ার লোকেশন  করে ৫বন্ধুকে  জানায় | এরপরই অভিযুক্তরা তাকে প্রাণনাশের  হুমকি দেয় বলে অভিযোগ|

এরপর মধ্যেই অন্য বন্ধুরা তাঁকে মেজেস করে ল্যান্সডাউনে গাড়ি আনতে বলেন| এরপরই কাজের অজুহাত দিয়ে তরুণী গাড়ি ঘুরিয়ে নিতে অনুরোধ করেন৷ অভিযুক্তরা ল্যান্সডাউন আসা মাত্র তরুণীর বন্ধুরা অন্য গাড়িতে এসে ওই অভিযুক্তদের আটকাতে চেষ্টা করে | গাড়ি থেকে নেমে যান অভিযোগকারিণী  ও  যাদবপুরের বান্ধবীও | চম্পট দেয় হুড খোলা গাড়ি নিয়ে ওই অভিযুক্তরা | যাওয়ার সময় তরুণীর অন্য এক বন্ধুর পায়ে  চাকা  উঠে  যায় প্রায় |  অভিযোগকারীনিকে নিয়ে  বন্ধুরা  প্রথমে যান ভবানীপুর  থানায় | বিজয়গরের ঘটনা শুনে তাকে পাঠানো হয় যাদবপুর থানায় | সেখানে লিখিত অভিযোগ করা হয় সৌরভ  রায়, রাজেশ রায়, বান্ধবী ও অপর যুবকের নামে |

এরপর থেকেই অভিযুক্তরা অধরা | বিজয়গড়ে এদিন গিয়ে দেখা যায় বান্ধবীর  ফ্ল্যাটে তালা ঝুলছে |প্রতিবেশীরা জানান, "এখানে মাঝে মধ্যে পার্টি চলত | অনেক ছেলেও আসত | রাতে চিৎকার, হৈহুল্লোর হত | কয়েকবার মানা করা সত্ত্বেও তারা শোনেনি|" এমন অভিযোগ প্রতিবেশীদের৷ জানা গিয়েছে যাদবপুরের ওই বান্ধবীর সঙ্গে তার বয়ফ্রেন্ডের ঝামেলা  হয় কিছু দিন আগে | গত ১৯ ডিসেম্বর  ওই বান্ধবী  অভিযোগ করে তার প্রেমিকের  বিরুদ্ধে | সেই ঝামেলা  মিটাতে লং ড্রাইভ  জয় রাইডের  প্ল্যান  ছিল |

পুলিশ  সূত্রের খবর, অভিযুক্তরা সকলেই লেক গার্ডেন্সর  বাসিন্দা | কল সেন্টারে কাজ করে অভিযুক্তরা | যাদবপুরের বান্ধবীর সঙ্গে আলাপ মাস তিনেকের | অভিযোগকারিণী পার্টনারশিপে দেশপ্রিয় পার্কে  ক্যাফে চালান  | এছাড়া ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট অর্গানাইসের হিসাবেও তিনি কাজ করেন |  ক্যাফেতে  যাতায়াত ও অন্য বন্ধুদের মারফত যাদবপুরের ওই বান্ধবীর সঙ্গে আলাপ হয়েছিল তাঁর| নিগৃহীতার দাবি, " শুধু শ্লীলতাহানি  নয়, গাড়িতে বসে বৈদিক ভিলেজ, মন্দারমণি গিয়ে সময় কাটানোর মতো কুপ্রস্তাবও দেয় অভিযুক্তরা | ৩১ ডিসেম্বর  অভিযুক্তদের গোয়া  যাওয়ার কথা ছিল | সেখানে  পাঁচতারা  হোটেল বুকিং করেছিল|"  পুলিশ সূত্রের খবর, বেপরোয়াভাবে হুড খোলা দামি  গাড়িতে  জয়  রাইডে রাতের শহরে  বেরিয়েছিল অভিযুক্তরা| সিসিটিভি ফুটেজ  খতিয়ে দেখা হচ্ছে| অভিযুক্তদের খোঁজে তল্লাশি করছে পুলিশ | অভিযোগকারিণী  ১৬৪ বা গোপন  জবানবন্দি  নেওয়া হবে| তরুণীর দাবি, ঘটনা পর যাদবপুরের বান্ধবী জানান  সে তার বয়ফ্রেইন্ড সঙ্গেই আছে  | এই ঘটনার পর রাতের শহরে মহিলাদের নিরাপত্তা নিয়ে ফের প্রশ্ন উঠল | তরুণী বিধস্ত হয়ে ভবানীপুর  থানায় গেলে সেখানে প্রাথমিক ভাবে অভিযোগ  না লিখে জুড়িসডিকশন দেখিয়ে পৌঁছানো হল যাদবপুর থানায় | বারবার কলকাতা পুলিস কমিশনারের জিরো টলারেন্সের নির্দেশ দিয়েছেন৷ কিন্তু সিপির নির্দেশ কতটা মানা হচ্ছে? সেই প্রশ্ন উঠল এই ঘটনার পর৷

অর্পিতা  হাজরা
Published by: Pooja Basu
First published: December 30, 2020, 6:11 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर