মোদির সঙ্গ পেয়ে 'স্বপ্নপূরণ' মিঠুনের, 'এক ছোবলেই ছবি' করার হুঁশিয়ারি

মোদির সঙ্গ পেয়ে 'স্বপ্নপূরণ' মিঠুনের, 'এক ছোবলেই ছবি' করার হুঁশিয়ারি

'আজকের দিনটা আমার কাছে স্বপ্নের মতো। আমি স্বপ্ন দেখেছিলাম, জীবনে কিছু একটা করব।'

'আজকের দিনটা আমার কাছে স্বপ্নের মতো। আমি স্বপ্ন দেখেছিলাম, জীবনে কিছু একটা করব।'

  • Share this:

    #কলকাতা: জল্পনা সত্যি হয়ে গিয়েছে। শেষমেশ বিজেপিতেই নাম লেখালেন বাঙালির 'আইকন' মিঠুন চক্রবর্তী। নরেন্দ্র মোদির ব্রিগেড সমাবেশেই বিজেপিতে যোগ দিলেন মিঠুন। আর সেখান থেকেই তিনি নিজের সিনেমার ডায়লগ দিয়ে রীতিমতো হুঁশিয়ারিও দিয়ে রাখলেন। তবে, মোদির আসার আগেই বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ ও কৈলাস বিজয়বর্গীয়র হাত থেকে বিজেপির পতাকা তুলে নিলেন মিঠুন।

    এরপর বক্তব্য রাখতে উঠে মিঠুন বললেন, 'আজকের দিনটা আমার কাছে স্বপ্নের মতো। আমি স্বপ্ন দেখেছিলাম, জীবনে কিছু একটা করব। কিন্তু এমনটা ঘটবে। আমি ভাবিনি। এতবড় নেতা, নরেন্দ্র মোদির মতো একজন নেতার সঙ্গে এখানে আসতে পেরেছি। এটা স্বপ্ন ছাড়া আর কী? গরীবের জন্য় আমি কিছু করতে চাই। এটাও স্বপ্ন ছিল আমার। স্বপ্ন হৃদয় দিয়ে আসে। আমি বাঙালি, আমি গর্বিত আমি বাঙালি।' ফলে বিজেপির মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী কি মিঠুনই, এই জল্পনা আবারও জলহাওয়া পেল।

    মিঠুনের বক্তৃতা রাখার সময়ই প্রবল উৎসাহী জনতা তাঁর উদ্দেশে সিনেমার ডায়লগ শোনার আবদার জুড়ে দেয়। আর তখনই নিজের বিখ্য়াত সেই ডায়লগ 'মারব এখানে, লাশ পড়বে শ্মশানে' উচ্চারণ করে রীতিমতো ঝড় তোলেন ব্রিগেডের মাঠে। তবে, এরপরই মিঠুনের সংযোজন, 'এই ডায়লগটা চলবে। আরেকটা নতুন ডায়লগ দিচ্ছি, আমি জলঢোড়াও নই, বেলেবোড়াও নই, আমি কোবরা, আমি জাত গোখড়ো, এক ছোবলেই ছবি। আমি সবসময় আপনাদের সঙ্গে থাকব।' এদিন মিঠুনের বক্তব্যে একপ্রকার স্পষ্ট হয়ে গিয়েছে, আগামী ভোটে তাঁকে প্রার্থী করতে চলেছে বিজেপি। সেক্ষেত্রে মিঠুনকেই কি মুখ্যমন্ত্রী মুখের জন্য বেছে নিল বিজেপি, রাজনৈতিক মহলে প্রবল চর্চা শুরু হয়েছে।

    রবিবার সকাল-সকালই ব্রিগেডের উদ্দেশে রওনা দিয়েছিলেন মিঠুন। বউবাজারের কাছে তাঁর গাড়ি আটকে উচ্ছ্বাসও দেখান বিজেপি কর্মী-সমর্থকরা। সেলফি তোলার আবদার আসতে থাকে পথেঘাটে। এরপর ব্রিগেডে পৌঁছে বিজেপির পতাকা হাতে তুলে নেন তিনি। ব্রিগেডের মাঠে নরেন্দ্র মোদির হাত থেকেই বিজেপির হাতে তুলে নিতে পারেন মিঠুন, সেই জল্পনাও জারি ছিল। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী আসার আগেই বিজেপির ছায়াতলে বাঙালির প্রিয় 'ডিস্কো ডান্সার'। আর তাঁকে ঘিরে উচ্ছ্বাসও বলে দিচ্ছে, তৃণমূলের জন্য মিঠুনের বিজেপিতে যোগদান নিঃসন্দেহে কিছুটা চাপ তৈরি করল।

    Published by:Suman Biswas
    First published:

    লেটেস্ট খবর