• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • MIMI NUSRAT JAHAN REACTS ON TWEETER REGARDING MAMATAS ALLEGED SANJ

"গেট ওয়েল সুন, মাই কুইন" ট্যুইট করলেন মিমি, সোশ্যাল মিডিয়ায় ভিডিও শেয়ার করে তীব্র প্রতিক্রিয়া নুসরতের

FILE Photo

"তোমরা দিদির ওপর আঘাত করার চেষ্টা করতে পার, কিন্তু দিদিকে টলাতে পারবে না।" নেত্রীর দ্রুত আরোগ্য কামনা করে লেখেন নুসরত।

  • Share this:

    #কলকাতা : মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ওপর আঘাতের অভিযোগ উঠেছে নন্দীগ্রামে। বা পায়ে গুরুতর চোট নিয়ে নন্দীগ্রাম থেকে গ্রিন করিডোর বানিয়ে অবিলম্বে তাঁকে নিয়ে আসা হয়েছে কলকাতায়। এসএসকেএম-এ তাঁর চিকিৎসা চলছে। এই ঘটনায় চক্রান্তের অভিযোগ তুলেছেন মমতা। তাঁর অভিযোগ, ৪-৫ জন ইচ্ছাকৃতভাবে তাঁকে ধাক্কা মারে। সেইসময় তাঁর কাছাকাছি কোনও স্থানীয় পুলিশ আধিকারিক ছিলেন না বলেও অভিযোগ করেন মুখ্যমন্ত্রী। এই ঘটনায় ক্ষোভে ফেটে পরে রাজ্যের তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মী সমর্থক থেকে শুরু করে উঁচু ও নিচু তলার রাজনৈতিক নেতা নেত্রীরা।

    এরপরেই ট্যুইটারে ক্ষোভে ফেটে পড়েন দলের অভিনেত্রী সাংসদ নুসরত জাহান। একটি ভিডিও শেয়ার করে নুসরত লেখেন, "আমাদের প্রিয় নেত্রীর ওপর আক্রমণের তীব্র নিন্দা করছি।" তাঁর পোস্ট এ বিরোধীদের উদ্দেশ্য করে নুসরত যোগ করেন, "তোমরা দিদির ওপর আঘাত করার চেষ্টা করতে পার, কিন্তু দিদিকে টলাতে পারবে না।" একইসঙ্গে নেত্রীর দ্রুত আরোগ্য কামনা করেন তৃণমূল সাংসদ।

    দিদির সুস্থতা প্রার্থনা করে ট্যুইট করেন তৃণমূলের অপর অভিনেত্রী সাংসদ, মিমি চক্রবর্তীও। মমতাকে "কুইন" সম্বোধন করে মিমি তাঁর পোস্ট-এ মুখ্যমন্ত্রীর আরোগ্য কামনা করেন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের একটি ছবি শেয়ার করে মিমি লেখেন, "বাংলার মানুষ আপনার জন্য প্রার্থনা করছে। দ্রুত ভালো হয়ে উঠুন।"

    প্রসঙ্গত, মনোনয়ন জমা দিয়ে ফিরে নন্দীগ্রামে একটি ধর্মীয় অনুষ্ঠান থেকে ফেরার পথে বুধবার পায়ে গুরুতর চোট পান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। জানা গিয়েছে, গাড়ির দরজা খুলে দাঁড়িয়ে তিনি নন্দীগ্রামের সাধারণ মানুষের সঙ্গে কথা বলছিলেন। অভিযোগ সেই সময়ে কয়েকজন দরজায় ধাক্কা মারে। তাতেই পায়ে গুরুতর চোট পান মুখ্যমন্ত্রী। তাঁকে রীতিমতো যন্ত্রণায় ছটফট করতে দেখা যায়। "ষড়যন্ত্র করেই তাঁকে আঘাত করা হয়েছে বলে জানান খোদ মুখ্যমন্ত্রী। নির্বাচন কমিশনে এই বিষয়ে অভিযোগ করবেন বলেও জানান মমতা। মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায় বলেন, জেনেবুঝে চার থেকে পাাঁচজন ধাক্কা মারে তাঁর গাড়ির দরজায়। তাতেই পায়ে আঘাত পান তিনি।

    Published by:Sanjukta Sarkar
    First published: