বুধবার ডিজি ও মুখ্য সচিবের সঙ্গে বৈঠক রাজ্যপালের

বুধবার ডিজি ও মুখ্য সচিবের সঙ্গে বৈঠক রাজ্যপালের

অবশেষে মুখ্যসচিব ও ডিজি-র সঙ্গে বৈঠক হতে চলেছে রাজ্যপালের

  • Share this:

SOMRAJ BANERJEE

#কলকাতা: অবশেষে মুখ্যসচিব ও ডিজি-র সঙ্গে বৈঠক হতে চলেছে রাজ্যপালের। বুধবার দুপুর তিনটে নাগাদ ডিজি ও রাজ্যপাল আসবেন রাজভবনে। মঙ্গলবার সন্ধ্যাতেই মুখ্য সচিবের দফতর থেকে জানানো হয় রাজ্যপালের সচিবালয়কে। রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনায় সোমবার মুখ্যসচিব ও ডিজি- কে আসতে বলেন রাজ্যপাল জাগদীপ ধনখর। তারপর থেকে ৪৮ ঘণ্টা কেটে গেলেও রিপোর্ট নিয়ে রাজভবনে আসেননি তাঁরা। তাঁদের এই 'না আসাকে' সোমবার ট্যুইট করে দুর্ভাগ্যজনক বলেও মন্তব্য করেন রাজ্যপাল। মঙ্গলবার অবশ্য ট্যুইট করে জানান, ধৈর্য রাখছেন সরকারি আধিকারিকদের ওপর।

নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন এবং এনআরসি ইস্যুতে রাজ্য রাজ্যপাল সংঘাত চরমে। সিএএ বিরোধিতায় গত শুক্রবার থেকে রাজ্যের নানা প্রান্ত উত্তপ্ত। বারবার শান্তির বার্তা দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। শান্তির বার্তা দিয়েছেন রাজ্যপাল। কিন্তু রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে তিনি যে উদ্বিগ্ন তা বারবারই ট্যুইট করে প্রকাশ করেছেন। রবিবার সন্ধ্যে থেকে ডিজি ও মুখ্যসচিবকে ডাকা নিয়ে চাপানউতোর চলতে থাকে ।

রবিবার বিকেলে সাংবাদিক সম্মেলন করে মুখ্যমন্ত্রীকে বিজ্ঞাপন নিয়ে খোঁচা দেন রাজ্যপাল। তিনি বলেন, এনআরসি নয়, নাগরিকত্ব আইন নয়, এই মরমে কীভাবে নির্বাচিত সরকারের একজন মাথা সরকারি টাকায় বিজ্ঞাপন দিতে পারেন। তিনি এও দাবি করেন, মুখ্যমন্ত্রীর উচিত এ ধরনের বিজ্ঞাপন তুলে নেওয়া। শুধু তাই নয়, রবিবার সন্ধ্যাতেই রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনায় সোমবার সকাল দশটা নাগাদ মুখ্যসচিব ও ডিজিকে ডেকে পাঠান রাজ্যপাল জাগদীপ ধনকার। কিন্তু তাঁরা সোমবার না আসায় ট্যুইট করে তা গ্রহণযোগ্য নয় বলে জানান রাজ্যপাল। যদিও নবান্ন থেকে রাজভবনে বার্তা দেওয়া হয় খুব শীঘ্রই তাঁরা রাজ্যপালের কাছে আসবেন।এদিকে এরই মধ্যে সোমবার বিকেলে মুখ্যমন্ত্রীকে ডেকে পাঠান রাজ্যপাল। ট্যুইট করে তিনি জানান মঙ্গলবার মুখ্যমন্ত্রীকে তাঁর সময়মতো আসতে বলা হয়েছে রাজভবনে। মুখ্য সচিব ও ডিজি না আসায় তিনি মুখ্যমন্ত্রীর কাছ থেকেই রাজ্যের সামগ্রিক আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি এবং তাঁর কোন কোন বিষয় নিয়ে বলার আছে, তা জানতে চান । যদিও রাজ্যপাল নিজের অনুষ্ঠান বাতিল করলেও শেষ পর্যন্ত মঙ্গলবার রাজভবনে আসেননি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। অবশ্য তার নিজের অনুষ্ঠান বাতিল করার কারণ হিসাবে মুখ্যমন্ত্রীর আসার অপেক্ষাকেই তুলে ধরেছেন রাজ্যপাল। ট্যুইটে এমনটাই জানান তিনি।

এদিকে মঙ্গলবার সকাল থেকেই মুখ্যসচিব ও ডিজিকে ডাকা নিয়ে একপ্রকার চাপানউতোর চলে। মঙ্গলবার সকালেই রাজ্যপাল ফের ট্যুইট করে জানান, মুখ্য সচিবের দফতর থেকে জানানো হয়েছে, ডিজি এবং মুখ্যসচিব দুপুর নাগাদ আসবেন। প্রথম দফায় দুপুর ১টা নাগাদ আসবেন বলে বলা হয় রাজভবন কে। কিন্তু তারপরে দিনভর পেরিয়ে গেলেও রাজভবনে আসেননি ডিজি এবং মুখ্য সচিব। তা নিয়ে অবশ্য মঙ্গলবার বিকেলে ট্যুইট করেন রাজ্যপাল। টুইট করে তিনি বলেন, দুপুর ১টা নাগাদ মুখ্যসচিব ও ডিজি আসবেন বলে জানিয়েছিলেন। তারপর তাঁরা ফের সময় বদল করেন। পরবর্তী সময় কখন আসবেন এখনও পর্যন্ত তা জানানো হয়নি। তিনি ধৈর্য রাখছেন। পরে অবশ্য সন্ধেবেলায় মুখ্য সচিবের দফতর থেকে জানানো হল বুধবার দুপুর তিনটে নাগাদ ডিজি এবং মুখ্যসচিব আসবেন। রাজভবন সূত্রের খবর, মুখ্য সচিব ও ডিজি আসার কথা জানার পর তাঁর নিজের অনুষ্ঠানেও বেশ কিছু কাটছাট করছেন রাজ্যপাল। এদিকে মুখ্য সচিব হিসাবে রাজীব সিনহা শপথ নেওয়ার পর বুধবারই তাঁর প্রথম সাক্ষাৎ হতে চলেছে রাজ্যপালের সঙ্গে।

First published: December 17, 2019, 9:40 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर