ট্রমায় সুব্রত, মদনের শ্বাসকষ্ট! তিন নেতার চিকিৎসায় এসএসকেএম-এ মেডিক্যাল বোর্ড

এসএসকেএম হাসপাতালে চিকিৎসাধীন তিন নেতা৷

চিকিৎসক সরোজ মণ্ডল জানিয়েছেন, তিন নেতারই হৃদযন্ত্রে কমবেশি সমস্যা রয়েছে৷

  • Share this:

#কলকাতা: কারও শ্বাসকষ্টের সমস্যা, কেউ ভুগছেন হাইপার টেনশনে৷ নারদা কাণ্ডে ধৃত তিন হেভিওয়েট নেতার চিকিৎসায় তাই মেডিক্যাল বোর্ড গড়ল এসএসকেএম হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ৷ হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ সরোজ মণ্ডলের নেতৃত্বে তিন সদস্যের এই মেডিক্যাল বোর্ড গঠন করা হয়েছে৷

নারদা কাণ্ডে ধৃত মদন মিত্র এবং শোভন চট্টোপাধ্যায় অসুস্থ বোধ করায় সোমবার গভীর রাতেই তাঁদের এসএসকেএম হাসপাতালে এনে ভর্তি করা হয়৷ অন্যদিকে এ দিন সকালে বুকে ব্যথা অনুভব করায় প্রবীণ মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়কেও এসএসকেএম হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়৷ তিন জনেই উডবার্ন ওয়ার্ড চিকিৎসাধীন রয়েছেন৷

তিন হেভিওয়েট নেতার চিকিৎসায় এ দিনই হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ সরোজ মণ্ডলের নেতৃত্বে তিন সদস্যের মেডিক্যাল বোর্ড গঠন করে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ৷ মেডিক্যাল বোর্ডে রয়েছেন হাসপাতালের মেডিসিনের বিভাগীয় প্রধান সৌমিত্র ঘোষ

এবং চেস্ট মেডিসিনের বিভাগীয় প্রধান অমিতাভ সেনগুপ্ত৷ প্রয়োজনে নিউরোলজি এবং ক্রিটিকাল কেয়ার বিশেষজ্ঞদেরও মেডিক্যাল বোর্ডে অন্তর্ভুক্ত করা হবে বলে হাসপাতাল সূত্রে খবর৷

চিকিৎসক সরোজ মণ্ডল জানিয়েছেন, তিন নেতারই হৃদযন্ত্রে কমবেশি সমস্যা রয়েছে৷ তার মধ্যে প্রবীণ সুব্রতবাবুর শারীরিক সমস্যা তুলনামূলক বেশি৷ রাজ্যের পঞ্চায়েতমন্ত্রীর শ্বাসকষ্টের সমস্যা থাকায় তাঁকে নেবুলাইজার দেওয়া হচ্ছে৷ এ ছাড়াও হাইপার টেনশনের সমস্যায় ভুগছেন ৭৬ বছর বয়সি সুব্রতবাবু৷ বেশ কিছু বার্ধক্যজনিত সমস্যাও রয়েছে তাঁর৷ তাছাড়াও সোমবারের গ্রেফতারি এবং দিনভর ধকলের পর কিছুটা ট্রমায় রয়েছেন পঞ্চায়েত মন্ত্রী৷ তাঁকে আশ্বস্ত করতে ক্রমাগত অভয়বাণী দিচ্ছেন চিকিৎসকরা৷

এ ছাড়াও হাসপাতালে বন্দি আর এক নেতা কামারহাটির বিধায়ক মদন মিত্র কয়েকদিন আগেই করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন৷ ফলে কিছুটা হলেও শারীরিক দুর্বলতা রয়েছে তাঁর৷ এ দিন হাসপাতালে নিয়ে আসার পর মদন মিত্রকে অক্সিজেন দিতে হয়৷ তাঁরও হাইপার টেনশনের সমস্যা রয়েছে৷ অন্যদিকে প্রাক্তন মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায়ের উচ্চ ডায়েবেটিস রয়েছে৷ গ্রেফতারির পর সোমবার তিনি কিছু খাননি বলে অভিযোগ করেন শোভনের বান্ধবী বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়৷ হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার পর ইনসুলিন দেওয়া হয় শোভনকে৷ এখনও কিছুটা আচ্ছন্ন ভাব রয়েছে প্রাক্তন মেয়রের৷ তবে মেডিক্যাল বোর্ডের প্রধান সরোজ মণ্ডল জানিয়েছেন, তিন নেতারই ইসিজি, চেস্ট এক্স রে করা হয়েছে৷ তাঁদের ইকো-ও করা হবে৷ এ দিন সন্ধ্যাবেলাও তিন নেতাকে পরীক্ষা করে দেখেন মেডিক্যাল বোর্ডের সদস্যরা৷

অন্যদিকে, প্রেসিডেন্সি জেলে বন্দি আর এক নেতা রাজ্যের পরিবহণ মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিমও জেল হাসপাতালেই চিকিৎসাধীন রয়েছেন৷ এ দিন সকালে তাঁর জ্বর আসে বলে দাবি করেছেন ফিরহাদ হাকিমের আইনজীবী৷ দুপুরে বাড়ি থেকে স্ত্রী খাবার নিয়ে এলেও তাঁর সঙ্গে দেখা হয়নি ফিরহাদের৷ তবে বাড়ির খাবারই খেয়েছেন তিনি৷

Avijit Chanda

Published by:Debamoy Ghosh
First published: