• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • MANORANJAN BAPARI PRESENT IN WEST BENGAL ASSEMBLY FOR THE FIRST TIME SB

Manoranjan Bapari: রিকশা থেকে বিধানসভা, বৃত্ত সম্পূর্ণ মনজয়ী মনোরঞ্জনের! হলেন সতর্কও

অনন্য মনোরঞ্জন

Manoranjan Bapari: ফুটপাতের রিকশাওয়ালা থেকে বিধানসভার ফ্লোর, রূপকথার গল্প তৈরি করলেন বিধায়ক মনোরঞ্জন ব্যাপারী। লিখলেন, 'এসে গেছি বিধানসভায়। বসে আছি লাস্ট বেঞ্চে। জীবনে প্রথমবার এখানে প্রবেশ পেয়েছি। অনেক কিছু শিখতে আর জানতে হবে। তারপর বলতে হবে।'

  • Share this:

    #কলকাতা: বাস্তবেই তিনি একজন ব্যতিক্রমী বিধায়ক। জীবনের একটা পর্বে রিকশা চালিয়ে পেট চালিয়েছেন। সেই মানুষটাই পরবর্তীতে লেখক হয়ে নাম কুড়িয়েছেন দেশজোড়। আর সেই তিনিই এখন রাজ্যের শাসক দলের বিধায়ক। ক্ষমতা এসেছে হাতে, কিন্তু তবুও তাঁর পা এখনও রয়েছে মাটিতেই। বিধায়ক হিসেবে দায়িত্বভার বুঝে নেওয়ার পর থেকেই ছুটে বেড়াচ্ছেন মানুষের পাশে দাঁড়াতে। মানুষের জন্য সব কাজ করতে না পারার আক্ষেপ থেকে লিখে ফেলেছেন, 'সত্যিই আমার খুব কষ্ট হচ্ছে। মনে হচ্ছে রাজনীতিতে এসে আমি বোধহয় ঠিক করিনি। যখন দূরে ছিলাম, যখন তেমন ভাবে কিছু জানতাম না, খানিক সুখে ছিলাম।' সেই মনোরঞ্জন ব্যাপারী এদিন পা রাখলেন বিধানসভার অলিন্দে। রিকশা থেকে বিধানসভা-বৃত্ত সম্পূর্ণ করলেন মনোরঞ্জন।

    ফুটপাতের রিকশাওয়ালা থেকে বিধানসভার ফ্লোর, রূপকথার গল্প তৈরি করলেন বিধায়ক মনোরঞ্জন ব্যাপারী। লিখলেন, 'এসে গেছি বিধানসভায়। বসে আছি লাস্ট বেঞ্চে। জীবনে প্রথমবার এখানে প্রবেশ পেয়েছি। অনেক কিছু শিখতে আর জানতে হবে। তারপর বলতে হবে।' তার এই পোস্টে যে 'বিতর্কিত' পোস্টের ঝলক রয়েছে, তা অনুমান করা কঠিন নয়। ইতিমধ্যেই নেটিজেনরাও এই বিধায়ককে নিয়ে আল্পুত। নিজের রাজনৈতিক কেরিয়ার শুরুর দিন থেকেই দলমত নির্বিশেষে বলাগড়ের বাসিন্দাদের জন্য যে তিনি কাজ করবেন, তা স্পষ্ট করে দিয়েছেন তিনি।

    বিধায়ক হওয়ার পর মানুষের প্রত্যাশার চাপেই তিনি উপলব্ধি করছেন, রাজনীতিতে এসে তিনি ভুল করেছেন৷ যদিও সেই বার্তা নিয়ে শোরগোল পড়েছে নেটমাধ্যমে। খবর পৌঁছেছে তৃণমূল শীর্ষ নেতৃত্বের কাছেও। তৃণমূল মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেন, 'মনোরঞ্জন ব্যাপারীকে নিয়ে তেমন কিছু জানি না৷ পোস্ট সব সময় ঠিক হয়নি৷ তিনি হাঁপালেন কেন? দেখলাম অক্সিজেন নিয়ে ঘুরছেন।'

    ইতিমধ্যেই নেটিজেনরা এই বিধায়ককে নিয়ে আল্পুত। একদিন মনোরঞ্জনের রিকশায় সওয়ার হয়েছিলেন সাহিত্যিক মহাশ্বেতা দেবী। মনোরঞ্জনের কাছে তিনিই জানতে চেয়েছিলেন জিজীবিষা শব্দের অর্থ। সেই জানতে চাওয়াই বদলে দেয় এক রিকশাওয়ালার জীবন। তাঁর জীবনে এসেছে জেল-পর্বও। কিন্তু সেই জীবনকে পিছনে ফেলে উঠে এসেছে এক 'দলিত লেখক'। 'অন্য ভুবন', 'জিজীবিষার গল্প'র মতো নানান বইতে উঠে এসেছে মনোরঞ্জন ব্যাপারীর সেই অতীত জীবন।

    রিকশাচালক থেকে সাহিত্যিক হয়ে ওঠা সেই মনোরঞ্জন ব্যাপারীকেই এবার বলাগড় থেকে বিধানসভার প্রার্থী করেছিলেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। প্রচার পর্বেও তাঁর আলাদা করে তিনি সকলের নজরেও পড়েছিলেন। ভোটের বাক্সেও তার প্রতিফলন ঘটে যায়। অভাবনীয় ভাবে বলাগড় আসন থেকে জয় ছিনিয়ে আনেন মনোরঞ্জন। আর আর বিধানসভায় পা রেখে সেই এক বৃত্ত সম্পূর্ণ করলেন তিনি।

    Published by:Suman Biswas
    First published: