জ্যান্ত সাপ নিয়ে ঘুরছেন যুবক, নিরাপত্তা নিয়ে চিন্তায় পরিবেশ কর্মীরা

জ্যান্ত সাপ নিয়ে ঘুরছেন যুবক, নিরাপত্তা নিয়ে চিন্তায় পরিবেশ কর্মীরা

যুবকের দাবি সাপটিকে বাঁচাতেই তাঁর এই উদ্যোগ। একটু সুস্থ হলেই ছেড়ে দেবেন নিরাপদ স্থানে।

  • Share this:

#কলকাতা: প্লাস্টিকের কৌটোতে জ্যান্ত সাপ নিয়ে ঘুরছেন এক যুবক। পোকামাকড় খুজে খেতেও দিচ্ছেন সময় মতো। দিচ্ছেন খাওয়ার জলও। যুবকের দাবি সাপটিকে বাঁচাতেই তাঁর এই উদ্যোগ। একটু সুস্থ হলেই ছেড়ে দেবেন নিরাপদ স্থানে। সোমবার পার্ক সার্কাস এলাকার চার নম্বর ব্রিজের কাছে দেখা যায় শেখ শাখর আলম নামে একজন যুবক প্লাস্টিকের কৌটো করে একটি জ্যান্ত সাপ নিয়ে ঘুরে বেরাচ্ছেন। জ্যান্ত সাপ দেখে আতঙ্কিত পথ চলতি মানুষ। শাখর আলম জানান, 'কাউকে ভয় দেখানো তাঁর উদ্দেশ্য নয়'। দিন তিনেক আগে স্থানীয় এক দোকানে সাপটি দেখা যায়। অনেকেই সাপটিকে মারতে চেয়েছিল। আহত সেই সাপটিকে সেখান থেকেই উদ্ধার করেন তিনি। আহত অবস্থায় সাপটিকে ছেড়ে দিলেও সমস্যা হতে পারে। তাই কিছুটা সুস্থ করেই নিরাপদ স্থানে সাপটিকে ছেড়ে দেওয়া হবে'। এই ভাবে সাপ রাখাটাও নিরাপদ নয় বলেই মনে করেন সর্প বিশেষজ্ঞরা। পশ্চিমবঙ্গ বিজ্ঞান মঞ্চের সদস্য দেবাশীষ রায় জানান, 'এটা সাপ এবং তাঁর দুজনের ক্ষেত্রেই খুবই বিপজ্জনক। বিশেষ করে সাপ না চিনলে ও যথাযথ প্রশিক্ষণ না থাকলে সাপ ধরাটা ভয়ানক হতে পারে। কারণ এক একটা সাপের এক এক রকম চরিত্র। তাছাড়া আইনগত সমস্যার মধ্যেও তিনি পড়তে পারেন।' বিজ্ঞান মঞ্চের এক নেতা সৌরভ চক্রবর্ত্তী বলেন, 'এই উদ্যোগ অবশ্যই সাধুবাদ পাওয়ার যোগ্য। কিন্তু প্রশিক্ষণ না থাকলে বন দফতরকে জানানো উচিত। নাহলে আইনি গেরোতেও ফেঁসে যাওয়ার ঝুঁকি রয়েছে। তাছাড়া মাস কয়েক আগেই একজন সাপ বিশেষজ্ঞের মৃত্যু হয়েছে সাপের কামড়ে। সেখান থেকে সবার শিক্ষা নেওয়া উচিত।'

পেশায় গাড়ি চালক শেখ শাখর আলম থাকেন পার্ক সার্কাস স্টেশনের কাছে। তাঁর দাবি ছোটবেলা থেকেই পশু পাখির প্রতি আকর্ষণ রয়েছে। অনেক বিপন্ন প্রাণীও তিনি উদ্ধার করেছেন। বাড়িতে একটি চন্দনা পাখি রয়েছে। সেটাকেও উদ্ধার করেছিলেন তিনি। কিন্তু এই 'নেশা' তাঁকে বিপদেও ফেলতে পারে বলে মনে করেন পরিবেশ বিশেষজ্ঞরা।

UJJAL ROY

First published: January 27, 2020, 11:44 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर