১৯-এ চাই বিয়াল্লিশে বিয়াল্লিশ, বিজেপিকে ১টি আসনও নয়, কোর কমিটির বৈঠকে বার্তা তৃণমূলনেত্রীর

১৯-এ চাই বিয়াল্লিশে বিয়াল্লিশ, বিজেপিকে ১টি আসনও নয়, কোর কমিটির বৈঠকে বার্তা তৃণমূলনেত্রীর

  • Share this:

    #কলকাতা: পুজোর মুখে ভোটপুজোর ঢাক বাজিয়ে দিলেন তৃণমূলনেত্রী। তৃণমূলের কোর কমিটির বৈঠকে তাঁর বার্তা, বিজেপি যেন বাংলা থেকে একটি আসনও না পায়। ব্রিগেডের সমাবেশকে মোদি বিরোধী জোটের মঞ্চে পরিণত করতে মরিয়া মমতা। তাঁর ব্রিগেড সমাবেশে অচ্ছুৎ নয় সিপিএমের মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়নও।

    আরও পড়ুন: ২৮ হাজার ক্লাবকে পুজোর অনুদানে অন্তর্বর্তী স্থগিতাদেশ হাইকোর্টের

    উনিশে চাই বিয়াল্লিশে বিয়াল্লিশ। দলের কোর কমিটির বৈঠকে আরেকবার টার্গেট মনে করিয়ে দিলেন তৃণমূলনেত্রী।

    শুক্রবার উত্তরবঙ্গ থেকে ফিরেই দলের কোর কমিটির সঙ্গে বৈঠকে বসেন তৃণমূলনেত্রী। সেখানেই ১৯ জানুয়ারি ব্রিগেডে সমাবেশের প্রস্তুতি ও উনিশের রণকৌশল নিয়ে বার্তা দেন মমতা বন্দ‍্যোপাধ‍্যায়। নিশানা করেন গেরুয়া শিবিরকে।

    আরও পড়ুন: টাকার সর্বকালীন রেকর্ড পতন, মুদ্রাস্ফীতি নিয়ন্ত্রণে রেপো রেট অপরিবর্তিত রাখল রিজার্ভ ব্যাঙ্ক

    এদিন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, ‘‘ পুজোয় শান্তিতে কাটাতে সবাইকে নজর রাখতে হবে...দিল্লি চক্রান্ত করে দাঙ্গা হাঙ্গামার আগুন লাগাতে পারে, সতর্ক করা হয়েছে...অখিলেশের আমলে উত্তরপ্রদেশে রোজ দাঙ্গা বাঁধাত। দাঙ্গা লাগানো ওদের কালচার...টাকার কালচার। মানুষ জবাব দেবে ৷ ’’

    টাকার দাম হুহু করে পড়ছে। জ্বালানির দামও লাফিয়ে বাড়ছে। বিজেপি বিরোধীদের দাবি, মানুষের ক্ষোভ সামলাতে পেট্রোল-ডিজেলে আড়াই টাকার মলম লাগিয়েছে মোদি সরকার। এ নিয়ে এ দিন ফের সরব হন তৃণমূলনেত্রী। রাহুল গান্ধি যেভাবে মোদি সরকারকে আক্রমণ করেছেন, তাকেও সমর্থন করেন।

    আরও পড়ুন: ছাত্রীর শ্লীলতাহানিতে অভিযুক্ত স্কুলেরই হেডক্লার্ক, চলল ক্ষিপ্ত অভিভাবকদের গণধোলাই

    উনিশে বিজেপি ফিনিশ। এই স্লোগান তুলেই ২০১৯ সালের উনিশে জানুয়ারি ব্রিগেডের সভাকে মোদি বিরোধীদের মঞ্চে পরিণত করতে চান মমতা বন্দ‍্যোপাধ‍্যায়। রামকে রুখতে বামেদেরও আমন্ত্রণ। মমতার ব্রিগেড সমাবেশ ব্রাত‍্য নন কেরলের সিপিএম মুখ্যমন্ত্রীও। ডাক পেয়েছে সিপিআই, ফরওয়ার্ড ব্লক, আরএসপি।

    পুজোর ঢাক বাজছে। দলের কোর কমিটির বৈঠকে ২০১৯ সালের ভোটপুজোর ঢাকও বাজিয়ে দিলেন তৃণমূলনেত্রী। লক্ষ‍্য একটাই, মোদি সরকারকে ক্ষমতাচ‍্যুত করা।

    First published:

    লেটেস্ট খবর