হোম /খবর /কলকাতা /
বাংলায় কবে থেকে চলবে লোকাল ট্রেন? বড় ঘোষণা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের

Mamata on Local Train: বাংলায় কবে থেকে চলবে লোকাল ট্রেন? বড় ঘোষণা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের

এখনই নয় লোকাল ট্রেন

এখনই নয় লোকাল ট্রেন

Mamata on Local Train: মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এদিন আরও বলেন, 'শহরতলিতে ৫০% ভ্যাকসিনেশন হলে লোকাল ট্রেন চালুর ভাবনা। প্রতিদিন ৩ থেকে ৪ লক্ষ ভ্যাকসিনেশন করা হচ্ছে।'

  • Last Updated :
  • Share this:

#কলকাতা: লোকাল ট্রেন কবে চলবে? লোকাল ট্রেনের দাবিতে একাধিক জায়গায় রেল অবরোধ হলেও এখনও অনড় অবস্থানেই রইলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বুধবারও দফায় দফায় বিক্ষোভে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছিল দত্তপুকুর স্টেশন। শিয়ালদহ-বনগাঁ শাখায় দীর্ঘক্ষণ ব্যাহত হয় ট্রেন চলাচল। এই পরিস্থিতিতে বৃহস্পতিবার নবান্নে মুখ্যমন্ত্রী স্পষ্ট করে দিলেন, এখনই চালু হচ্ছে না লোকাল ট্রেন। এদিন নবান্নে সাংবাদিক বৈঠক থেকে মমতা বলেন, 'অনেকেই আমাকে লোকাল ট্রেনের কথা বলছেন। কিন্তু আমি বলছি, গ্রামে এখনও ভ্যাকসিনেশন কমপ্লিট হয়নি। আমরা অনেক কম ভ্যাকসিন পাচ্ছি। তাছাড়া সেপ্টেম্বরে যেহেতু থার্ড ওয়েব আসছে বলে বলছেন বিশেষজ্ঞরা, সেই অনুযায়ী ভ্যাকসিনেশন বাড়ানো হবে।' এরপরই মমতার সংযোজন, 'লোকাল ট্রেন চলছে না বলে অনেকের সমস্যা হচ্ছে জানি। কিন্তু আপনার জীবনের থেকে দামি নয় কিছু। লোকাল ট্রেন নিয়ে আরও কিছুদিন অপেক্ষা করতে হবে। আরও ১৫ দিন বিধিনিষেধ থাকবে।'

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এদিন আরও বলেন, 'শহরতলিতে ৫০% ভ্যাকসিনেশন হলে লোকাল ট্রেন চালুর ভাবনা। প্রতিদিন ৩ থেকে ৪ লক্ষ ভ্যাকসিনেশন করা হচ্ছে।' এর আগেও মমতা বলেছিলেন, 'এখন ট্রেন চালালে করোনা আরও ছড়িয়ে পড়তে পারে।' তবে লোকাল ট্রেন আরও কতদিন বন্ধ থাকবে সে ব্যাপারে কিছু বলেননি মমতা।

লোকাল ট্রেনের দাবিতে বেশ কয়েকদিন ধরেই বিভিন্ন স্টেশনে বিক্ষোভ দেখিয়েছেন যাত্রীরা। লোকাল ট্রেন চালুর দাবিতে বিক্ষোভে উত্তাল হয় একাধিক রেল স্টেশন। বিক্ষোভ ওঠাতে গেলে পুলিশকে তাড়াও করেন বিক্ষোভকারীরা। ভাঙচুর করা হয় পুলিশের গাড়িও। সংবাদমাধ্যমের কর্মীদেরও উপর চড়াও হওয়ার অভিযোগ উঠেছে বিক্ষোভকারীদের বিরুদ্ধে। এদিন মমতা আরও বলেন, 'ট্রেন বন্ধ থাকলেও পণ্য পরিবহণে সে ভাবে সমস্যা হচ্ছে না। কারণ, সব্জি-সহ অন্যান্য নিত্য প্রয়োজনীয় সামগ্রী সড়ক পথে পরিবহণে ছাড় দেওয়া রয়েছে।' তাছাড়া, মেট্রো, বাস, অটো, টোটো সমস্ত পরিষেবাই চালু করে দেওয়া হয়েছে বলে জানান মুখ্যমন্ত্রী।

প্রসঙ্গত, করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের মোকাবিলায় গত ৬ মে থেকে লোকাল ট্রেন চলাচল বন্ধ হয়। সে দিন থেকেই কার্যত লকডাউন পরিস্থিতি চালু হয় রাজ্যে। পরে কিছু কিছু ক্ষেত্রে ছাড় মিললেও এখনও রাজ্যে বিধিনিষেধ চলছে। তবে, তাতে অনেক ক্ষেত্রে ছাড়ও দেওয়া হয়েছে।

Published by:Suman Biswas
First published: