• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • MAMATA BANERJEE WRITES TO PM NARENDRA MODI ON ELECTRICITY AMENDMENT BILL SANJ

Mamata Banerjee : 'লিখেছিলাম গতবছরও', বিদ্যুৎ আইন সংশোধনের বিরোধিতায় ফের মোদিকে চিঠি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের...

ফের চিঠি মমতার

Mamata Banerjee : বহু গ্রাহক টাকার অভাবে ঠিক সময়ে বিল মেটাতে পারবেন না বলে আশঙ্কা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

  • Share this:

#কলকাতা : কেন্দ্রীয় সরকারের প্রস্তাবিত বিদ্যুৎ সংশোধনী বিলের(Electricity Amendment Bill) বিরোধিতা করে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়(Mamata Banerjee) আজ পুনরায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে(PM Narendra Modi) চিঠি পাঠিয়েছেন। এর আগে গতবছর বিরোধীদের আপত্তিতে কেন্দ্রীয় সরকার ওই বিল পেশ করা থেকে বিরত থাকলেও এবার পুনরায় তার তোড়জোড় শুরু হয়েছে বলে মুখ্যমন্ত্রী (Mamata Banerjee) চিঠিতে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। ওই বিলকে জনস্বার্থ বিরোধী বলে তিনি দাবি করেন।

সংবিধানে বিদ্যুৎ(Electricity) একটি যৌথ তালিকাভুক্ত বিষয় সেকথা মনে করিয়ে দিয়ে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, এই বিল পাশের ফলে বিদ্যুৎ ক্ষেত্রে রাজ্যের নিয়ন্ত্রণ থাকবে না। যা দেশের যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামোর জন্য ক্ষতিকর। চিঠিতে প্রধানমন্ত্রীকে মমতা মনে করিয়ে দিয়েছেন, ‘২০২০ সালের ১২ জুন চিঠি লিখে আমি ওই বিতর্কিত বিলে খামতির দিকগুলি আপনার কাছে তুলে ধরেছিলাম’।

প্রসঙ্গত, নয়া বিদ্যুৎ আইনের খসড়ার বলা হয়েছে, বিদ্যুতের বিলের পুরো টাকা প্রথমে গ্রাহকদের দিতে হবে। পরে ভর্তুকির টাকা তাঁরা ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে ফেরত পেয়ে যাবেন। কিন্তু ফলে বহু গ্রাহক টাকার অভাবে ঠিক সময়ে বিল মেটাতে পারবেন না বলে আশঙ্কা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। সে ক্ষেত্রে গ্রামের গরিবদের অনেকেরই বিদ্যুৎ সংযোগ কাটা পড়বে বলেও উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন মমতা।

প্রস্তাবিত নয়া বিদ্যুৎ আইন দেশের যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামোয় আঘাত হানতে পারে বলেও অভিযোগ মুখ্যমন্ত্রীর। নরেন্দ্র মোদি সরকারের প্রস্তাব, বিদ্যুৎ পরিবহণ, সংবহণ বা ক্রয়-বিক্রয় সংক্রান্ত আইনি বিবাদ নিষ্পত্তির জন্য একটি পৃথক সংস্থা গঠন করা হবে। কিন্তু সে ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট বিষয়গুলির দায়িত্বপ্রাপ্ত বিভিন্ন রাজ্যের বিদ্যুৎ বণ্টন সংস্থাগুলির অধিকার খর্ব হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। প্রসঙ্গত, নয়া আইন চালু হলে বিদ্যুৎ মাসুল বাড়বে বলেও এর আগেই প্রকাশ্যে অভিযোগ জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।

Published by:Sanjukta Sarkar
First published: