• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • Mamata Banerjee on Bhabanipur By Election: আমেজ বদলাচ্ছে ভবানীপুর, মঙ্গলে ময়দানে 'প্রধান মুখ'! পাল্টা ঘরে-ঘরে দুই সেনাপতি

Mamata Banerjee on Bhabanipur By Election: আমেজ বদলাচ্ছে ভবানীপুর, মঙ্গলে ময়দানে 'প্রধান মুখ'! পাল্টা ঘরে-ঘরে দুই সেনাপতি

ভবানীপুরে জমজমাট লড়াই

ভবানীপুরে জমজমাট লড়াই

Mamata Banerjee on Bhabanipur By Election: ২১ এর ভবানীপুরে, ২১ থেকেই প্রচার করবেন মমতা বন্দোপাধ্যায়। একুশের ভবানীপুরে মঙ্গল থেকে পুরোদমে প্রচারে মমতা বন্দোপাধ্যায়। পাল্টা শুভেন্দু অধিকারী ও অর্জুন সিং।

  • Share this:

#কলকাতা: ২১ এর ভোটে ২১ তারিখ থেকেই প্রচারে থাকবেন মমতা বন্দোপাধ্যায় (Mamata Banerjee on Bhabanipur By Election)। ভবানীপুর বিধানসভার উপনির্বাচনের (Bhabanipur By Election) বাকি ১০ দিন। আগামী ৭ দিন মিলবে প্রচারের সুযোগ। আর এই এক সপ্তাহ জুড়েই প্রচারে ঝড় তুলতে চায় তৃণমূল কংগ্রেস (TMC)। জনসংযোগের জন্যে আগামী কাল থেকে ২৬ তারিখ অবধি ছোট ছোট সভায় হাজির থাকার কথা মমতা বন্দোপাধ্যায়ের (Mamata Banerjee on Bhabanipur By Election)। ভবানীপুরে প্রচার সারবেন অভিষেক বন্দোপাধ্যায়ও (Abhishek Banerjee)। এছাড়া ঘরে ঘরে যাবেন ফিরহাদ, পার্থ, সুব্রত সহ অনেকেই৷

আসল লক্ষ্য মার্জিন বাড়ানো। ২০২৪ এর আগে ভবানীপুর যা মিনি ইন্ডিয়া তার সামনে দলের অবস্থান স্পষ্ট করা। আগামী কাল, ২১ তারিখ মমতা বন্দোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) প্রচারে থাকবেন একবালপুরের ইব্রাহিম রোডে। আগামী ২২ তারিখ তিনি প্রচার করবেন চেতলার অহীন্দ্র মঞ্চে, ২৩ তারিখ প্রচার করবেন চক্রবেড়িয়া নর্থ ও পদ্মপুকুর রোডের সংযোগস্থলে, ২৫ তারিখ তিনি সভা করবেন কলিন লেন ও শেক্সপিয়ার সরণি থানার সামনে। ২৬ তারিখ তিনি প্রচার শেষ করবেন নিজের পাড়ায় হরিশ মুখার্জি রোডে।

আরও পড়ুন: মাঝরাতে বাড়ির অন্দরেও 'খেলা হবে'! সায়নী ঘোষের এই ভিডিও আপনার মন জিতে নিতে বাধ্য...

তৃণমূল সূত্রে জানা গিয়েছে কোভিড পরিস্থিতিতে মিছিল বা রোড শো করা যাবে না। তাই ছোট ছোট সভা থেকেই জনসংযোগ সেরে নেবেন মমতা বন্দোপাধ্যায়। প্রচারে থাকছেন অভিষেক বন্দোপাধ্যায়ও। সূত্রের খবর, ত্রিপুরায় রাজনৈতিক কর্মসূচী ও মূর্শিদাবাদের প্রচার সেরে অভিষেক হাজির থাকবেন ভবানীপুরে। সপ্তাহের শেষ লগ্নে তিনিও হাজির থাকবেন প্রচারে৷ এছাড়া বাকি নেতা যাদের দায়িত্ব দেওয়া আছে, তারাও প্রচার করবেন বাড়ি, বাড়ি গিয়ে। বাড়তি দায়িত্ব নিয়ে ফিরহাদ হাকিম (Firhad Hakim) সব ওয়ার্ডের সাথে কো-অর্ডিনেট করবেন। শেষ লগ্নের প্রচারে ডোর টু ডোর করতে চান বিজেপির জোড়া ফলা শুভেন্দু অধিকারী ও অর্জুন সিং। বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিং জানিয়েছেন, "মমতা বন্দোপাধ্যায় ও অভিষেক বন্দোপাধ্যায় এভাবে প্রচারে নামছেন মানে ওরা জয়ের ব্যাপারে অতটা নিশ্চিন্ত নন। মুখ্যমন্ত্রী যেখানে প্রার্থী, সেখানে তো সাইলেন্ট ভোট হবে। মানুষ চুপচাপ ভোট দেবে। ভবানীপুরের মানুষ দেখছেন কিছুদিন আগে উনি একবার চলে গেলেন নন্দীগ্রামে। আবার বাধ্য হয়ে ফিরে আসলেন ভবানীপুরে। এর জন্যে আবার তাদের ভোট দিতে হচ্ছে। আর যদি লক্ষ্মীর ভান্ডার, স্বাস্থ্য সাথী এতই করে থাকেন তাহলে এত মন্ত্রী প্রচারে নামছেন কেন?" তৃণমূল অবশ্য কটাক্ষ করতে ছাড়েনি। তৃণমূল নেতা কুণাল ঘোষ জানিয়েছেন, "ভবানীপুরে ওরা যত প্রচার করবেন তত আমাদের সুবিধা। মানুষ ওদের দেখে আবার বলবে গদ্দার। ওদের মুখ মানুষ যত দেখবে তত আমাদের ভোট বাড়বে।" উপনির্বাচন হলেও শেষ বেলায় জমে উঠেছে প্রচার 'মিনি ইন্ডিয়া' ভবানীপুর জুড়ে।

Published by:Suman Biswas
First published: