• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • Mamata Banerjee trains Saayoni Ghosh|এবার সায়নীর ক্লাস নিলেন সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়! যে টিপস দিলেন...

Mamata Banerjee trains Saayoni Ghosh|এবার সায়নীর ক্লাস নিলেন সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়! যে টিপস দিলেন...

তৃণমূল নেত্রীর কাছাকাছি সায়নী ঘোষ।

তৃণমূল নেত্রীর কাছাকাছি সায়নী ঘোষ।

Mamata Banerjee trains Saayoni Ghosh| নিজেও যুব সংগঠন থেকেই রাজনীতিতে অভিযান শুরু করেছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই জায়গা থেকেই সায়নীকে উপদেশ দিলেন নেত্রী মমতা।

  • Share this:

#কলকাতা: তৃণমূল ভবনে দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের থেকে রাজনীতির পাঠ নিলেন পশ্চিবঙ্গ তৃণমূল যুব কংগ্রেসের সভানেত্রী সায়নী ঘোষ। তৃণমূল নেত্রীর কথায় উঠে এল তৃণমূল যুব কংগ্রেসের সংগঠন পোক্ত হাতে ধরার উপদেশ। নিজেও যুব সংগঠন থেকেই রাজনীতিতে অভিযান শুরু করেছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই জায়গা থেকেই সায়নীকে উপদেশ দিলেন, সংগঠনের সকলকে নিয়ে এক সঙ্গে উন্নয়নের পথে এগিয়ে চলার।

চলচ্চিত্র জগৎ হোক বা প্রেসিডেন্সি, যাদবপুরের মতো বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের নতুন প্রজন্মের যে ছেলেমেয়েরা রাজনীতির ক্ষেত্রে সক্রিয়. তাঁদের সঙ্গে নিয়ে কাজ করার উপদেশ মুখ্যমন্ত্রী  দিয়েছেন তৃণমূল যুব কংগ্রেসের সভানেত্রী সায়নী ঘোষকে। বিশেষ কোনও আদেশ রয়েছে কিনা সেই বিষয়ে বিশদে মুখ্যমন্ত্রীকে জিজ্ঞাসা করেছিলেন সায়নী। তিনি জানিয়েছেন, এই দুঃসময়ে সর্বপ্রথম প্রয়োজনীয় হলো তৃণমূল যুব কংগ্রেসের মানুষের স্বার্থে মানুষের পাশে গিয়ে দাঁড়ানো। তিনি সায়নীকে এই উপদেশও দিয়েছেন যে দলীয় কোনোও ব্যক্তির নিজস্ব কার্যকলাপে যাতে তৃণমূলের ভাবমূর্তি নষ্ট না করতে পারে সে বিষয়ে বিশেষ নজর দিতে।

মুখ্যমন্ত্রী  তাঁর উপদেশের মধ্যে দিয়ে তৃণমূল যুব কংগ্রেসের সভানেত্রীকে বুঝিয়েছেন যে ঐক্যবদ্ধ ভাবে আরও বেশি করে উন্নয়নের পথে এগিয়ে যাওয়াই তৃণমূলের অন্যতম লক্ষ্য।  সায়নী ঘোষও  মুখ্যমন্ত্রীর দেখানো পথেই উন্নয়নের লক্ষ্যে এগিয়ে যাবেন বলেই জানাচ্ছেন।

এর আগে সায়নীকে যুব সংগঠন চালানোর দায়িত্ব বুঝিয়ে দিয়েছেন তৃণমূল কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। ২০২৪ লোকসভা ভোটের আগে দলের সংগঠনকে আরও শক্তিশালী করে তুলতে যুবদের দায়িত্ব দিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই লক্ষ্যে সংগঠনে সায়নী অত্যন্ত শক্তিশালী ভূমিকা পালন করবে বলে মত রাজনৈতিক মহলের। সায়নীকে দলের তরফে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে, প্রতিদিন তৃণমূল ভবনে এসে বসার। সেখান থেকেই প্রতিদিন যুবনেতাদের সঙ্গে যোগাযোগ রাখার। সায়নী জানিয়েছেন, শীঘ্রই যুব সংগঠনের প্রতিনিধিদের নিয়ে বৈঠক করবেন তিনি। জেলাওয়ারি সংগঠনের প্রতিনিধিদের নিয়ে আলাদা করে বসতে চান। এরপর তিনি যাবেন জেলা সফরে।

প্রসঙ্গত, তৃণমূল কংগ্রেস বিপুল সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে ক্ষমতায় এলেও ভোটে হেরে গিয়েছেন শাসক দলের  বেশ কিছু তারকা মুখ। তাদের মধ্যে অন্যতম হলেন সায়নী। আসানসোল দক্ষিণ কেন্দ্র থেকে বিজেপির তারকা প্রার্থী  অগ্নিমিত্রা পালের কাছে হেরে যাওয়া সত্ত্বেও সেই সায়নীকেই দলের যুব সংগঠনের সভাপতি পদে বসিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। হতাশা পুষে না রেখে সায়নীও জানিয়েছেন, মাঠে নেমেই লড়াই করতে হবে। ভোটের ঠিক আগে সায়নীর জোড়া ফুল শিবিরে যোগদান অবাক করেছিল অনেককেই। টলি পাড়ার অভিনেতা-অভিনেত্রীদের অনেকেই এবার ভোট রাজনীতিতে পরখ করার সুযোগ পেয়েছেন। অনেকে অবশ্য টিকিট পেয়েছিলেন। ভোটে হেরে গিয়েছেন তৃণমূল-বিজেপির একাধিক তারকা মুখ। দলের একাংশের  মতে, সায়নীর ভোট প্রচার স্টাইল, মানুষের সাথে মিশে যাওয়ার প্রবণতা খুশি করেছিল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। তাই সায়নীর  মতো দাপুটে মেয়েকে নিয়ে দলের যুব সংগঠনের কাজ চালানো সম্ভব বলেই মনে করছেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

Published by:Arka Deb
First published: