• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • নজরে হুগলি, আজ পুরশুড়ায় মুখ্যমন্ত্রীর সভা

নজরে হুগলি, আজ পুরশুড়ায় মুখ্যমন্ত্রীর সভা

ফের দুয়ারে সরকার

ফের দুয়ারে সরকার

রাজনৈতিক লড়াইয়ের কি বার্তা দেন নজর সেদিকেই

  • Share this:

#হুগলি: এবার নজরে জেলা হুগলি। বিধানসভা ভোটের আগে তাই হুগলি জেলায় রাজনৈতিক সমাবেশ শুরু করে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়। আজ হুগলি জেলার আরামবাগের কাছে পুরশুড়ার সেকেন্দারপুর বাস স্ট্যান্ড সংলগ্ন ময়দানে সভা করবেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়। জেলার চার সাব-ডিভিশনের ১৮ বিধানসভা কেন্দ্র টার্গেট করেছে তৃণমূল। লোকসভা ভোটের ফলের বিচারে জেলার দুই আসন ছিনিয়ে নিয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস। একটি আসন গিয়েছে বিজেপির দখলে। শ্রীরামপুর লোকসভা ভোটে জয় ছিনিয়ে আনেন কল্যাণ বন্দোপাধ্যায়। আরামবাগ লোকসভা আসনে জয় ছিনিয়ে আনেন অপরুপা পোদ্দার। হুগলি লোকসভা আসনে জয় ছিনিয়ে আনেন বিজেপি নেত্রী লকেট চ্যাটার্জি।

কিছুদিন আগেই হুগলি জেলায় রাজনৈতিক কর্মসূচী পালন করেছেন বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারী। মিছিল করেছেন, সভা করেছেন। আর সেখান থেকে তোপ দেগেছেন তার সদ্য ছেড়ে আসা দল'কে। ফলে মমতা বন্দোপাধ্যায় তার এই সভা থেকে পাল্টা আক্রমণ শানাবেন বলেই মত রাজনৈতিক মহলের।২০১৬ বিধানসভা ভোটে এই জেলায় ভালো ফল করে তৃণমূল কংগ্রেস। এই জেলার সিঙ্গুর জমি আন্দোলনের ক্ষেত্র যা ২০০৯ লোকসভা, ২০১১ ও ২০১৬ বিধানসভা ভোটে রাজ্যের শাসক দলকে ভালো ফল দিয়েছিল। সেই বিধানসভা আসনে ২০১৯ সালে খারাপ ফল হয় তৃণমূলের। এছাড়া একাধিক আসনে ব্যবধান কমা বা পিছিয়ে পড়ার ফল রয়েছে।

এরই মধ্যে জেলা তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব বারবার বিপাকে ফেলেছে শাসক দলকে। দলের তরফ থেকে জেলার নেতা-বিধায়ক-সাংসদদের ডেকে আলোচনা করলেও সমস্যা জিইয়ে আছে। বিশেষ করে মাষ্টারমশাই রবীন্দ্রনাথ ভট্টাচার্য সাথে বেচারাম মান্না, দিলীপ যাদবের সাথে অপরুপা পোদ্দার। বেশ কিছুদিন ধরে বেসুরো গাইছেন উত্তরপাড়ার বিধায়ক প্রবীর ঘোষাল। বেশ কিছু গ্রামীণ এলাকায় অনেকেই দল বদল করে বিজেপি'তে যোগ দিয়েছেন। এই অবস্থায় বিধানসভা ভোটের আগে একদিকে দলকে বার্তা, অন্যদিকে জেলার মানুষের কাছে তিনি বার্তা দিতে চলেছেন। রাজনৈতিক মহলের মতে প্রধান চ্যালেঞ্জ হল গোষ্ঠী দ্বন্দ্ব মিটিয়ে দলের সবাইকে লড়াইয়ের ময়দানে নামানো।

Published by:Ananya Chakraborty
First published: