Home /News /kolkata /
Mamata Banerjee: স্কুলের পোশাকে কেন সরকারের লোগো থাকবে না? বিশ্ববাংলার লোগো বিতর্ক নিয়ে মন্তব্য মুখ্যমন্ত্রীর

Mamata Banerjee: স্কুলের পোশাকে কেন সরকারের লোগো থাকবে না? বিশ্ববাংলার লোগো বিতর্ক নিয়ে মন্তব্য মুখ্যমন্ত্রীর

নেতাজি ইন্ডোরে মমতা বন্দ্য়োপাধ্য়ায়। নিজস্ব চিত্র

নেতাজি ইন্ডোরে মমতা বন্দ্য়োপাধ্য়ায়। নিজস্ব চিত্র

Mamata Banerjee: কয়েকদিন আগেই সমগ্র শিক্ষা মিশনের পক্ষ থেকে বলা হয়, রাজ্যের সমস্ত স্কুলের পোশাকে থাকবে নীল-সাদা বিশ্ববাংলার লোগো।

  • Share this:

#কলকাতা: স্কুল ড্রেসে বিশ্ববাংলার লোগো নিয়ে তৈরি বিতর্কের বিষয়ে মুখ খুললেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। বুধবার নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়ামে বিধবা ভাতা প্রদানের অনুষ্ঠান থেকে বিশ্ববাংলার লোগো বিতর্ক নিয়ে মমতা (Mamata Banerjee) বললেন, বিশ্ব বাংলার লোগো কেন ব্যবহার করব না? ওটা তো সরকারি লোগো।

কয়েকদিন আগেই সমগ্র শিক্ষা মিশনের পক্ষ থেকে বলা হয়, রাজ্যের সমস্ত স্কুলের পোশাকে থাকবে নীল-সাদা বিশ্ববাংলার লোগো। সেই নিয়ে একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়। বলা হয়, রাজ্যের স্বনির্ভর গোষ্ঠীগুলি তৈরি করবে এই পোশাক। সরকারি স্কুল ও সরকারি সাহায্যপ্রাপ্ত স্কুলগুলিতে এই পোশাক সরবরাহ করা হবে সমগ্র শিক্ষা মিশনের পক্ষ থেকে। এ ছাড়া আগের মতো পড়ুয়ারা স্কুলের ব্যাগ ও জুতো পাবে।

আরও পড়ুন -  'কেউ ছাড় পাবে না', চক্রান্তের অভিযোগ তুলে বৃহস্পতিবার রামপুরহাট যাচ্ছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়!

সেই নিয়েই মমতা (Mamata Banerjee) নেতাজি ইন্ডোরের সভা থেকে বলেন, এরা সব কিছুতেই তৃণমূলের দোষ দেখে। আমরা স্কুলে বিনা পয়সায় ব্যাগ, জুতো দি। সেখানে এই পোশাকও দেওয়া হবে, সেখানে লোগো থাকবে। আমরা বাংলার নামটা ভুলি কী করে বলুন তো। সরকারের লোগো থাকবে না? এই লোগোটা আমি তৈরি করেছিলাম। রাজ্য সরকারের বেশিরভাগ লোগো আমার তৈরি করা। আর একটা কথা, বেসরকারি স্কুল ইচ্ছামতো ব্যাজ ব্যবহার করতে পারে, সরকারি স্কুল কেন পারবে না! ভারত সরকার যদি সরকারের স্ট্যাম্প ব্যবহার করতে পারে, তা হলে আমরা কেন ব্যবহার করব না।

আরও পড়ুন - সিটের বিশ্বাসযোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন, মুখ্যমন্ত্রীকে পাল্টা কড়া চিঠি রাজ্যপালের

নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়াম থেকে রামপুরহাটের ঘটনা নিয়েও মুখ খোলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। তিনি বলেন, রামপুরহাটে আগামীকাল যাবেন তিনি। পাশাপাশি তিনি বলেন, প্রশাসন সদা-সতর্ক রয়েছে। ঘটনার দিন, অর্থাৎ মঙ্গলবার তিনি বহুবার পরিস্থিতির দিকে নজর রাখতে ফোন করেছেন, ফিরহাদ হাকিম ও অন্য কয়েকজনকে পাঠিয়েছেন। বাংলার বদনাম করতে ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি। লখিমপুর খেরি, হাথরাসের মতো ঘটনারও উল্লেখ করেন তিনি।

সোমরাজ বন্দ্যোপাধ্যায়

Published by:Uddalak B
First published:

Tags: Mamata Banerjee

পরবর্তী খবর