• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • MAMATA BANERJEE MAY ATTEND NANDIGRAM CASE VIRTUAL HEARING ON 24TH JUNE SDG

Mamata vs Suvendu: ভোট মিটলেও 'লড়াইয়ে' TMC-BJP, নন্দীগ্রাম মামলায় হাজিরা দিতে পারেন স্বয়ং মমতা

নন্দীগ্রাম নয় বিধানসভার ফলাফল চ্যালেঞ্জ করে মামলা করেছেন বলরামপুর, ময়না, গোঘাট ও বনগাঁ দক্ষিণের তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী।

নন্দীগ্রাম নয় বিধানসভার ফলাফল চ্যালেঞ্জ করে মামলা করেছেন বলরামপুর, ময়না, গোঘাট ও বনগাঁ দক্ষিণের তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী।

  • Share this:

#কলকাতাঃ  রাজ্যে তৃতীয় বারের জন্য ক্ষমতায় তৃণমূল কংগ্রেস (AITMC)। ভোট লড়াইয়ে বিপুল ভোটে জিতে মসনদে আবারও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (CM Mamata Bndyopadhyay)। রাজনৈতিক লড়াই ছিল ইভিএমে। ভোটের পরেও লড়াই আছে তবে আইনি। দুই যুযুধানের হাইভোল্টেজ লড়াই এখন আদালতের আঙিনায়।আর আবারও নজরে সেই নন্দীগ্রাম। মমতা বনাম শুভেন্দুর হাইভোল্টেজ ম্যাচ এখন ইলেকশন পিটিশনে। বিচারপতি কৌশিক চন্দের বেঞ্চে মামলাটি শুনানির জন্য এলে সময় চাওয়া হয়। ২৪ জুন শুনানির দিন নির্দিষ্ট হয়েছে। রেজিস্টার অরিজিনাল সাইডের রিপোর্ট তলব করেছেন বিচারপতি কৌশিক চন্দ। আইনজীবীরা জানাচ্ছেন, একেবারে পদ্ধতিগত বিষয় এটি। এতে মামলায় এখনই কোনও সিদ্ধান্তে আসা যায় না।

সূত্রের খবর, ২৪ জুন আইনজীবীর সঙ্গেই ভার্চুয়ালি উপস্থিত থাকতে পারেন নন্দীগ্রামের তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী। শুধু নন্দীগ্রাম নয় বিধানসভার ফলাফল চ্যালেঞ্জ করে মামলা করেছেন বলরামপুর, ময়না, গোঘাট ও বনগাঁ দক্ষিণের তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থীরা। রাজ্যের প্রাক্তন পশ্চিমাঞ্চল উন্নয়ন মন্ত্রী শান্তিরাম মাহাত বিজেপি প্রার্থীর কাছে হারেন ৫০০ কম ব্যবধানে।শান্তিরামের আইনজীবী ললিত মাহাত জানান, "বিচারপতি শুভাশিস দাশগুপ্ত তাঁদের আবেদন গ্রহণ করেছেণ। ১৫ জুলাই পরবর্তী শুনানি। বলরামপুর বিধানসভা নির্বাচনে সব নথি সংরক্ষণ করতে রিটার্নিং অফিসারকে নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট।"

ময়না বিধানসভার তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী সংগ্রাম কুমার দলুই ১২৬০ ভোটে পরাজিত হন বিজেপি প্রার্থী অশোক দিন্ডার কাছে। ইলেকশন পিটিশন দাখিল করেন সংগ্রাম কুমার দোলুই। মামলা গ্রহণ করেছে আদালত। আগামী ২৫ জুন শুনানির দিন নির্দিষ্ট করেছেন বিচারপতি তীর্থঙ্কর ঘোষ।বনগাঁ দক্ষিণ বিধানসভার  তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী আলোরানী সরকার ২০০৪ ভোটে পরাজিত হন বিজেপি প্রার্থী স্বপন মজুমদার এর কাছে।শিক্ষাগত যোগ্যতা সম্পর্কে ভুল তথ্য এবং নির্বাচন কমিশনের বেঁধে দেওয়া নির্দিষ্ট সময়ের বাইরে গিয়ে প্রচারের অভিযোগে তাঁর বিরুদ্ধে। তাই ইলেকশন পিটিশন দাখিল করেন আলোরানী সরকার। শুক্রবার আদালতের নির্দেশ স্বপন মজুমদারকে নোটিশ পাঠাতে হবে দুই সপ্তাহের মধ্যে যাতে তিনি হলফনামা দাখিল করতে পারেন। ১৬ জুলাই পরবর্তী শুনানির নির্দেশ বিচারপতি বিবেক চৌধুরীর।

গোঘাট বিধানসভার তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী মানস মজুমদার ৪১৪৭ ভোটে পরাজিত হন বিজেপির প্রার্থী বিশ্বনাথ কারকের কাছে। ইলেকশন পিটিশন দাখিল করেন মানস মজুমদার। বিশ্বনাথ কারককে নোটিশ পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছে আদালত।আগামী ৯ জুলাই পরবর্তী শুনানির দিন নির্দিষ্ট করেছেন বিচারপতি শুভ্রা ঘোষ।

ARNAB HAZRA

Published by:Shubhagata Dey
First published: