সিঙ্গুরে একদিন বড় শিল্প হবে, আশাবাদী মমতা! মুখ্য়মন্ত্রীকে কটাক্ষ বিরোধীদের

সিঙ্গুরে একদিন বড় শিল্প হবে, আশাবাদী মমতা! মুখ্য়মন্ত্রীকে কটাক্ষ বিরোধীদের

সিঙ্গুরে শিল্প ফেরানোর আশায় মুখ্যমন্ত্রী৷

  • Share this:

    #কলকাতা: সিঙ্গুরে একদিন বড় শিল্প হবে৷ এমনই আশা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের৷ এবং রাজ্য সরকার যে সেখানে কোনও গাড়ি কারখানায় গড়তে বেশি আগ্রহী সে কথাও স্পষ্ট করে দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী৷ তবে বর্তমানে করোনা অতিমারির কারণে আর্থিক মন্দা চলায় সেই সম্ভাবনা যে এখনই নেই, তাও স্বীকার করে নিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷

    নন্দীগ্রামের পাশাপাশি সিঙ্গুর আন্দোলনও রাজ্যে পরিবর্তনে বড় ভূমিকা নিয়েছিল৷ প্রতিশ্রুতি মতো আইনি লড়াইয়ে জিতে সিঙ্গুরের অনিচ্ছুক কৃষকদের জমিও ফিরিয়েছে রাজ্য৷ কিন্তু সিঙ্গুরে আর শিল্প ফেরেনি৷ বিরোধীদের অভিযোগ, সিঙ্গুরে কারখানা গড়ার পরিকল্পনা ত্যাগ করে টাটাদের বিদায়ই রাজ্যের শিল্পবান্ধব ভাবমূর্তিতে বড় ধাক্কা দিয়েছে৷

    বৃহস্পতিবার নবান্ন থেকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, সিঙ্গুরে ১১ একর জমিতে অ্যাগ্রো ইন্ডাস্ট্রিয়াল পার্ক গড়ে তুলবে রাজ্য সরকার৷ কিন্তু এই ঘোষণা করার সময়ই সিঙ্গুরে বড় শিল্প না হওয়ার খেদও শোনা যায় মুখ্যমন্ত্রীর গলায়৷ তিনি বলেন, 'আমরা ফোর্ড থেকে শুরু করে অন্যান্য সংস্থাকেও সিঙ্গুরে মোটর কারখানা তৈরি করার জন্য বলেছিলাম৷ কোভিডের জন্য সর্বত্রই বিনিয়োগ কম হচ্ছে৷ কিন্তু একদিন না একদিন ওখানে শিল্প হবে৷' পুরোন কথা মনে করিয়ে মমতা বলেন, তাঁরা চেয়েছিলেন সিঙ্গুরে কৃষি- শিল্পের সহাবস্থান হোক৷

    গত লোকসভা নির্বাচনেই সিঙ্গুরে অশনি সংকেত দেখতে পেয়েছে রাজ্যের শাসক দল৷ সিঙ্গুর বিধানসভায় প্রায় দশ হাজার ভোটে এগিয়ে ছিল বিজেপি৷ মুখ্যমন্ত্রী সিঙ্গুরে শিল্প ফেরানোর কথা বললেও তাঁকে খোঁচা দিতে ছাড়েননি বিরোধী নেতারা৷ সিপিএম নেতা সুজন চক্রবর্তী বলেন, 'উনি প্রায়শ্চিত্ত করার চেষ্টা করছেন, কিন্তু সেই সুযোগ উনি আর পাবেন না৷' আর বিজেপি নেতা শমীক ভট্টাচার্য বলেন, 'সিঙ্গুরে শিল্প হবে ঠিকই, কিন্তু সেটা হবে ২০২১ সালে বিজেপি-র সরকার রাজ্যে ক্ষমতায় আসার পর৷ '

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published:

    লেটেস্ট খবর