Mamata Banerjee: মন্ত্রীদের লালবাতি গাড়িতে ঘোরা চলবে না! তৃতীয় ইনিংসের শুরুতেই শুদ্ধিকরণে মমতা

দল সামলাতে কড়া মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

Mamata Banerjee: আসলে তিনি বুঝিয়ে দিলেন, তৃতীয় ইনিংস সম্পূর্ণ অন্য ভাবে সাজাতে চাইছেন। চাইছেন অভ্যন্তরীণ সংস্কার।

  • Share this:

    #কলকাতা: মন্ত্রীরা লালবাতি গাড়ি ব্যবহার করে যত্রতত্র ঘুরতে পারবেন না। শনিবার দলের সাংগঠনিক বৈঠকে  এক ব্যক্তি এক পদ নীতি চালু করার পাশাপাশি এমনই নির্দেশ দিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আসলে তিনি বুঝিয়ে দিলেন, তৃতীয় ইনিংস সম্পূর্ণ অন্য ভাবে সাজাতে চাইছেন। চাইছেন অভ্যন্তরীণ সংস্কার।

    গত ১০ বছর বারংবার দুর্নীতির অভিযোগে বিদ্ধ হয়েছে দল। এই পরিস্থিতিতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রধান লক্ষ্য দল এবং প্রশাসনকে আলাদা রাখা। দলকে দুর্নীতিমুক্ত করা। দলীয় নেতাদের আরো আরো জনমুখী করে তোলা। সেই লক্ষ্য থেকেই এ দিন বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ বার্তা দিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি স্পষ্ট বলেছেন, দলীয় বিধায়কদের নাম যেন ইট বালি পাচারের সঙ্গে যুক্ত না হয়। তিনি চান এই পর্বে বিধায়করা যেন এই দুর্নীতি মুক্ত থাকেন।

    পাশাপাশি কোভিড পরিস্থিতিতে সাংসদ বিধায়করা যাতে মাঠে নেমে কাজ করেন, সেই বার্তাও দেন মমতা। নতুন পদাধিকারীদের যাতে পুরনোরা সাহায্য করেন অর্থাৎ যাতে নতুন এবং পুরনো উন্নততর তৃণমূল গড়ে ওঠে, তারই রূপরেখা এ দিন তৈরি করে দিতে চেয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় শনিবারের বৈঠকে  সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার নিয়েও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বার্তা দিয়েছেন। তিনি দলীয় নেতাদের বলেছেন যখন তখন সোশ্যাল মিডিয়ায় যা খুশি লেখা চলবে না।

    আসলে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় চাইছেন জনমত যেমন তৃণমূলের পক্ষে গিয়েছে তেমনই জনতার কাছে মাথানত করুক তার দলের বিধায়ক- নেতারা। তাই মমতার উক্তি, "সরাসরি মানুষের কাছে গিয়ে কাজ করুন সামনে বন্যা আসছে সে দিকে নজর দিন।"

    প্রসঙ্গত আজকের মেগা বৈঠকে তৃণমূলের নটি বড় রদবদল হয়েছে। অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক পদে উন্নীত হয়েছেন। আর যুব তৃণমূলের দায়িত্ব গিয়েছে সায়নী ঘোষের হাতে। অন্য দিকে তৃণমূলের কালচারাল সেক্রেটারি হয়েছেন রাজ চক্রবর্তী। ঋতব্রত বন্দ্যোপাধ্যায় দায়িত্ব পেয়েছেন শ্রমিক সংগঠনের। কাকলি ঘোষ দস্তিদার সর্বভারতীয় মহিলা তৃণমূলের সভানেত্রী হয়েছেন। পূর্ণেন্দু বসুকে খেতমজুর সংগঠনের সভাপতি করা হয়েছে।  বঙ্গজননীর সভাপতি করা হয়েছে মালা রায়কে। আর দলের রাজ্য সম্পাদক পদে আসীন হয়েছেন কুনাল ঘোষ।

    Published by:Arka Deb
    First published: