১৪ বছর পর স্কুটারে সওয়ার মমতা! পেট্রোপণ্যের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে চমকে দিলেন তৃণমূল নেত্রী

১৪ বছর পর স্কুটারে সওয়ার মমতা! পেট্রোপণ্যের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে চমকে দিলেন তৃণমূল নেত্রী

অভিনব প্রতিবাদ মমতার। ফিরহাদ হাকিমের স্কুটারে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

সম্ভবত মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার পর এই প্রথম তাঁর এই অভিনব প্রতিবাদ।

  • Share this:

#কলকাতা: পেট্রপণ্যের দাম বৃদ্ধির অভিনব প্রতিবাদ মমতার। ব্যাটারিচালিত স্কুটিতে চড়ে হাজরা মোড় থেকে নবান্নমুখে যাত্রা শুরু করলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ই-স্কুটার মিছিলে চোখে পড়ল না কোনও দলীয় পতাকা। অর্থাৎ বার্তাটা থাকল তৃণমূল সুপ্রিমো নয়, এই প্রতিবাদ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। প্রসঙ্গত ১৪ বছর পর স্কুটারে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে স্কুটার চড়তে দেখা গেল। সম্ভবত মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার পর এই প্রথম তাঁর এই অভিনব প্রতিবাদ।

পেট্রল ডিজেল সেঞ্চুরির পথে। আজ নতুন করে বেড়েছে গ্যাসের দাম। পেট্রোপণ্যের দাম বৃদ্ধির প্রতিবাদে সরব তৃণমূলের প্রতিবাদের হাল ধরলেন  মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। অভিনব কায়দায় প্রতিবাদ করলেন।  মুখ্যমন্ত্রীর সুরক্ষা নিয়ে প্রশ্ন ওঠায়, পরিকল্পনাটি বাস্তবায়িত হবে কিনা তা নিয়ে প্রশ্ন ছিল। দলীয় কর্মীরা ভিড় জমাতে পারে তাই গোপন রাখা হয়েছিল কর্মসূচিও। কিন্তু সিদ্ধান্ত অবিচল মমতা হাজরা মোড় থেকে শেষমেশ  নীল হেলমেট পরে ববি হাকিমের স্কুটারে চড়লেন। শুরু হল যাত্রা।

বেশ কয়েকদিন ধরেই পেট্রোপণ্যের দামবৃদ্ধি নিয়ে পথে নেমেছে তৃণমূল। গত শনি-রবিবার বেহালা, যদুবাবুর বাজার অঞ্চল, উত্তর কলকাতায় মিছিল করেছে তৃণমূল। আজ তাদের প্রতিবাদ সমাবেশ ছিল হাজরায়। সেই প্রতিবাদ সভা থেকেই নবান্ন যাওয়ার পথে ব্যাটারিচালিত স্কুটিতে চড়ে বসেন জননেত্রী মমতা। স্বভাবতই মমতাকে ঘিরে জনতার আগ্রহ ছিল চোখে পড়ার মতো।

প্রসঙ্গত দেশের বেশ কয়েকটি জায়গায় পেট্রলের দাম লিটার প্রতি ১০০টাকা ছাড়িয়েছে। বাংলাতেও পেট্রলের দাম ৯২ টাকা ছুঁইছুঁই। এই অবস্থায় পেট্রোপণ্যের দাম কমাতে উদ্যোগী হয়েছে রাজ্য। রবিবারই এক সাংবাদিক বৈঠকে রাজ্যের অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্র জানিয়েছেন, পেট্রোপণ্যের দাম কমাতে ১ টাকা সেস কমাচ্ছে রাজ্য সরকার। কিন্তু এখানেই থামতে চায় না শাসক দল। কেন্দ্রকে চাপে ফেলতে সেস কমানোর পাশাপাশি সর্বাত্মক প্রতিবাদেই ভরসা রাখছে তৃণমূল। আর দলনেত্রীর এমন অভিনব প্রচার পরিকল্পনাই তাদের তুরুপের তাস।

Published by:Arka Deb
First published:

লেটেস্ট খবর