Mamata Banerjee: প্রথম তিন দফায় ২৫-৩০ আসন পেতে পারে বিজেপি, দাবি মমতার

Mamata Banerjee: প্রথম তিন দফায় ২৫-৩০ আসন পেতে পারে বিজেপি, দাবি মমতার

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় অবশ্য দাবি করেছেন, পরবর্তী দফাগুলিতে মানুষ যাতে বিভ্রান্ত হয়ে বিজেপি-কে ভোট দেয়, সেই উদ্দেশ্যেই বিজেপি অধিকাংশ আসন পাবে বলে দাবি করছেন অমিত শাহ৷

  • Share this:

    #কলকাতা: বুধবার রাজ্যে প্রচারে এসে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ (Amit Shah) দাবি করেছেন, প্রথম তিন দফায় ৯১টি আসনের মধ্যে ৬৩ থেকে ৬৮টি আসনে জয়ী হবে বিজেপি (TMC)৷ এতদিন বিজেপি নেতাদের এই ধরনের দাবিকে উড়িয়ে দিচ্ছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যয় (Mamata Banerjee) সহ তৃণমূল (TMC) নেতারা৷ তবে এ দিন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজেই জানালেন, প্রথম তিন দফার ভোটে ২৫ থেকে ৩০টি আসনে জয়ী হতে পারে বিজেপি৷

    এ দিন যাদবপুরের সভায় এই মন্তব্য করেন তৃণমূলনেত্রী৷ যাদবপুরের সভায় মুখ্যমন্ত্রী বলেন, 'আজকেও নাকি উনি বলেছেন প্রথম তিন দফায় ৬৮ থেকে ৭০টি আসন পেতে পারেন৷ এসব মানুষকে বিভ্রান্ত করার জন্য বলছেন৷ যদি খুব বড় মন করে ধরেও নিই প্রথম তিন দফায় ওরা ভাল ফল করবে, খুব বেশি হলে ২৫ থেকে ৩০টি আসন পাবে! কারণ প্রথম দিকে যেখানে ভোট হয়েছে কিছু জায়গায় ওদের কিছুটা শক্তি রয়েছে৷' প্রথম দুই দফায় জঙ্গলমহলের জেলাগুলিতে ভোট হয়েছে৷ যেখানে লোকসভা নির্বাচনে একতরফা ফল করেছিল বিজেপি৷ এ ছাড়াও পূর্ব মেদিনীপুেরও শুভেন্দু এবং শিশির অধিকারী শিশির বদল করায় ওই জেলাতেও অনেক হিসেব বদলে যেতে পারে বলে আশাবাদী বিজেপি নেতৃত্ব৷ তৃণমূল নেতৃত্ব অবশ্য বার বারই দাবি করেছেন, লোকসভা নির্বাচনের সঙ্গে বিধানসভার ফল মিলবে না৷ জঙ্গলমহলেও এবার ঘুরে দাঁড়াবে তৃণমূল৷

    মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় অবশ্য দাবি করেছেন, পরবর্তী দফাগুলিতে মানুষ যাতে বিভ্রান্ত হয়ে বিজেপি-কে ভোট দেয়, সেই উদ্দেশ্যেই বিজেপি অধিকাংশ আসন পাবে বলে দাবি করছেন অমিত শাহ৷ তৃণমূলনেত্রী বলেন, এর আগে ছত্তীসগড়, দিল্লির মতো রাজ্যেও বিধানসভা নির্বাচনের সময় একই ধরনের দাবি করেছিলেন অমিত শাহ সহ বিজেপি নেতারা৷ কিন্তু ওই সব রাজ্যে বিজেপি-র ফল যথেষ্ট খারাপ হয়৷

    যাদবপুরের সভা থেকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এ দিনও অভিযোগ করেছেন, ভোট লুঠ করার জন্য কলকাতাতেও ভিন রাজ্যের দুষ্কৃতীদের জড়ো করেছে বিজেপি৷ কলকাতার কোনও হোটেল ফাঁকা নেই বলে অভিযোগ করেন তৃণমূলনেত্রী৷

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published:

    লেটেস্ট খবর