শাহী সভার দিনে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে মমতাও বলে দিলেন, খেলা হোক...

শাহী সভার দিনে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে মমতাও বলে দিলেন, খেলা হোক...
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।ফাইল চিত্র

উত্তীর্ণ থেকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের টিপ্পনি, আমি গোলরক্ষক, খেলা দেখব।

  • Share this:

    #কলকাতা: অমিত শাহের জোড়া সভার দিনে পাল্টা চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়‌ও বলে দিলেন খেলা হোক। উত্তীর্ণ থেকে সামাজিক প্রতিনিধিদের সম্মেলনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের টিপ্পনি, আমি গোলরক্ষক, খেলা দেখব।

    এদিন উত্তীর্ণয় বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনগুলির প্রতিনিধিদের সঙ্গে একটি সম্মেলনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এক হাত নিলেন বিজেপি প্রথম সারির নেতাদের । অমিত শাহের বাংলায় আসা সম্পর্কে মমতা বলেন, "তাঁর আসা নিয়ে কোনও অসুবিধে নেই। কিন্তু ভাষা ও দেহভঙ্গিমা যেন দৈত্যপরায়ণ।" মমতার কথায়, "স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর মুখে এমন ভাষা মানায় না।" বিজেপির সব নেতারাই বলছে, তৃণমূল ভ্রষ্টাচারী। উত্তরে মমতার উবাচ, "চোরের মায়ের বড় গলা।"

    ভোটের বাংলায় পদ্ম ফোটাতে মরিয়া বিজেপিকে আক্রমণ করে মমতা বলেন, "কখনও বাধ্য হব না, গলা কেটে দেবো, তবু বিজেপির হাতে বাংলাকে তুলে দেবো না।"  এরপর হঠাৎই মমতা চ্যালেঞ্জ নেওয়ার সুরে বলেন, অত সোজা খেলা নয়, আসুন না, হয়ে যাক একটা খেলা।


    ঠিক কেমন খেলা? নিজেকে গোলরক্ষকের ভূমিকায় রেখে মমতা বলেন, "গণতন্ত্রের পরীক্ষার খেলা হোক। ব্রিগেড প্যারেড গ্রাউন্ডে থাকবেন আপনারা (বিজেপি) এবং আরও দুটি দল। কংগ্রেস-সিপিএমকেও সঙ্গে দিয়ে দিলাম। আমি শুধু দেখব কটা গোল আপনারা দিতে পারেন।"

    কৃষি আন্দোলনর বিরোধীদের বারংবার আন্দোলনজীবী বলেছন নরেন্দ্র মোদি। সেকথা টেনে আনলেন আজ মমতা। তাঁর কথায়, "আন্দোলনকারীদের আন্দোলনজীবী বলে গালাগালি দিচ্ছে। আমি রাস্তার লোক, আমি স্ট্রিটফাইটার। মানুষের সঙ্গে ছিলাম, আছি, থাকব। আমি সেই গৌরব হারাতে চাই না। সরকারে থাকলেও রাস্তার লোক সরকারের বাইরে থাকলেও আমি রাস্তার লোক।"

    এ দিন মমতা বলেন, আমি প্রতিশ্রুতি দিই না, কথা দিয়ে কথা রাখি, সেটাই আমার এবং আমার সরকারের বিশ্বাসযোগ্যতা। বিজেপি মনোভাবাপন্ন নয় এমন এনজিওর অনুদান বন্ধ করে দিয়েছে। মমতার আশ্বাস, ক্ষমতায় এলে তাঁদের প্রত্যেককে কাজে লাগাবেন, কাজ করার সুযোগ করে দেবেন।

    Published by:Arka Deb
    First published:

    লেটেস্ট খবর