• হোম
  • »
  • খবর
  • »
  • কলকাতা
  • »
  • MAMATA BANERJEE CAN BE STOPPED FROM MEETING HER OWN PEOPLE FOR 3 DAYS BUT HOW WILL THEY TAKE HER OUT FROM PEOPLES HEARTS TWEET ABHISHEK BANERJEE SB

Abhishek Banerjee on Mathabhanga Firing: 'তিন দিন আটকানো যাবে, মমতাকে মানুষের হৃদয় থেকে মুছে দেওয়া যাবে না'

Abhishek Banerjee on Mathabhanga Firing: 'তিন দিন আটকানো যাবে, মমতাকে মানুষের হৃদয় থেকে মুছে দেওয়া যাবে না'

মমতায় আস্থা অভিষেকের

রবিবার শিলিগুড়ি থেকে সাংবাদিক বৈঠক করে গতকালের ঘটনাকে 'গণহত্যা' বলে আখ্যা দিয়েছেন মমতা। একইসঙ্গে সাংবাদিক বৈঠক থেকে মৃতদের পরিজনদের সঙ্গে ভিডিও কলে কথাও বলেন তিনি।

  • Share this:

    #কলকাতা: কেন্দ্রীয় বাহিনীর গুলিতে চার জনের মৃত্যুর ঘটনা নিয়ে এখনও উত্তাল রাজ্য। নির্বাচন কমিশন ৭২ ঘণ্টা শীতলকুচিতে (Mathabhanga Firing) সমস্ত রাজনৈতিক নেতা-নেত্রীদের প্রবেশ নিষিদ্ধ করেছে। যা নিয়ে সুর সপ্তমে তুলেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। রবিবার শিলিগুড়ি থেকে সাংবাদিক বৈঠক করে গতকালের ঘটনাকে 'গণহত্যা' বলে আখ্যা দিয়েছেন মমতা। একইসঙ্গে সাংবাদিক বৈঠক থেকে মৃতদের পরিজনদের সঙ্গে ভিডিও কলে কথাও বলেন তিনি। আর মমতাকে শীতলকুচি যেতে না দেওয়ার প্রসঙ্গে এদিন ট্যুইটারে ফের সরব হয়েছেন তৃণমূল সাংসদ তথা দলের যুব সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় (Abhishek Banerjee)।

    এদিন ট্যুইটে অভিষেক লেখেন, 'নরেন্দ্র মোদি ও অমিত শাহের প্রতি নির্বাচন কমিশনের দাসত্ব অত্যন্ত বিরক্তিকর। ক্ষমতার লালসায় বিজেপি অন্ধ হয়ে গিয়েছে। নির্বাচন কমিশন অন্তত নিরপেক্ষ থাকার ভান করতে পারত।'

    প্রসঙ্গত, রবিবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের শীতকুচির জোড়াপাটকির ওই গ্রামে যাওয়ার কথা ছিল৷ কিন্তু শনিবার সন্ধ্যাতেই নির্বাচন কমিশন নির্দেশিকা জারি করে জানানো হয়, আগামী ৭২ ঘণ্টা কোচবিহারে ঢুকতে পারবেন না কোনও রাজনৈতিক নেতা-নেত্রী৷ ফলে মুখ্যমন্ত্রীর সফর তখনই বাতিল হয়ে যায়। তবে বিকেলেই শিলিগুড়ি পৌঁছে নির্বাচন কমিশন ও বিজেপির বিরুদ্ধে সুর চড়ান তৃণমূলনেত্রী৷ দুই বিশেষ পর্যবেক্ষক অজয় নায়েক এবং বিবেক দুবের রিপোর্টের ভিত্তিতেই শীতলকুচিতে রাজনৈতিক নেতাদের প্রবেশ নিষিদ্ধ করা হয়৷ এদিন অবশ্য শিলিগুড়ির সাংবাদিক বৈঠক থেকে মমতা প্রশ্ন তোলেন, 'কেন পায়ে গুলি করল না। বুক লক্ষ্য করে গুলি করে দিল! টিয়ার গ্যাস ফায়ার করতে পারত। বাহিনীর আহত হওয়ার ঘটনা কোথায় ঘটেছে? কমিশন যা করছে, তা নজিরবিহীন। শীতলকুচিতে গণহত্যা হয়েছে। নৃশংসভাবে মানুষকে মেরেছে বাহিনী।' আর মমতার ওই অভিযোগের পরই ফের কমিশনের বিরুদ্ধে সুর চড়ান অভিষেক।

    এদিন সকালেই মমতাও অবশ্য ট্যুইটে লেখেন, 'মডেল কোড অব কনডাক্ট-এর নাম বদলে মোদী কোড অব কনডাক্ট করুক নির্বাচন কমিশন। বিজেপি নিজের সর্বশক্তি প্রয়োগ করতে পারে, কিন্তু এই পৃথিবীতে কোনও কিছুই আমাকে আমার জনগণের সঙ্গে দেখা করে তাঁদের দুঃখ ভাগ করে নেওয়া থেকে আটকাতে পারবে না।' এদিন সেই প্রেক্ষিতে অভিষেকও লেখেন, 'মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিজের মানুষদের সঙ্গে দেখা করতে বাধা দিতে পারবেন তিনদিন, কিন্তু তাঁদের হৃদয় থেকে কি সরিয়ে দিতে পারবেন?'

    Published by:Suman Biswas
    First published: