• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • পর পর পদত্যাগ, ভাঙন ঠেকাতে কালীঘাটে জরুরি বৈঠক ডাকলেন মমতা

পর পর পদত্যাগ, ভাঙন ঠেকাতে কালীঘাটে জরুরি বৈঠক ডাকলেন মমতা

কে তৃণমূল ছাড়ল তা নিয়ে মাথা না ঘামিয়ে, জনসংযোগে মন দিন। তৃণমূলের ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠকে বার্তা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। কোমর বেঁধে নামতে বললেন ভোটের প্রচারে। একুশের যুদ্ধে তৃণমূল, বিধানসভা ভোটের আগে তৃণমূলের ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠক। সেখান থেকেই ভোটের সুর বেঁধে দিলেন তৃণমূল নেত্রী।

কে তৃণমূল ছাড়ল তা নিয়ে মাথা না ঘামিয়ে, জনসংযোগে মন দিন। তৃণমূলের ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠকে বার্তা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। কোমর বেঁধে নামতে বললেন ভোটের প্রচারে। একুশের যুদ্ধে তৃণমূল, বিধানসভা ভোটের আগে তৃণমূলের ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠক। সেখান থেকেই ভোটের সুর বেঁধে দিলেন তৃণমূল নেত্রী।

  • Share this:

    #কলকাতা: দলে ভাঙন রুখতে জরুরি বৈঠক ডাকলেন তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ শুক্রবার বিকেলেই কালীঘাটে দলের শীর্ষ নেতৃত্বের সঙ্গে আলোচনায় বসতে চলেছেন তিনি৷ যেভাবে একের পর এক নেতা তৃণমূল ছাড়ছেন, তাতে ক্ষোভ প্রশমন করে দলকে একসূত্রে বাঁধতে কী কৌশল নেওয়া যায়, এই বৈঠকে তা নিয়ে আলোচনা হওয়ার কথা৷

    শুভেন্দু অধিকারী দল ছাড়বেন তা ধরেই রেখেছিল তৃণমূল নেতৃত্ব৷ তাঁর অনুগামীদের কোণঠাসা করার প্রক্রিয়াও শুরু হয়ে গিয়েছিল৷ কিন্তু বাস্তবে দেখা যাচ্ছে যত দিন যাচ্ছে, শুভেন্দুর সঙ্গে সঙ্গে আরও অনেক নেতার গলাতেই বিক্ষোভের সুর৷ বৃহস্পতিবারই শুভেন্দু অধিকারী দলের সদস্যপদ ছেড়েছেন৷ কিন্তু দলকে কিছুটা চমকে দিয়েই তৃণমূল ছেড়েছেন আসানসোলের বিদায়ী মেয়র এবং পুর প্রশাসক জিতেন্দ্র তিওয়ারি৷ বর্ধমান পূর্বের সাংসদ সুনীল কুমার মণ্ডলও বিজেপি-তে যোগ দিতে পারেন বলে খবর৷ আরও বেশ কিছু বিধায়ক রয়েছেন, যাঁদের গতিবিধি সন্দেহজনক ঠেকছে শীর্ষ নেতৃত্বের কাছে৷ শুধু বিধায়ক, সাংসদরাই নন, শাসক দলের উদ্বেগ বাড়িয়ে নিচু তলার অনেক নেতার গলাতেও ক্ষোভের সুর শোনা যাচ্ছে৷

    তৃণমূলনেত্রী নিজে বলেছেন, যাঁরা দল ছাড়ার ছেড়ে দিতে পারেন৷ মুখে তৃণমূলের শীর্ষ নেতারাও এ কথাই বলছেন৷ কিন্তু বিধানসভা নির্বাচনের মাত্র কয়েক মাস আগে একের পর এক নেতা দল ছাড়ায় অশুভ সংকেত দেখছেন দলের শীর্ষ নেতৃত্ব৷ দলের মধ্যে ক্ষোভ প্রশমন করে কীভাবে ভাঙন রোধ করা যায়, সেই রণকৌশল স্থির করতেই শুক্রবারের বৈঠক৷ বস্তুত বিজেপি-র মোকাবিলা করার থেকেও এখন জরুরি ভিত্তিতে দলের ভাঙন আটকানোই তৃণমূল নেতৃত্বের কাছে বড় চ্যালেঞ্জ৷

    সূত্রের খবর, বৈঠকে সুব্রত বক্সী, অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়, ফিরহাদ হাকিমের মতো শীর্ষ নেতাদের পাশাপাশি ভোট কুশলী প্রশান্ত কিশোরও উপস্থিত থাকতে পারেন৷ মুখ্যমন্ত্রীর কালীঘাটের বাড়িতেই এই বৈঠক ডাকা হয়েছে৷

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published: