খোল করতাল সহযোগে মনোনয়ন-পথে মমতা, 'হিন্দুত্ব' অস্ত্রেই ধার দিচ্ছেন শুভেন্দু

খোল করতাল সহযোগে মনোনয়ন-পথে মমতা, 'হিন্দুত্ব' অস্ত্রেই ধার দিচ্ছেন শুভেন্দু

মহাদ্বৈরথ শুভ‌েন্দু-মমতার।

একই সময়ে নন্দীগ্রামে তাঁর বিরুদ্ধে সুর চড়ালেন সুর চড়ালেন শুভেন্দু অধিকারীও।

  • Share this:

    #নন্দীগ্রাম: মনোনয়ন জমা দিতে হলদিয়া যাচ্ছেন নন্দীগ্রামের প্রার্থী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁকে ঘিরে চোখে পড়ার মতো স্থানীয় মানুষ তথা সমর্থকদের ভীড়ও লক্ষ্য করা গেল। খোল-কর্তাল নিয়ে হাজির হলেন বহু সমর্থক। এদিকে একই সময়ে নন্দীগ্রামে তাঁর বিরুদ্ধে সুর চড়ালেন সুর চড়ালেন শুভেন্দু অধিকারীও। তাঁর কথায়, "মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় হিন্দু ধর্মকে অপমান করেছেন।"

    এ দিন দুপুরে প্রথমেই রেওয়াপাড়ার শিবমন্দিরে পুজো দেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেখান থেকে সমর্থকদের সঙ্গে পায়ে পা মিলিয়েই তিনি এগোতে থাকেন হেলিপ্যাডের দিকে। হলদিয়ায় মহাকুমাশাসকের দফতরে গিয়ে মনোনয়ন জমা দেওয়ার কথা তাঁর। অবশ্য তার আগে হলদিয়াতেও একটি রোড শো করবেন তৃণমূল সুপ্রিমো। উৎসাহী ৩৪ টি বাসে কর্মীরা যাচ্ছেন হলদিয়া।

    প্রসঙ্গত তৃণমূল নেত্রী যখন নন্দীগ্রামে তখনই সেখানে পা রাখেন শুভেন্দু। দলের নির্বাচনী কার্যালয়ের উদ্বোধনে এসে শুভেন্দু মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নাম করেই তোপ দাগেন। বলতে থাকেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায় নাকি হিন্দু ধর্মকে অপমান করছেন। তাঁর কথায়, "নন্দীগ্রাম থেকে পালিয়ে গিয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।" পাশাপাশি শুভেন্দুর অভিযোগ, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বুধবার খালি পায়ে জানকীনাথ মন্দিরে গিয়েছিলেন। শুভেন্দু এ দিন বলেন, "রাজ্যের হিন্দুদের ভাবতে হবে।"

    পর্যবেক্ষকদের মতে, বিজেপির সোশ্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং রাজনীতির নতুন শরিক কোনও রাখঢাক না রেখেই মেরুকরণের রাজনীতিতে যাচ্ছেন, সরাসরি হিন্দুভোট দাবি করছেন তিনি।

    প্রসঙ্গত শুভেন্দু অধিকারী মনোনয়ন জমা দেবেন আগামী শুক্রবার। তাঁর মনোনয়ন জমা দেওয়ার দিনে সঙ্গে থাকতে পারেন স্মৃতি ইরানি ধর্মেন্দ্র প্রধানরা। আসতে পারেন মিঠুন চক্রবর্তী। অবশ্য মনোনয়নের ঢাকঢোল নয়, ১ এপ্রিল শেষ কথা বলবে জনগণেশ।

    Published by:Arka Deb
    First published: