বাসস্থান পুনর্নির্মাণ শীঘ্রই, আপাতত অন্ন-বস্ত্র দেবে প্রশাসন, বস্তিবাসীদের মমতা

বাসস্থান পুনর্নির্মাণ শীঘ্রই, আপাতত অন্ন-বস্ত্র দেবে প্রশাসন, বস্তিবাসীদের মমতা

ঘটনাস্থল পরিদর্শনে মমতা।

অন্ন-বস্ত্র-মাথার ছাদ, সব দিয়ে সর্বতো ভাবে থাকবে সরকার, আশ্বাস মুখ্যমন্ত্রীর‌।

  • Share this:

    #কলকাতা: অগ্নিদগ্ধ বাগবাজারের হাজার বস্তি এলাকায় পৌঁছে গেলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যাপাধ্যায়। ক্ষতিগ্রস্থদের পুনর্বাসন হওয়া পর্যন্ত পাশে থাকার আশ্বাস দিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়। অন্ন-বস্ত্র-মাথার ছাদ, সব দিয়ে সর্বতো ভাবে থাকবে সরকার, আশ্বাস মুখ্যমন্ত্রীর‌।

    মুখ্যমন্ত্রী এ দিন সকাল সাড়ে এগারোটা নাগাদ বাগবাজার এলাকায় পৌঁছে যান। তাঁকে দেখে সবহারানো মানুষরা ব্যারিকেড ভেঙেই অবস্থাটা বুঝিয়ে বলতে এগিয়ে আসেন। মমতা ঘুরে দেখেন অগ্নিদগ্ধ বস্তির ছবি। তারপর সর্বশান্ত মানুষদের সামনে দাঁড়িয়ে তিনি বলেন,"আগে কাজ ছিল আগুন নেভানো। তারপর প্রত্যেকের থাকার বন্দোবস্ত করা। আজকে পরিষ্কার হবে এই জায়গা। আমি আশ্বাস দিচ্ছি সকলকে বাড়ি বানিয়ে দেবে কলকাতা কর্পোরেশন।"

    মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রশাসনের প্রতিনিধিদের বলেন, আপাতত চাল, ডাল আলু, বিস্কুটের পর্যাপ্ত বন্দোবস্ত করতে হবে ক্ষতিগ্রস্থ মানুষদের জন্য। ববি হাকিম, শশী পাঁজাদের মমতা নির্দেশ দিয়ে বলেন, "প্রয়োজনীয় জামাকাপড়, কম্বলও দিতে হবে পুরুষ-মহিলা সকলকেই । আমরা ক্ষয়ক্ষতি বুঝে নিয়ে প্রত্যেককে যার যে জায়গা তাকে সেই জায়গায় থাকার বন্দোবস্ত করে দেবো। ভরসা রাখুন, আপনারা বিপদে পড়েছেন, আমরা পাশে আছি।" ভস্মীভূত বস্তি পরিদর্শন শেষে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় উদ্বোধন কার্যালয়েও যান। কথা বলেন মহারাজদের সঙ্গেও।

    স্বপ্ন পুড়ে ছাই হয়ে গিয়েছে। এদিন সকাল অস্থায়ী ক্যাম্প থেকে বেরিয়ে থেকে তাই পোড়ো জায়গাটাতেই জড়ো হয়েছিলেন ওই এলাকার বাসিন্দারা। ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিল পুলিশও। অনেকে বলেন, ওই পোড়া জিনিস হাতড়ানো সময় তাঁদের সঙ্গে একপ্রস্থ ঝামেলাও হয় পুলিশের সঙ্গে। অবশেষে মুখ্যমন্ত্রীকে পেয়ে, তাঁর অভয়বার্তা শুনে কিছুটা আশ্বস্ত হন বস্তিবাসীরা।

    Published by:Arka Deb
    First published: