• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • সিভিক ভলেন্টিয়ার,আশা কর্মীদের বেতন বৃদ্ধি! পুজোয় হকারদের ২০০০ টাকা ভাতা ঘোষণা

সিভিক ভলেন্টিয়ার,আশা কর্মীদের বেতন বৃদ্ধি! পুজোয় হকারদের ২০০০ টাকা ভাতা ঘোষণা

’ Photo-File

’ Photo-File

এ দিন হকারদের জন্যও কল্পতরু হয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী৷ লকডাউনের জন্য গত কয়েক মাস ধরে ব্যবসা বন্ধ ছিল হকারদের৷

  • Share this:

    #কলকাতা: পুজোর আগেই রাজ্যের সিভিক ভলেন্টিয়ার, গ্রিন পুলিশ এবং আশা কর্মীদের জন্য সুখবর৷ প্রত্যেকেরই ১ হাজার টাকা করে বেতন বৃদ্ধির ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ একই সঙ্গে তিনি জানিয়েছেন, প্রায় ৮১ হাজার হকারকে দুর্গা পুজো উপলক্ষে ২ হাজার টাকা করে ভাতা দেবে রাজ্য সরকার৷এ দিন নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়ামে পুজো উদ্যোক্তাদের সঙ্গে বৈঠকে এ কথা ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী৷

    এতদিন সিভিক ভলেন্টিয়াররা ৮ হাজার টাকা করে বেতন পেতেন৷ এবার থেকে তাঁরা পাবেন ৯ হাজার টাকা করে৷ মুখ্যমন্ত্রী বলেন, 'সিভিক ভলেন্টিয়াররা প্রথমে তিন হাজার টাকা করে পেতেন৷ পরে তা বাড়িয়ে ৮ হাজার করা হয়৷ এবার আরও এক হাজার টাকা বেতন বাড়ল৷' একই সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, করোনা অতিমারির মধ্যেও অত্যন্ত ঝুঁকি নিয়ে আশা কর্মীরা বাড়ি বাড়ি গিয়ে কাজ করেছেন৷ তাঁদের বেতনও এক হাজার টাকা করে বাড়ছে৷ মুখ্যমন্ত্রী আরও জানিয়েছেন, অঙ্গনওয়াড়ি কর্মী, আইসিডিএস কর্মীরাও অবসরের পর ৩ লক্ষ টাকা করে পাবেন৷

    এর পাশাপাশি এ দিন হকারদের জন্যও কল্পতরু হয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী৷ লকডাউনের জন্য গত কয়েক মাস ধরে ব্যবসা বন্ধ ছিল হকারদের৷ মুখ্যমন্ত্রী বলেন, হকারদের আর্থিক পরিস্থিতি এতটাই খারাপ যে অনেকে ঠিকমতো খাবারও জোগাড় করতে পারছেন না৷ মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, হকারদের একটি তালিকা তৈরি করেছে রাজ্য সরকার৷ প্রায় ৮১ হাজার হকারকে অক্টোবর মাসে পুজো উপলক্ষে ২ হাজার টাকা করে ভাতা দেবে রাজ্য৷ মুখ্যমন্ত্রী বলেন, 'এই টাকা দিয়ে তাঁরা অন্তত নিজেদের সন্তানদের পুজোয় একটা নতুন জামা কিনে দিতে পারবেন৷'

    কী ভাবে পুজোর আয়োজন হবে, সেই নির্দেশিকাও ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী৷ পাশাপাশি, পুজো কমিটিগুলিকে এ বছর রাজ্য সরকারের তরফে ৫০  হাজার টাকা করে আর্থিক সাহায্য করবে বলে ঘোষণা করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷  পুজো কমিটিগুলির সুবিধার্থে সিইএসসি, রাজ্য বিদ্যুৎ নিগমের খরচেও ৫০ শতাংশ ছাড়ের ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী৷যদিও করোনা অতিমারির জেরে রাজ্য সরকারের কোষাগারে যে যথেষ্ট টানাটানি চলছে, সেকখাও মনে করিয়ে দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী৷

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published: