• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • MAMATA BANERJEE ANGRY ON PRIME MINISTER NARENDRA MODI PICTURE IN RATION SHOP HORDING PBD

Ration: রেশন দোকানের হোর্ডিংয়ে কেন প্রধানমন্ত্রীর ছবি, সরব মুখ্যমন্ত্রী 

ইতিমধ্যেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রশ্ন তুলেছেন, কেন প্রধানমন্ত্রীর ছবি দেওয়া থাকবে রেশন দোকানে?

ইতিমধ্যেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রশ্ন তুলেছেন, কেন প্রধানমন্ত্রীর ছবি দেওয়া থাকবে রেশন দোকানে?

  • Share this:

#কলকাতা: রেশন দোকানে প্রধানমন্ত্রীর ছবি দেওয়া হোর্ডিং দিতে হবে। কেন্দ্রের এই সিদ্ধান্তের তীব্র সমালোচনা করছে রাজ্য। ইতিমধ্যেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রশ্ন তুলেছেন, কেন প্রধানমন্ত্রীর ছবি দেওয়া থাকবে রেশন দোকানে? তাঁর কথায়,৫ কেজি চাল দেবে ৩ মাসের জন্যে। তার জন্যে নাকি প্রধানমন্ত্রীর ছবি দিয়ে রেশন দোকানে হোর্ডিং দিতে হবে। এমন প্রধানমন্ত্রী আগে দেখিনি।

অন্যদিকে, প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ অন্ন যোজনার চতুর্থ পর্যায়ের রূপায়ণের জন্য তাঁরা সম্পূর্ণরূপে প্রস্তুত বলে ফুড কর্পোরেশন অফ ইন্ডিয়া জানিয়েছে। করোনা অতিমারী জনিত সংকটের আবহে গণবণ্টন এর মাধ্যমে দরিদ্র মানুষদের বিনামূল্যে খাদ্য শস্য পৌঁছে দেওয়ার লক্ষ্যে কেন্দ্রীয় সরকার প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ অন্ন যোজনা প্রকল্প হাতে নিয়েছে। গত জুন মাস পর্যন্ত এই প্রকল্পের তিনটি পর্যায়ের সফল রূপায়নের পর প্রকল্পের সময়সীমা আরও পাঁচ মাস বাড়িয়ে নভেম্বর পর্যন্ত করা হয়েছে।

ফুড কর্পোরেশন অফ ইন্ডিয়ার পশ্চিমবঙ্গের জেনারেল ম্যানেজার এস কে সয়েন জানিয়েছেন, এই পর্যায়ে বন্টন এর জন্য নয় (৯) লক্ষ মেট্রিক টনের বেশি গম এবং প্রায় ছয় লক্ষ মেট্রিক টন চাল বরাদ্দ করা হয়েছে। যা জাতীয় খাদ্য নিরাপত্তা আইনের আওতায় বিনামূল্যে বিতরণ করা হবে। এর ফলে রাজ্যে ওই আইনের আওতায় থাকা রেশন কোটির বেশি রেশন গ্রাহক প্রতিমাসে তাদের নিয়মিত বরাদ্দের অতিরিক্ত আরো ৫ কেজি করে খাদ্যশস্য পাবেন। প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ অন্ন যোজনায় প্রায় ১৫ হাজার কোটি টাকা মূল্যের  মোট ৪৫ লক্ষ মেট্রিক টন খাদ্যশস্য বণ্টনের লক্ষ্যমাত্রা নেওয়া হয়েছে।এফ সি আই এর জেনারেল ম্যানেজার জানিয়েছেন এই বিপুল পরিমাণ খাদ্যশস্য বন্টন এর জন্য পরিকাঠামো প্রস্তুত করতে দীর্ঘ প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। সাধারণ সময়ের প্রায় আড়াই গুণ বেশি পণ্য পরিবহনের উপযুক্ত যানবাহন তৈরি করা হয়েছে। মে ও জুন মাসের বরাদ্দ ৬ লক্ষ মেট্রিকটন খাদ্যশস্য ইতিমধ্যেই রাজ্য সরকারের হাতে বন্টন এর জন্য তুলে দেওয়া হয়েছে।

Published by:Pooja Basu
First published: