কলকাতা

corona virus btn
corona virus btn
Loading

বিনামূল্যে ছানি অপারেশন, ২০২৫ সালের মধ্যে সকলের চক্ষু পরীক্ষা, ফ্রি চশমা দেবে রাজ্য, ঘোষণা মমতার

বিনামূল্যে ছানি অপারেশন, ২০২৫ সালের মধ্যে সকলের চক্ষু পরীক্ষা, ফ্রি চশমা দেবে রাজ্য, ঘোষণা মমতার

কল্পতরু মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ৷ রাজ্যের সব মানুষকে স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্পের অন্তর্ভুক্ত করার ঘোষণা পর ফের রাজ্যবাসীর জন্য বড় ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর ৷

  • Share this:

#কলকাতা: কল্পতরু মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ৷ রাজ্যের সব মানুষকে স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্পের অন্তর্ভুক্ত করার ঘোষণা পর ফের রাজ্যবাসীর জন্য বড় ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর ৷ সোমবার নবান্নে সাংবাদিক সম্মেলন থেকে চোখের আলোয় প্রকল্পের ঘোষণা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের৷

এই প্রকল্পের মাধ্যমে আগামী ৫ বছরের মধ্যে রাজ্যজুড়ে সম্পূর্ণ বিনামূল্যে ২০ লক্ষ বৃদ্ধা-বৃদ্ধ, প্রবীণদের ছানি অপারেশন করাবে রাজ্য ৷ বিনামূল্যে দেওয়া হবে চশমাও ৷ প্রায় ৮ লক্ষ ২৫ হাজার মানুষকে সম্পূর্ণ ফ্রিতে চশমা দেওয়ার পরিকল্পনা করেছে রাজ্য সরকার ৷ এছাড়াও চোখের রোগের সাম্প্রতিক তথ্যের জন্যে একটি ডিজিটাল তথ্যভান্ডার তৈরি করা হবে। ২০২৫ সালের মধ্যেই এই বৃহৎ কর্মকাণ্ড সম্পন্ন করা হবে ৷

শুধু তাই নয়, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, এই প্রকল্পের পড়ুয়াদেরও অন্তর্ভুক্ত করা হবে ৷ সরকারি স্কুলের সমস্ত পড়ুয়াদের ফ্রিতে চক্ষু পরীক্ষাও করা হবে এই চোখের আলোয় প্রকল্পে ৷ স্কুলে স্কুলে গিয়ে পড়ুয়াদের চোখের চেক আপের ব্যবস্থা করবে রাজ্য সরকার ৷ চশমার দরকার পড়লে তাও বিনামূল্যে দেওয়া হবে বলে ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী ৷ ৪ লক্ষ ছাত্রছাত্রীকে বিনামূল্যে চশমা দেওয়া হবে।  শুধু স্কুল নয়, অঙ্গনওয়াড়িতে আসা শিশুদের ফ্রিতে চক্ষু পরীক্ষা করাবে রাজ্য ৷

ভবিষ্যতে নয়, মঙ্গলবার অর্থাৎ কাল থেকেই চালু হয়ে যাচ্ছে এই প্রকল্প ৷ প্রথম পর্যায়ে এক হাজার ২০০ টি গ্রাম পঞ্চায়েত এবং শহরের ১২০টি প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে এই প্রকল্প চালু হবে বলে জানা গিয়েছে। এই প্রকল্পের জন্য দরকার বহু চক্ষু বিশেষজ্ঞের ৷  ৩০০–র বেশি চোখের সার্জেন ও প্রায় ৪০০ জন অপটোমেট্রিস্ট এই কাজে যুক্ত থাকবেন। স্বাস্থ্য কর্মী ও চিকিৎসকদের নাম নথিভুক্ত করার কাজও শীঘ্রই শুরু হবে বলে জানানো হয়েছে ৷

মুখ্যমন্ত্রী জানান, ‘‌আমাদের লক্ষ্য, ‌২০২৫–এর মধ্যে সকলের চোখের স্বাস্থ্যের যত্ন নেওয়া।’‌ এই প্রকল্পের নামকরণ করেছেন খোদ মুখ্যমন্ত্রী।যদিও রাজ্যের এই প্রকল্পকে কটাক্ষ করছে বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলি। তাদের বক্তব্য ভোটের আগে এইসব গিমিক করছে প্রশাসন। সাধারণ মানুষের চোখ খুলে গেছে। তার সবকিছু দেখতে পাচ্ছেন। তবে প্রশাসনের বক্তব্য স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্প যেমন সাফল্য পেয়েছে এটিও পাবে।

আবির ঘোষাল

Published by: Elina Datta
First published: January 4, 2021, 6:29 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर