'আঙ্কেলজি, আপনি গেলেই উদ্বেগজনক পরিস্থিতির উন্নতি'! ধনখড়কে কোন পদে যোগ দেওয়ার পরামর্শ মহুয়ার?

রাজ্যপালকে কটাক্ষ মহুয়ার

রাজ্যের আইন-শৃঙ্খলা নিয়ে রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ের (Jagdeep Dhankar) ট্যুইটের এমনই ঝাঁঝালো জবাব দিলেন তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্র (Mahua Moitra) ৷ শুধু তাই নয় একের পর এক ট্যুইট-শেলে এ দিন রাজভবনে রাজ্যপালের 'পরিবারতন্ত্র' নিয়েও তীব্র কটাক্ষ করেছেন কৃষ্ণনগরের সাংসদ ৷

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি : 'একমাত্র আপনি দিল্লিতে ফিরে গিয়ে অন্য কাজ খুঁজে নিলেই রাজ্যের পরিস্থিতির উন্নতি হবে।' রাজ্যের আইন-শৃঙ্খলা নিয়ে রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ের (Jagdeep Dhankar) ট্যুইটের এমনই ঝাঁঝালো জবাব দিলেন তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্র (Mahua Moitra) ৷ শুধু তাই নয় একের পর এক ট্যুইট-শেলে এ দিন রাজভবনে রাজ্যপালের 'পরিবারতন্ত্র' নিয়েও তীব্র কটাক্ষ করেছেন কৃষ্ণনগরের সাংসদ ৷

    রবিবার সকালে ফের ট্যুইটে বিস্ফোরণ ঘটান রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড় ৷ তিনি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারের উদ্দেশ্যে লেখেন, রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি খুবই উদ্বেগজনক ৷ এই নিয়ে আলোচনার জন্য সোমবার মুখ্যসচিব হরিকৃষ্ণ দ্বিবেদীকে তলব করেছেন তিনি৷ একটি দুই পাতার বিবৃতি দিয়ে তিনি লিখেছেন, "রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি খুবই উদ্বেগজনক ৷ নিরাপত্তা ক্ষেত্রে গুরুতরভাবে আপোস করা হচ্ছে ৷ এই কঠিন সময়ে রাজ্যের আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি সম্পর্কে এবং ভোট পরবর্তী হিংসা রুখতে কী ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে তা আমাকে জানানোর জন্য সোমবার ৭ জুন মুখ্যসচিবকে ডেকে পাঠিয়েছি ৷"

    এর কয়েক ঘন্টা কাটতে না কাটতেই রাজ্যপালের ট্যুইটের জবাব দিয়ে তাঁকে কড়া ভাষায় বিঁধেছেন তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্র ৷ রাজ্যপালের ট্যুইটটি তুলে ধরে তিনি লিখেছেন, "আঙ্কেলজি, আপনার দুঃখিত মন নিয়ে আপনি দিল্লি ফিরে অন্য কাজ খুঁজে নেওয়াই পশ্চিমবঙ্গের 'উদ্বেগজনক পরিস্থিতির' উন্নতির একমাত্র পথ ৷" এমনকি পদ ও বাতলে দেন মহুয়া। তাঁর পরামর্শ হিসেবে দুটি পদের তালিকায় দিয়ে দেন রাজনৈতিক মহলে ঠোঁটকাটা হিসেবে পরিচিত এই সংসদ। যেই দুই পদের কথা তিনি বলেন সেগুলি হল, ১ সবচেয়ে ভালোভাবে কীভাবে বিরোধীদের আঘাত করতে হবে, সে ব্যাপারে মুখ্যমন্ত্রী যোগী অজয় বিশ্তের পরামর্শদাতা, ২. অতিমারিতে কতটা সুচারুভাবে লুকিয়ে থাকা যায়, সে ব্যাপারে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর পরামর্শদাতা৷"

    এখানেই থামেননি মহুয়া। এরপরে ওপর একটি ট্যুইট পোস্টে স্বজন পোষণ নিয়েও রাজ্যপালকে একহাত নেন তিনি। রাজভবনে রাজ্যপাল ধনকড় নানা পদে তাঁর পরিবারের নানা ব্যক্তিকে বসিয়ে রেখেছেন বলে তোপ দেগে তার একটি তালিকাও পোস্ট করেছেন মহুয়া৷

    অপর ট্যুইটে সেই তালিকা পোস্ট করে ক্যাপশনে তিনি লিখেছেন, "আর আঙ্কেলজি, আপনি যখন চলে যাবেন, তখন পশ্চিমবঙ্গের রাজভবনে আপনি যে সম্প্রসারিত পরিবার নিয়ে রয়েছেন, তাঁদেরও নিয়ে যাবেন৷" সেই তালিকায় উল্লেখ করা হয়েছে যে, ধনকড়ের শালার ছেলে-সহ তাঁর পরিবারের ঘনিষ্ঠ অনেকেই রাজভবনের নানা গুরুত্বপূর্ণ পদে রয়েছেন ৷
    Published by:Sanjukta Sarkar
    First published: