• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • আজ শুভ মহালয়া, দেবীপক্ষের সূচনা

আজ শুভ মহালয়া, দেবীপক্ষের সূচনা

শুভ মহালয়া আজ। পিতৃপক্ষের শেষে দেবীপক্ষের শুরু।

শুভ মহালয়া আজ। পিতৃপক্ষের শেষে দেবীপক্ষের শুরু।

শুভ মহালয়া আজ। পিতৃপক্ষের শেষে দেবীপক্ষের শুরু।

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #কলকাতা:  শুভ মহালয়া আজ। পিতৃপক্ষের শেষে দেবীপক্ষের শুরু। একই সঙ্গে শারদীয় দুর্গোৎসবের পুণ্যলগ্নেরও শুরু আজ থেকে। মহালয়ার মাধ্যমে দেবী দুর্গা আজ পা রেখেছেন মর্ত্যলোকে। বছর ঘুরে আবারও উমা দেবী আসছেন তার বাপের বাড়ি। পুরাণমতে, অশুভ অসুর শক্তির কাছে পরাভূত দেবতারা স্বর্গলোকচ্যুত হওয়ার পর চারদিকে শুরু হয় অশুভ শক্তির প্রতাপ। এই অশুভ শক্তিকে বিনাশ করতে একত্র হন দেবতারা। তখন দেবতাদের তেজরশ্মি থেকে আবির্ভূত হন অসুরবিনাশী দেবী দুর্গা। মহালয়ার সময় ঘোর অমাবস্যা থাকে। তখন দুর্গা দেবীর মহাতেজের আলোয় সেই অমাবস্যা দূর হয়। প্রতিষ্ঠা পায় শুভশক্তি।

    শাস্ত্রমতে, হিমালয়ের কৈলাশ থেকে সুদূর পথ পাড়ি দিয়ে প্রতিবছর দুর্গা দেবী আসেন সমতল ভূমির এই বাংলায়। সঙ্গে নিয়ে আসেন গণেশ, কার্তিক, লক্ষ্মী আর সরস্বতীকে। প্রতিবছরের শরৎকালে দেবী দুর্গার এই আগমন হয় নিজ ভূমিতে। বিশুদ্ধ পঞ্জিকামতে, এবার দুর্গা দেবী আসছেন ‘ঘোটক’-এ চড়ে। গমনও করবেন একই বাহনে। ফল-ছত্রভঙ্গস্তুরঙ্গমে। হিন্দু শাস্ত্রমতে দেবী দুর্গার আবাহনই মহালয়া হিসেবে পরিচিত। মহালয়া দুর্গোৎসবের একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ। ষষ্ঠী পূজার মাধ্যমে শারদীয় দুর্গোৎসবের আনুষ্ঠানিকতা শুরু হলেও মূলত আজ থেকেই পূজারীরা দুর্গা মায়ের আগমন ধ্বনি শুনতে পাবেন। হিন্দু ধর্মমতে, মহালয়ার দিনে দেব-দেবীকুল দুর্গাপূজার জন্য নিজেদের জাগ্রত করেন। শাস্ত্রীয় বিধান মতে, মহালয়ার দু’টি পর্ব রয়েছে, একটি পিতৃপক্ষ, অন্যটি দেবীপক্ষ। অমাবস্যা তিথিতে পিতৃপক্ষের শেষ হয়, আর প্রতিপদ তিথিতে শুরু হয় দেবী পক্ষের। আজ মহালয়া দিয়ে আরম্ভ হচ্ছে সেই দেবীপক্ষ। এদিন গঙ্গাতীরে প্রার্থনা করে ভক্তরা মৃত আত্মীয়স্বজন ও পূর্বপুরুষদের আত্মার মঙ্গল কামনা করেন। আজ ভোর থেকে সারাদেশে স্থায়ী অস্থায়ী দুর্গা মণ্ডপগুলোতে চণ্ডীপাঠ ও পূজা অর্চনার মাধ্যমে দুর্গা দেবীকে আহ্বান করা হবে। এভাবেই আজ মর্ত্যলোকে, আবাহন ঘটবে দেবী দুর্গার। ভক্তদের কন্ঠে উচ্চারিত হবে ‘যা দেবী সর্বভূতেষু মাতৃরূপেন সংস্থিতা, নমস্ত্যৈ নমস্ত্যৈ নমস্ত্যৈ নমোঃ নমঃ’।

    বিশুদ্ধ পঞ্জিকামতে এবার ১৯শে আশ্বিন (৬ই অক্টোবর) সায়ংকালে দেবীর বোধন হবে। এরপর ২০শে আশ্বিন (৭ই অক্টোবর) ষষ্ঠীবিহীত পূজা অনুষ্ঠিত হবে। পর্যায়ক্রমে ২১শে আশ্বিন (৮ই অক্টোবর) মহাসপ্তমী, ২২শে আশ্বিন (৯ই অক্টোবর) মহাষ্টমী, ২৩শে আশ্বিন (১০ই অক্টোবর) মহানবমী এবং ২৪শে আশ্বিন (১১ই অক্টোবর) বিজয়া দশমী ও প্রতিমা বিসর্জনের মাধ্যমে এই মহানুষ্ঠানের সমাপ্তি হবে। বাংলাদেশ পূজা উদ্‌যাপন পরিষদের হিসেবে এবার সারা দেশে ২৯,৩৯৫টি স্থায়ী, অস্থায়ী মণ্ডপে দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে যা গতবছরের তুলনায় ৩২৪টি বেশি। আর রাজধানী ঢাকায় পূজা অনুষ্ঠিত হবে ২২৯টি। এদিকে মহালয়ার মাধ্যমে আজ থেকে দুর্গাপূজার আবহ শুরু হবে। তাই চারদিকে আনন্দ আয়োজন সম্পন্ন করার তাড়া এখন সবার। চলছে শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি। খুশির আনন্দ ছুঁয়ে যাচ্ছে ঘরে ঘরে, সব বয়সী মানুষের মনে। এ উপলক্ষে সারা দেশে নেয়া হচ্ছে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা। আজ শুভ মহালয়া উপলক্ষে ঢাকেশ্বরী জাতীয় মন্দিরে মহালয়ার বিশেষ অনুষ্ঠান শুরু হবে ভোর ৬টায়। ঘট স্থাপন, চণ্ডীপাঠ, পূজা অর্চনা, আরাধনাসহ এ উপলক্ষে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। এছাড়া রাজধানীর বিভিন্ন পূজামণ্ডপসহ সারা দেশের স্থায়ী, অস্থায়ী পূজামণ্ডপগুলোতে মহালয়া উপলক্ষে নানা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে।

    First published: