• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • অধরা আম্বিয়া, রেড রোড কাণ্ডে লুক আউট নোটিস জারি

অধরা আম্বিয়া, রেড রোড কাণ্ডে লুক আউট নোটিস জারি

রেড রোডে বায়ু সেনা কর্মী খুনে অভিযুক্তরা ভিন রাজ্যে বা ভিন দেশেও পালিয়ে যেতে পারে। তাই ঘটনার একদিন বাদেই তাঁদের খোঁজে লুক আউট নোটিস জারি করল কলকাতা পুলিশ। প্রাক্তন বিধায়ক মহম্মদ সোহরাব ও তাঁর দুই ছেলে ফেরার। এই ঘটনার তদন্তে স্পেশাল ইনভেসটিগেশন টিম অর্থাৎ সিটও গঠন করা হল।

রেড রোডে বায়ু সেনা কর্মী খুনে অভিযুক্তরা ভিন রাজ্যে বা ভিন দেশেও পালিয়ে যেতে পারে। তাই ঘটনার একদিন বাদেই তাঁদের খোঁজে লুক আউট নোটিস জারি করল কলকাতা পুলিশ। প্রাক্তন বিধায়ক মহম্মদ সোহরাব ও তাঁর দুই ছেলে ফেরার। এই ঘটনার তদন্তে স্পেশাল ইনভেসটিগেশন টিম অর্থাৎ সিটও গঠন করা হল।

রেড রোডে বায়ু সেনা কর্মী খুনে অভিযুক্তরা ভিন রাজ্যে বা ভিন দেশেও পালিয়ে যেতে পারে। তাই ঘটনার একদিন বাদেই তাঁদের খোঁজে লুক আউট নোটিস জারি করল কলকাতা পুলিশ। প্রাক্তন বিধায়ক মহম্মদ সোহরাব ও তাঁর দুই ছেলে ফেরার। এই ঘটনার তদন্তে স্পেশাল ইনভেসটিগেশন টিম অর্থাৎ সিটও গঠন করা হল।

  • News18
  • Last Updated :
  • Share this:

    # কলকাতা: রেড রোডে বায়ু সেনা কর্মী খুনে অভিযুক্তরা ভিন রাজ্যে বা ভিন দেশেও পালিয়ে যেতে পারে। তাই ঘটনার একদিন বাদেই তাঁদের খোঁজে লুক আউট নোটিস জারি করল কলকাতা পুলিশ। প্রাক্তন বিধায়ক মহম্মদ সোহরাব ও তাঁর দুই ছেলে ফেরার। এই ঘটনার তদন্তে স্পেশাল ইনভেসটিগেশন টিম অর্থাৎ সিটও গঠন করা হল।

    রেড রোডকাণ্ডে সিট গঠন করল কলকাতা পুলিশ। বুধবার ঘটনার দিনই দোষীদের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থার নির্দেশ দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। এরপরই সাম্বিয়া সোহরাবের পাসপোর্ট বাজেয়াপ্ত করে পুলিশ। রেড রোডকাণ্ডে ২২ জনের বিশেষ তদন্তকারী দল গঠন করা হয়েছে ৷ নেতৃত্বে রয়েছেন ডিসি ডিডি ২- নগেন্দ্র ত্রিপাঠী ৷  বৃহস্পতিবার মহম্মদ সোহরাবের চারটি বাড়ি ও একটি হোটেলে তল্লাশি চালায় পুলিশ। ইতিমধ্যেই রেড রোড কাণ্ডে ১ জনকে আটক করেছে পুলিশ। পার্ক স্ট্রিট-রিপন স্ট্রিট চত্বর থেকে ওই যুবককে আটক করা হয় বৃহস্পতিবার। আটক যুবক ঘটনার সময় গাড়িতে ছিল বলে দাবি পুলিশের।

    পুলিশ সূত্রে খবর, বুধবার সকালে ঘটনার পরই কলকাতা ছাড়ে আম্বিয়া সোহরাব ৷ তার আগে সে  বিহারের এক ব্যক্তিকে ফোন করে ৷ মোবাইল টাওয়ারের সূত্রেই এই তথ্যই মিলেছে ৷ আম্বিয়া সোহরাবের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট থেকেও মিলেছে তথ্য ৷ বেসরকারি ব্যাঙ্ক থেকে ৩ বার টাকা তোলা হয়েছে ৷ ঘটনার পর কলকাতায় দু’বার ও ভিনরাজ্যে একবার এটিএম থেকে টাকা তুলেছেন আম্বিয়া ৷ এর থেকেই গোয়েন্দাদের সন্দেহ, আম্বিয়া ভিন রাজ্যে গা ঢাকা দিয়েছে ৷ কলকাতা পুলিশের ২টি দল তদন্তের জন্য ভিনরাজ্যে গেল ৷ এদিকে শহরে তল্লাশি চালিয়েও মহম্মদ সোহরাব ও ২ ছেলের খোঁজ মেলেনি। তাই সবার নামেই লুক আউট নোটিস জারি করা হয়েছে । দাগি আপরাধী না হলেও একজন প্রাক্তন বিধায়ককে পুলিশ কেন খুঁজে পাচ্ছে না তা নিয়েও প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে।

    First published: