শহর কলকাতায় ফিরল আবার ধারের ‘কালচার ’ !

টাকা যখন হাতে নেই তখন সংসার চালানোর জন্য ধার করাকেই বেছে নিয়েছে শহর কলকাতা ৷

টাকা যখন হাতে নেই তখন সংসার চালানোর জন্য ধার করাকেই বেছে নিয়েছে শহর কলকাতা ৷

  • Share this:

    #কলকাতা : ‘ ৫ কেজি চাল দিন .... কত হল ? বাবু ২৫০ টাকা’ ....... পকেট থেকে তিনটে ১০০ টাকার নোট দেওয়ার পরেই মনে পড়ল আটাও তো নিতে হবে ৷ তাহলে ? পকেটে টাকা তো নেই ! ১০০ টাকার নোট তো প্রায় শেষ হওয়ার পথে ৷ বাড়ি ফেরার জন্যও তো কিছু খুচরো টাকা রাখতে হবে ৷ ঠিক এই ছবিটাই এখন দেশের সর্বত্র ৷ ব্যাঙ্কে বিশাল লাইন ৷ নেই পর্যাপ্ত টাকা ৷ এটিএম কাউন্টারগুলির আজ থেকে খোলার কথা থাকলেও সেখানে নেই টাকা ৷ তাহলে এবার মানুষ কী করবে ? অগত্যা উপায় সেই ধার ৷

    হ্যাঁ, টাকা যখন হাতে নেই তখন সংসার চালানোর জন্য ধার করাকেই বেছে নিয়েছে শহর কলকাতা ৷ বুধবারের পর থেকেই বিভিন্ন জায়গায় ৫০০ টাকার বদলে পাওয়া যাচ্ছে ৪০০ টাকা ৷ এই টাকা ধারের ব্যবসা আবার জেগে উঠেছে শহর কলকাতায় ৷ অতীতে একটা সময় ছিল যখন এশহরে টাকা ধারের বিষয়টা অনেক বেশি চোখে পড়ত ৷ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির একটা ঘোষণাতেই সেই ‘কালচার’ আবার ফিরে এসেছে এশহরে ৷

    এছাড়া মুদির দোকানগুলিতেও চলছে ধারে জিনিস নেওয়ার পালা ৷ অর্থাৎ চাল, ডাল, চা পাতা, সাবান, মশলা ইত্যাদি যা যা দরকার তা এখন টাকা বাকি রেখেই কিনছেন সাধারণ মানুষ ৷ দোকানদাররাও পরিস্থিতি বুঝে খাতায় হিসেব নোট করে রাখছেন ৷ এই চরম ক্রাইসিসে যাদের হাতে পর্যাপ্ত ১০০ বা ৫০ টাকার নোট রয়েছে ৷ তাঁরাই এখন ধনী এবং সবচেয়ে সুখী মানুষ এদেশের ৷ যদিও নোট খরচ অত্যন্ত বুঝেশুনেই করতে হচ্ছে  সবাইকেই ৷ কারণ যে একটাই, ব্যাঙ্কে আপনার যতো টাকাই থাকুক না কেন, হাতে এখন খুচরো না থাকলে খাবারই যে জুটবে না আপনার !

    First published: