corona virus btn
corona virus btn
Loading

Liquor Home Delivery| মদের হোম ডেলিভারিতে সায় রাজ্যের, কী ভাবে মিলবে? জেনে নিন

Liquor Home Delivery| মদের হোম ডেলিভারিতে সায় রাজ্যের, কী ভাবে মিলবে? জেনে নিন
Representational Image

নিয়ম অনুযায়ী, সকাল ১১টা থেকে সন্ধে ৭টা পর্যন্ত মদের দোকান খোলা যাবে৷ ২৫ শতাংশ দামও বাড়ানো হয়েছে মদের, যাতে কম সংখ্যক মানুষ কেনেন৷

  • Share this:

#কলকাতা: মদের দোকান খোলায় কেন্দ্রীয় সায় মিলতেই দেশজুড়ে যা অবস্থা চলছে, তা অত্যন্ত আশঙ্কাজনক৷ আজ অর্থাত্‍ সোমবার থেকেই গ্রিন ও অরেঞ্জ জোনের পাশাপাশি রেড জোনেও খুলে গিয়েছে মদের দোকান৷ তার পর থেকেই রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় মদের দোকানে উদ্বেগজনক ভিড় চোখে পড়েছে৷ এ হেন পরিস্থিতি সামাল দিতে এ বার মদের হোম ডেলিভারিতে সায় দিল রাজ্য সরকার৷

রাজ্যের আফগারি দফতরের নোটিসে জানানো হয়েছে, মদের দোকানে ক্রেতাদের ভিড় যাতে কমে, তাই এ বার মদের দোকানে ফোন করে হোম ডেলিভারি পাওয়া যাবে৷ একই সঙ্গে অনলাইনেও কেনা যাবে মদ৷

মদের হোম ডেলিভারির ক্ষেত্রে যাবতীয় বাধা কাটাতে আইন সংশোধন করলো রাজ্য সরকার । বেঙ্গল এক্সাইস আইন ১৯০৯- এর পাঁচ নম্বর রুল সংশোধন করে হোম ডেলিভারিতে উৎসাহিত করা হয়েছে। সোমবার রাজ্যের আবগারি দপ্তরের তরফে এদিন বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে। এই বিজ্ঞপ্তিতে রাজ্যের হট স্পট গুলির বাইরে সর্বত্র মদের দোকান খুলতে বলা হয়। বেলা ১২টা থেকে ৭টা পর্যন্ত এই দোকান গুলি খোলা থাকবে । দেশি ও বিলিতি মদের ক্ষেত্রে সেই সব দোকান যেগুলি শপিং মলের মধ্যে এবং বারের সঙ্গে সম্পর্ক নেই এমন দোকান খোলা যাবে ।

"এমন যে অবস্থা হবে আমরা আগেই আচ করেছিলাম ।তাই রুল সংশোধন করে হোম ডেলিভারির ব্যবস্থা করি," বলছেন আবগারি দফতরের এক কর্তা। এদিকে মদের হোম ডেলিভারির বিষয়টি আগে পুলিশকে দিতে চেয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। এখন হোম ডেলিভারির দায়িত্বে মদের দোকানদাররাই। তবে এক্ষেত্রে হোম ডেলিভারি নিয়ে মদপ্রেমীরা খুশি। খুশি দোকান মালিকরাও । তাঁদের মতে "পরিকাঠামো নিয়ে ভাবতে হবে, এই বাজারে ডেলিভারি বয় পাওয়া দুষ্কর । তবে সিদ্ধান্ত ভালো ।"

কেন্দ্রের গাইডলাইন মেনে আজ অর্থাত্‍ সোমবার মদের দোকান খুলতেই মদ কেনার জন্য কার্যত হুড়োহুড়ি পড়ে যায় রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায়৷ রাজ্য সরকারের নির্দেশ অনুযায়ী, সকাল ১২টা থেকে সন্ধে ৭টা পর্যন্ত মদের দোকান খোলা যাবে৷ ২৫ শতাংশ দামও বাড়ানো হয়েছে মদের, যাতে কম সংখ্যক মানুষ কেনেন৷

সরকারি গাইডলাইন অনুযায়ী, মদের দোকানে ৫ জনের বেশি ক্রেতা লাইন দিতে পারবেন না৷ একজনের সঙ্গে অপরজনের মধ্যে অন্তত ৬ ফুট দূরত্ব বজায় রাখতে হবে৷ ৫টি সার্কেল এঁকে দেওয়া হবে মদের দোকানের সামনে৷ সেখানেই দাঁড়াতে হবে৷ কিন্তু বাস্তবে দেখা গেল, মদ কেনার দীর্ঘ লাইনে এ ওর গায়ে পড়ছে৷ চলছে বিস্তর ঠেলাঠেলি৷ মারপিট৷

Published by: Arindam Gupta
First published: May 4, 2020, 10:31 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर