কলকাতা

?>
corona virus btn
corona virus btn
Loading

১১ বছর পর চালু হয়েও যাত্রী সঙ্কট! কলকাতা-লন্ডন সরাসরি বিমান চালু রাখতে আগ্রহী রাজ্য

১১ বছর পর চালু হয়েও যাত্রী সঙ্কট! কলকাতা-লন্ডন সরাসরি বিমান চালু রাখতে আগ্রহী রাজ্য

প্রসঙ্গত দীর্ঘ ১১ বছর পরে কলকাতা থেকে লন্ডন সরাসরি বিমান পরিষেবা চালু করা হয়। যদিও স্লট নিয়ে সমস্যা তৈরি হয়েছে গত কয়েকদিন ধরে।

  • Share this:

ABIR GHOSHAL

#কলকাতা: কলকাতা থেকে ইউরোপ সরাসরি বিমান পরিবহন স্থগিত যাতে না হয় তার জন্যে কেন্দ্রীয় সরকারের অসামরিক বিমান পরিবহন মন্ত্রকের কাছে অনুরোধ জানাল রাজ্য সরকার। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় জানিয়েছেন, রাজ্যের তরফে মুখ্যসচিব চিঠি দেবেন কেন্দ্রীয় অসামরিক বিমান পরিবহন মন্ত্রকের কাছে। রাজ্য সরকার কলকাতা থেকে লন্ডন সরাসরি বিমান পরিষেবা বজায় রাখার জন্যে সমস্ত ধরণের সুবিধা রাজ্য সরকার দেবে বলেও মুখ্যমন্ত্রী এ দিন জানিয়েছেন।

প্রসঙ্গত দীর্ঘ ১১ বছর পরে কলকাতা থেকে লন্ডন সরাসরি বিমান পরিষেবা চালু করা হয়। যদিও স্লট নিয়ে সমস্যা তৈরি হয়েছে গত কয়েকদিন ধরে। লন্ডন থেকে কলকাতা এয়ার ইন্ডিয়ার সরাসরি উড়ানে গত ১৭ সেপ্টেম্বর গভীর রাতে শহরে এসে পৌঁছেছিলেন মাত্র ১৪ জন যাত্রী ৷ পরেরদিন ভোরে অবশ্য কলকাতা থেকে লন্ডনের উদ্দেশ্যে ওই বিমানে ১১৪ জন যাত্রী রওনা হন ৷ বোয়িং-৭৮৭-৮ ড্রিমলাইনারের মতো বড় বিমানে এত কম সংখ্যায় যাত্রী হলে বিমানসংস্থার জন্য তা যথেষ্ট চিন্তার বিষয় ৷ জানা গিয়েছে, সবমিলিয়ে ২৮ জন যাত্রী টিকিট কাটলেও সময় মতো কোভিড নেগেটিভ সার্টিফিকেট জোগাড় করতে না-পারায় লন্ডন-কলকাতা সরাসরি উড়ানে যাত্রা করতে পারেন মাত্র ১৪ জন যাত্রীই। নিয়ম অনুযায়ী বিমান ছাড়ার আগে ৯৬ ঘণ্টার মধ্যে কোভিড টেস্ট করাতে হবে ৷ এবং তার সার্টিফিকেট লাগবে ৷ সেটা করে উঠতে না পারায় বেশ কয়েকজন যাত্রীই লন্ডন-কলকাতার বিমানে ওইদিন বসতে পারেননি ৷

ওই সপ্তাহে পরবর্তী  উড়ানে লন্ডন থেকে কলকাতা এসেছেন ১৪ জন যাত্রী ৷ তাঁদের মধ্যে ১২ জন ইকনমি ক্লাসে ৷ বাকি দু’জন ছিলেন বিজনেস ক্লাস প্যাসেঞ্জার ৷ এ দিকে তারপরে, ঘটে নতুন বিপত্তি ৷ কথা ছিল, ফ্লাইট ছাড়বে ভোর ৬টা ১০ মিনিটে। কিন্তু বাস্তবে তা হল না। এমনকী, কলকাতা থেকে সরাসরি লন্ডন যাওয়াও হল না। সকাল ১০টায় উড়ান গেল রাজধানী দিল্লি। সেখান থেকে গেল লন্ডন। কারণ একটাই, লক্ষ্মীর অনুপস্থিতি। যে হারে যাত্রী হবে ভাবা গিয়েছিল, তা তো হলই না। উল্টে মাত্র জনা কুড়ি যাত্রী নিয়ে বিমান উড়ল দিল্লির উদ্দেশে। তা-ও বিমান ছাড়ল চার ঘণ্টা দেরিতে। সকাল দশটায়। তারপর ওখান থেকে আরও যাত্রী যোগ করে মোট ৬৬ জন যাত্রী নিয়ে বিমান রওনা দিল লন্ডনের উদ্দেশে। এখানেই ব্যর্থতার শেষ নয়, যে উড়ান রাত দু'টোয় লন্ডন থেকে কলকাতা এল, তারও অবস্থা তথৈবচ। মাত্র ১৪ জন যাত্রী নিয়ে ওই বিমানটি এল লন্ডন থেকে।

প্রায় এক যুগ পর ফের কলকাতা-লন্ডন সরাসরি উড়ান শুরু হয়েছে। কলকাতা থেকে এক সময় নিয়মিত লন্ডনের সরাসরি উড়ান ছিল। এয়ার ইন্ডিয়া ছাড়া ব্রিটিশ এয়ারওয়েজও সেই উড়ান চালাত। কিন্তু লোকসান হওয়ায় ২০০৯ সালে বন্ধ হয়ে যায় কলকাতা-লন্ডন উড়ান। ১১ বছর পর আবার চালু হচ্ছে কলকাতা-লন্ডন সরাসরি উড়ান। বৃহস্পতি ও রবিবার কলকাতা থেকে বিমান উড়বে ৷ লন্ডন থেকে বিমান উড়বে বুধ ও শনিবার ৷ কলকাতা-লন্ডন সরাসরি বিমান পরিষেবা চালু হওয়ায় শিল্প মানচিত্রে রাজ্যের ছবিটাও উজ্জ্বল হওয়ার আশা। এ দিন মুখ্যমন্ত্রী স্পষ্ট করেছেন, বিমান মন্ত্রককেও ব্যবস্থা নিতে হবে। র‍্যাপিড টেস্ট করে যাত্রী এলে তাদের পক্ষে সুবিধা হবে। বিমানবন্দরে নামার পরে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা রাজ্য সরকার নেবে। কোনও ভাবেই কলকাতা-ইউরোপ বিমান যাতে সরাসরি বন্ধ না হয় সেদিকে নজর রাখতে চায় রাজ্য সরকার।

Published by: Simli Raha
First published: October 13, 2020, 5:49 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर