ছবি এঁকে এনআরসি-র প্রতিবাদ সুজন, সেলিম, বিকাশের

ছবি এঁকে এনআরসি-র প্রতিবাদ সুজন, সেলিম, বিকাশের

ছবি একে এনআরসি-র প্রতিবাদ করলেন সেলিম সুজন বিকাশ

  • Share this:
#কলকাতা: চিত্রকররা রং-তুলিতেই প্রতিবাদ করে থাকেন। এবার প্রতিবাদের সেই রং-তুলি হাতে তুলে নিলেন রাজনীতিকরা। শুক্রবার পার্কসার্কাসে এনআরসি বিরোধী অবস্থানে যোগ দিতে যান রাজ্য় বিধানসভার বিরোধী দলনেতা আবদুল মান্নান, সিপিএমের পলিটব্যুরো সদস্য মহম্মদ সেলিম, কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য সুজন চক্রবর্তী এবং কলকাতার প্রাক্তন মেয়র বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য। অবস্থানে যোগ দিয়ে ক্য়ানভাসে ছবি এঁকে প্রতিবাদ শুরু করেছিলেন ওয়াসিম কাপুর-সহ বেশ কয়েকজন চিত্রশিল্পী। সেই শিল্পীদের প্রতিবাদকে সমর্থন জনাতে রং-তুলি হাতে তুলে নেন সিপিএম নেতারাও।
একে একে মহম্মদ সেলিম, বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য, সুজন চক্রবর্তী রং তুলি নিয়ে ক্যানভাসে প্রতিবাদ শুরু করেন। নতুন আঙ্গিকে প্রতিবাদ জানানোর পদ্ধতিকে স্বাগত জানিয়েছেন তাঁরা। রাজ্য় বিধানসভার বাম পরিষদীয় দলনেতা সুজন চক্রবর্তী বলেন, 'ছবি কথা বলে। শব্দের সাহায্যে যেমন কথা বলা যায় তেমনই ছবি দিয়েও কথা বলা যায়। প্রতিবাদ করা যায়। যত দিন যাবে, এনআরসির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ আরও তীব্র হবে। আর সৃজনশীলতার মাধ্যমে প্রতিবাদ যে কোনও আন্দোলনকে অন্যমাত্রা দিয়ে থাকে।' সিপিএমের পলিটব্যুরো সদস্য মহম্মদ সেলিমের মতে, "জেএনইউ থেকে আজাদি শ্লোগান বন্ধ করতে গিয়ে এখন সারা দেশে সেই কথাই উচ্চারিত হচ্ছে।" বিকাশ ভট্টাচার্যের বক্তব্য, "ছবি এঁকেছি বললে ভুল হবে। চেষ্টা করেছি মাত্র। তবে এর মধ্যে দিয়ে যে প্রতিবাদ করার কথা, সেটা করা গিয়েছে।"
প্রতিবাদের এক অন্য মাধ্যম ছবি। বিভিন্ন সময় বিভিন্ন জায়গায় এই রকম ভাবেই প্রতিবাদ করার দৃষ্টান্ত রয়েছে। শুক্রবারের কর্মসূচি তারই একটা অঙ্গ বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল। ছবির পাশাপাশি এদিন ক্যানভাসে সইও সংগ্রহ করা হয়। ওয়াসিম কাপুর বলেন, 'এনআরসির বিরুদ্ধে আন্দোলনে আমরা ছবি আঁকছি। আমি একজন চিত্রকর হিসেবে এর চাইতে আর বেশি কী বা করতে পারি ! একই সঙ্গে এখানে সই সংগ্রহও করা হচ্ছে। আমি চাই এখানে এত সই হোক যে আমার কালো জামার মতো চেহারা হোক ক্যানভাসের। আমরা এটা দেশের রাষ্ট্রপতির কাছে পৌঁছে দেব।' পার্কসার্কাসের অবস্থান মঞ্চে ছবি আঁকা ছাড়াও কবিতা নাটক গানও হয়।
উজ্জ্বল রায়
First published: February 15, 2020, 2:26 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर