অমিত শাহের বাংলায় NRC-তত্ত্বের বিরোধিতায় চরম সুর সুজন ও সুব্রতর গলায়

অমিত শাহের তীব্র সমালোচনা করে বামনেতা সুজন চক্রবর্তী বলেন, 'বাংলায় এনআরসি নেব না৷ গরিবের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা বিজেপি-র৷ রাজ্যের মানুষ এনআরসি-র বিরুদ্ধে একজোট৷ বাংলায় ডিটেনশন ক্যাম্প করতে দেব না৷ জনরোষেই সেই ক্যাম্প গুঁড়িয়ে দেওয়া হবে৷'

Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Oct 17, 2019 01:40 PM IST
অমিত শাহের বাংলায় NRC-তত্ত্বের বিরোধিতায় চরম সুর সুজন ও সুব্রতর গলায়
সুজন চক্রবর্তী ও সুব্রত মুখোপাধ্যায়
Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Oct 17, 2019 01:40 PM IST

#কলকাতা: এনআরসি নিয়ে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের বক্তব্যের বিরুদ্ধে তীব্র সুর চড়াল রাজ্যের শাসক ও বিরোধীদল একযোগে৷ বাম পরিষদীয় নেতা সুজন চক্রবর্তীর হুঁশিয়ারি, 'বাংলায় এনআরসি মেনে নেব না৷ রাজ্যের মানুষ এনআরসি-র বিরুদ্ধে একজোট৷' তৃণমূল কংগ্রেস নেতা সুব্রত মুখোপাধ্যায়ের কটাক্ষ, রাজ্যের মানুষ জানে, কাকে ভোট দেব৷ কাকে বর্জন করব৷ তিনি বলেন, 'রাজ্যে এনআরসি হবে না৷ এনআরসি যদি হয়, তা হলে নন-এনআরসিদের ১০০ শতাংশ ভোট মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় পাবে৷ তাতে মমতার লাভ হবে৷'

অমিত শাহের তীব্র সমালোচনা করে বামনেতা সুজন চক্রবর্তী বলেন, 'বাংলায় এনআরসি নেব না৷ গরিবের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা বিজেপি-র৷ রাজ্যের মানুষ এনআরসি-র বিরুদ্ধে একজোট৷ বাংলায় ডিটেনশন ক্যাম্প করতে দেব না৷ জনরোষেই সেই ক্যাম্প গুঁড়িয়ে দেওয়া হবে৷'

News18 নেটওয়ার্কের এডিটর ইন চিফ রাহুল জোশিকে দেওয়া এক্সক্লুসিভ সাক্ষাত্‍কারে বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ জানান, ২০২৪ সালের আগেই দেশজুড়ে এনআরসি হবে৷ বাংলায় ভোটের ইস্যু হবে এনআরসি৷ দেশের বিভিন্ন এলাকায় ডিটেনশন ক্যাম্প করা হয়েছে। প্রতিবেশী দেশ থেকে মুসলিমরা এসেছেন। সেই মুসলিমরা শরনার্থীর মর্যাদা পাবেন না।

অমিত শাহ বলেন, 'অ-মুসলিম শরণার্থীদের মর্যাদা৷ পাকিস্তান-বাংলাদেশে হিন্দুরা বৈষম্যের শিকার৷ দেশভাগের সময় দু'দেশে ৩০ শতাংশ হিন্দু ছিলেন৷ বর্তমানে দু'দেশে মাত্র ৬ শতাংশ হিন্দুর বাস৷'

First published: 01:40:24 PM Oct 17, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर