corona virus btn
corona virus btn
Loading

শরীরে ঢুকছে বিষ, কলকাতার রাস্তার খাবারে মাত্রাতিরিক্ত ধাতব সীসা !

শরীরে ঢুকছে বিষ, কলকাতার রাস্তার খাবারে মাত্রাতিরিক্ত ধাতব সীসা !
Kolkata Street Food

কাঁচা সব্জি থেকে শুরু করে মশলা। সবেতেই মাত্রাতিরিক্ত ধাতব সীসা ডেকে আনছে শরীরের বিপদ।

  • Share this:
#কলকাতা: কলকাতার রাস্তায় বিক্রি হওয়া খাবার বা মাছ-মাংস। কাঁচা সব্জি থেকে শুরু করে মশলা। সবেতেই মাত্রাতিরিক্ত ধাতব সীসা ডেকে আনছে শরীরের বিপদ। দু'বছর ধরে চলা জিওলজিক্যাল সার্ভে অফ ইন্ডিয়ার সমীক্ষায় উঠে এসেছে এমনই তথ্য।
কীভাবে পরীক্ষা ?
--------------------------
- নমুনা হিসেবে চাল, মুসুর ডাল, শাক, মাংস, আঁশছাড়া মাছ, বিস্কুট, মশলা (জিরা) সংগ্রহ 
- ধাপা এলাকা, ইএম বাইপাস এলাকা থেকে মাটি ও সবজি সংগ্রহ 
- কলকাতার বিভিন্ন এলাকা থেকে রাস্তার ধুলো সংগ্রহ 
- এছাড়াও বৃষ্টির জল ও ডিজেলের নমুনা সংগ্রহ 
নমুনা পরীক্ষা করে দেখা গিয়েছে, খাবারে ধাতব সীসার পরিমাণ যা থাকা উচিত তার থেকে অনেকটাই বেশি আছে। ফুড সেফটি অ্যান্ড স্ট্যান্ডার্ড রেগুলেশন (২০১১) ইন্ডিয়ার রিপোর্ট অনুযায়ী খাবারে ধাতব সীসার পরিমাণ থাকা উচিত প্রতি কেজিতে গড়ে ২.৫ মিলিগ্রাম। সেখানে ধাতব সীসা মিলেছে প্রতি কেজিতে গড়ে প্রায় ২৩.৫৬ মিলিগ্রাম। সর্বোচ্চ ৪৩.৩৫ মিলিগ্রাম পর্যন্ত পাওয়া গেছে।
শরীরে ঢুকছে বিষ 
-------------------------
ধাতব সীসা মিলেছে                      নমুনা (প্রতি কেজি) 
------------------                              -------------------
চাল                                                      ১৪. ৩৯ মিলিগ্রাম
সবজি                                                 ৩.২৮-১৪৫.৪৭ মিলিগ্রাম 
শাক                                                  ১.৮২-৭.৪৪ মিলিগ্রাম
মাছ                                                  ১.৩৩-১৭.৮০ মিলিগ্রাম 
মুরগির মাংস                                      ৯.৫৮ মিলিগ্রাম 
গোটা জিরে                                      ৩১.২৫ মিলিগ্রাম 
তুলসি                                              ৮.৯২-৩৩.২৭ মিলিগ্রাম 
গড়ে প্রতি কেজিতে থাকার কথা- ২.৫ মিিলগ্রাম
কীভাবে মিশছে বিষ ?
--------------------------
জিএসআই-র রিপোর্ট অনুযায়ী, স্ট্রিট ফুডের কাঁচামালে ধাতব সীসার প্রায় ৭৫ %  মিশছে ডিজেল থেকে।
বিশেষজ্ঞদের প্রশ্ন, কাঁচা সবজি বা অন্যান্য ব্যবহৃত সামগ্রীতে যদি বিষ মেশে, তা দিয়ে রান্না করা খাবার কীভাবে নিরাপদ হতে পারে ? GSI-র রিপোর্টে উল্লেখ রয়েছে ৷
কীভাবে মুক্তি
-------------------------
- ডিজেলের বিকল্প ব্যবহারে জোর
- যানবাহনে এলপিজি, সিএনজি ব্যবহার
- সৌরশক্তির ব্যবহার বৃদ্ধি
এর আগে ওয়ার্ল্ড হেলথ অর্গানাইজেশন বা  WHO-র রিপোর্টে কলকাতা স্ট্রিট ফুড-কে স্বাস্থ্যকর বলে উল্লেখ করা হলেও GSI-এর এই রিপোর্ট চিন্তা বাড়াচ্ছে বিশেষজ্ঞদের।
First published: October 22, 2017, 6:33 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर