• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • LAST 5 YEARS PETROL PRICE HIKE MANY TIMES BUT NO COMMISSION INCREASED PUMP OWNERS ARE DISAPPOINTED PBD

EXCLUSIVE: পাঁচ বছরে বহুগুণ পেট্রোল-ডিজেলের দাম বাড়লেও, ১টাকাও বাড়েনি কমিশন, ক্ষুব্ধ পাম্প মালিকরা

তবে শুধু মালিকরাই নন, পাম্পের কর্মীরাও সরব হয়েছেন৷

তবে শুধু মালিকরাই নন, পাম্পের কর্মীরাও সরব হয়েছেন৷

  • Share this:

#কলকাতা: গত পাঁচ বছরে অনেকটাই বেড়েছে পেট্রোল-ডিজেলের দাম।অথচ পাম্প ডিলারদের কমিশন এক টাকাও বাড়েনি। অভিযোগে সরব হলেন পাম্প মালিকরা। ক্রমাগত মূল্যবৃদ্ধির জেরে বিক্রি অনেকটাই কমেছে। বিশেষ করে করোনা আবহে অনেক পেট্রোলপাম্পই এখন কার্যত ধুঁকছে। কমিশন একটাকাও না বাড়লেও আনুষাঙ্গিক বিভিন্ন ঝক্কি-ঝামেলা ও পাম্প পরিচালনার ক্ষেত্রে নানান খরচ দিন দিন বেড়েই চলেছে। এমনটাই অভিযোগ পেট্রোল পাম্প মালিকদের। সেঞ্চুরি পার করেছে পেট্রোল। আর ডিজেল সেঞ্চুরি ছুঁই ছুঁই। এই অবস্থায় কলকাতা কিম্বা রাজ্যের পেট্রোলপাম্পগুলির মালিকদের একাংশের বক্তব্য,' গত কয়েকদিনে যেভাবে আকাশছোঁয়া দামে পৌঁছেছে তেলের দাম তার জেরে প্রতিদিনের তেল বিক্রির হিসেব আমাদের কপালের চিন্তার ভাঁজ ক্রমেই বাড়াছে।

মালিকপক্ষের তরফে দক্ষিণ কলকাতার একটি পেট্রোল পাম্পের মালিক অপু পাল চৌধুরীর কথায়,' প্রায় প্রতিদিনই পাম্প পরিচালনার ক্ষেত্রে আনুষঙ্গিক খরচ খরচা বাড়ছে। অথচ আমাদের কমিশন নিয়ে কারও কোনও মাথা ব্যথা নেই। স্বাভাবিকভাবেই যা পরিস্থিতি তাতে কর্মীদের বেতন দেওয়াই প্রায় অসম্ভব হয়ে উঠেছে। শুধুমাত্র মানবিকতার খাতিরে আমরা ওদের বেতন বন্ধ করছি না'। অপর এক পাম্প মালিক বললেন,' যা অবস্থা দাঁড়িয়েছে তাতে ব্যবসা থেকে রোজগারের টাকা থেকে নয়, ঘর থেকে ব্যবসার টাকা মেটাতে হচ্ছে'। পরিস্থিতি অনেকটাই স্বাভাবিক হবে যদি পেট্রোপণ্যের ওপর জিএসটি লাগু করে দেওয়া হয়। এও বলছেন অনেক পেট্রোল পাম্প মালিক।

পেট্রোল-ডিজেলের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে এবার সরব পেট্রোল পাম্প মালিকরাও। যেভাবে প্রতিদিন লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে পেট্রোপণ্যের দাম তাতে ব্যবসা টিকিয়ে রাখাই এখন সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে পাম্প মালিকদের কাছে। প্রতিবাদ হিসেবে বুধবার প্রতীকী ধর্মঘটে সামিল হন পাম্প মালিকদের সংগঠন। বুধবার সন্ধ্যা সাতটা থেকে সাড়ে সাতটা পর্যন্ত পরিষেবা বন্ধ রেখে আন্দোলনে সামিল হন পেট্রোল পাম্প মালিকরা।

তবে শুধু মালিকরাই নন, পাম্পের কর্মীদেরও  কালো ব্যাজ পড়ে প্রতিবাদে সামিল হতে দেখা যায়। ওয়েস্টবেঙ্গল পেট্রোলিয়াম ডিলার অ্যাসোসিয়েশনের সহ সভাপতি স্নেহাশীষ ভৌমিকের অভিযোগ,' সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে বারবার আমাদের তরফ থেকে আবেদন-নিবেদন করা হয়েছে কমিশন বাড়ানোর বিষয়ে। কিন্তু আজও আমরা এ ব্যাপারে কোনও রকম সাড়া পাইনি। পাঁচ বছর আগেও তেল বিক্রি করে  যা আমরা কমিশন পেতাম, আজও তাইই পাই। কিন্তু বর্তমানে পেট্রোল-ডিজেলের দাম যে জায়গায় পৌঁছেছে তাতে  আমাদেরও নাভিশ্বাস উঠেছে'। পেট্রোল ডিজেল বিক্রি করে কমিশনের বিষয়ে শীঘ্রই আন্দোলনে নামার হুঁশিয়ারি দিয়েছে ডিলার অ্যাসোসিয়েশন।

Published by:Pooja Basu
First published: