• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • KOLKATAS IDOL MAKER BECOMES FIRST TO SEND DURGA IDOL OVERSEAS AMID THE COVID 19 OUTBREAK RC

Durga Puja 2021: করোনাকালে প্রথম জার্মানি পাড়ি দিচ্ছে দুর্গামূর্তি, কুমোরটুলিতে আশার আলো!

জার্মানি যাচ্ছে এই মূর্তি।

বাংলার সবচেয়ে বড় উৎসবের আগে দুশ্চিন্তা কাটছে না কুমোরটুলির (Kolkata Kumartuli) দুর্গামূর্তি (Durga Puja 2021) নির্মাণকারীদের।

  • Share this:

    #কলকাতা: এবারের দুর্গাপুজোতেও করোনাভাইরাসের (Coronavirus India) ভ্রুকুটি রয়েছে। এখনও করোনার তৃতীয় ঢেউয়ের (Coronavirus 3rd Wave) আশঙ্কা রয়েছে দেশজুড়ে। ফলে বাংলার সবচেয়ে বড় উৎসবের আগে দুশ্চিন্তা কাটছে না কুমোরটুলির (Kolkata Kumartuli) দুর্গামূর্তি (Durga Puja 2021) নির্মাণকারীদের। তবের এরই মধ্যে আশার আলো। সম্প্রতি কুমোরটুলিতে বুকিং হয়েছে প্রথম বিদেশে পাড়ি দেওয়ার জন্য দুর্গার মূর্তি। সম্পূর্ণ ফাইবার দিয়ে তৈরি করা হয়েছে এই মূর্তিটি, যাবে জার্মানিতে।

    সংবাদসংস্থাকে এই মূর্তির নির্মাণকারী মিন্টু পাল জানিয়েছেন, 'এ বছর আমি দুটো অর্ডার পেয়েছি। একটি যাবে নিউ জার্সি, অন্যটি জার্মাবির বার্লিন যাওয়ার জন্য তৈরি।' এই মূর্তিগুলি সবই তৈরি হচ্ছে ফাইবার গ্লাস দিয়ে। একেকটি মূর্তির দাম প্রায় দেড় লক্ষ টাকারও বেশি। তিনি আরও জানিয়েছেন, 'এই মূর্তি সম্পূর্ণ ভাবে ফাইবার গ্লাস দিয়ে তৈরি করা হয়েছে। জাহাজে করে প্রায় দু মাস ধরে জার্মানি পৌঁছবে মূর্তিটি।' গত জানুয়ারিতে অর্ডার এসেছিল এই জার্মানি যাওয়ার মূর্তিটির। এবার সেটি যাওয়ার জন্য তৈরি।

    করোনার কালবেলায় খুব কমই অর্ডার আসছে দুর্গামূর্তির। মিন্টু পালের কথায়, 'এ বছরও বড় মূর্তির পরিবর্তে ছোট মূর্তির চাহিদা রয়েছে।' প্রতি অন্য বছরে তাঁর কাছেই ৬-৮টি দুর্গামূর্তির অর্ডার আসে, তবে এবার এসেছে মাত্র দুিট। মিন্টু পাল জানিয়েছেন, 'গত বছরও করোনার মধ্যেই পাঁচটি দুর্গামূর্তি বিদেশে পাঠিয়েছিলাম। গিয়েছিল সুইৎজারল্যান্ড, ব্রিটেন, আমেরিকা, ফ্রান্স, বেজিং।' তবে এবছরও যে করোনার জন্যই মানুষের উৎসাহ কম, বিশ্বাস করেন মৃৎশিল্পী।

    শিল্পীর দাবি, 'পূজা কমিটির সদস্যরা করোনার জন্যই পুজোর ব্যাপারে উৎসাহী নন। তবে বিদেশে সামান্য চাহিদা তৈরি হয়েছে। তবে আশা করি কিছুদিনের মধ্যে এখানেও পরিস্থিতির বদল হবে। আর কয়েক মাসই তো বাকি পুজোর।' নিলম পাল নামের আরেক শিল্পী এখনও কোনও অর্ডার পাননি। করোনার কারণে বাড়ি থেকেই কেউ বেরোতে চাইছেন না লক্ষ্য করেছেন তিনি। তবুও ঝুঁকি নিয়েই ১৫-১৬টি দুর্গামূর্তি তৈরি করেছেন তিনি। যদিও একটিরেও বায়না হয়নি এখনও। এ বছর ১১ থেকে ১৫ অক্টোবর পড়েছে বাঙালির দুর্গাপুজোর সময়।

    Published by:Raima Chakraborty
    First published: