corona virus btn
corona virus btn
Loading

রাজ্যসভার ষষ্ঠ আসনে লড়াইয়ে কংগ্রেসকে সমর্থন তৃণমূলের

রাজ্যসভার ষষ্ঠ আসনে লড়াইয়ে কংগ্রেসকে সমর্থন তৃণমূলের

রাজ্যসভার ষষ্ঠ আসনে লড়াইয়ে কংগ্রেসকে সমর্থন তৃণমূলের

  • Share this:

#কলকাতা: মমতার চালে রাজ্য রাজনীতিতে আরও একঘরে হয়ে পড়ল সিপিএম। রাজ্যসভার ষষ্ঠ আসনে লড়াই কংগ্রেসের প্রদীপ ভট্টাচার্যর সঙ্গে সিপিএমের বিকাশ ভট্টাচার্যর। মুখ্যমন্ত্রী স্পষ্টই জানিয়ে দিয়েছেন, তৃণমূলের অতিরিক্ত ভোট তাঁরা দেবেন প্রদীপ ভট্টাচার্যকেই।

সীতারাম ইয়েচুরিকে রাজ্যসভায় প্রার্থী করতে চেয়েছিল সিপিএমের বঙ্গ ব্রিগেড। কিন্তু সে চেষ্টা ভেস্তে দেয় দলের কেন্দ্রীয় কমিটি। সিপিএম সীতারামকে প্রার্থী করছে কিনা, সে দিকে নজর রেখেছিল কংগ্রেস হাইকমান্ড। সিপিএম সীতারামকে প্রার্থী না করার সিদ্ধান্ত নিতেই কংগ্রেস জানিয়ে দেয়, রাজ্যসভার ষষ্ঠ আসনে তাদের প্রার্থী প্রদীপ ভট্টাচার্য। শুক্রবার বিকাশ ভট্টাচার্যকে প্রার্থী করার সিদ্ধান্ত নেয় রাজ্য বামফ্রন্ট৷ বিমান বসু  বলেন, সর্বসম্মত হল না, তাই আমাদের উপায় ছিল না ৷

এরপরেই তৃণমূলনেত্রীর মাস্টারস্ট্রোক। বিধানসভায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়ে দিলেন কংগ্রেস প্রার্থীকেই সমর্থন করবে তৃণমূল। বিধানসভায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন,

‘তৃণমূল ৫ প্রার্থী দিয়েছে ৷ ষষ্ঠ আসনে কংগ্রেস প্রার্থী প্রদীপ ভট্টাচার্যকে সমর্থন করব ৷ রাজ্য থেকে ৬টি আসনেই জিতব ৷’ রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে একসঙ্গে আন্দোলন চালাচ্ছে বাম-কংগ্রেস। কিন্তু রাজ্যসভার ষষ্ঠ আসনে দুপক্ষ মুখোমুখি। আর তৃণমূলনেত্রী কংগ্রেসের দিকে সমর্থনের হাতটা বাড়িয়ে বাম-কংগ্রেস ঐক্যকেই ভেঙে দিতে চাইলেন। অস্বস্তিকর প্রশ্নটা অবশ্য এড়িয়ে যেতে চাইলেন কংগ্রেস প্রার্থী প্রদীপ ভট্টাচার্য।

শুধু কংগ্রেস প্রার্থীকে সমর্থনের কথা ঘোষনা করেই থামেননি মুখ্যমন্ত্রী। তাঁর মন্তব্য, সীতারামকে প্রার্থী করলে সমর্থনের কথা জানিয়েছিল কংগ্রেস। সীতারাম প্রার্থী না হওয়ায় কংগ্রেস প্রার্থীকেই সমর্থন করা উচিত ছিল সিপিএমের।

তৃণমূলনেত্রীর প্রশ্ন, বাম প্রার্থী বিকাশ ভট্টাচার্য কলকাতার মেয়র ছিলেন, তিনি কী করে অরাজনৈতিক প্রার্থী হন।

শুক্রবারই ছিল মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ দিন। এদিনই মনোনয়নপত্র জমা দেন কংগ্রেস প্রার্থী প্রদীপ ভট্টাচার্য। সময়ে নথি জমা নিয়ে কিছুটা জটিলতা তৈরি হলেও শেষ পর্যন্ত বাম প্রার্থী বিকাশ ভট্টাচার্যও মনোনয়নপত্র জমা দেন।

হার নিশ্চিত জেনেও কারাত শিবিরের চাপে আলাদা প্রার্থী দিয়েছে সিপিআইএম। বামফ্রন্ট চেয়ারম্যান বিমান বসুর আশা, কংগ্রেসের বেশ কিছু বিধায়ক হয়তো তাঁদের প্রার্থীকে ভোট দেবেন। মুখে একথা বললেও বাম নেতাদের বডি ল্যাঙ্গুয়েজই বুঝিয়ে দিচ্ছে, রাজ্যসভা ভোটে প্রার্থীপদ নিয়ে নাটক রাজ্য রাজনীতিতে তাদের আরও একঘরে করে দিল।

First published: July 28, 2017, 5:49 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर