• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • ভাঙতে নারাজ রাজ্য, পোস্তা উড়ালপুল দিয়ে হাল্কা যানবাহন চালানোর ভাবনা

ভাঙতে নারাজ রাজ্য, পোস্তা উড়ালপুল দিয়ে হাল্কা যানবাহন চালানোর ভাবনা

একদিকে বিপুল খরচ। অন্যদিকে ধুলোয় স্থানীয়দের ক্ষতির আশঙ্কা। দুই-এর চাপে পোস্তা উড়ালপুল সম্পূর্ণ ভাঙতে নারাজ রাজ্য।

একদিকে বিপুল খরচ। অন্যদিকে ধুলোয় স্থানীয়দের ক্ষতির আশঙ্কা। দুই-এর চাপে পোস্তা উড়ালপুল সম্পূর্ণ ভাঙতে নারাজ রাজ্য।

একদিকে বিপুল খরচ। অন্যদিকে ধুলোয় স্থানীয়দের ক্ষতির আশঙ্কা। দুই-এর চাপে পোস্তা উড়ালপুল সম্পূর্ণ ভাঙতে নারাজ রাজ্য।

  • Share this:

    #কলকাতা: একদিকে বিপুল খরচ। অন্যদিকে ধুলোয় স্থানীয়দের ক্ষতির আশঙ্কা। দুই-এর চাপে পোস্তা উড়ালপুল সম্পূর্ণ ভাঙতে নারাজ রাজ্য। তার বদলে পোস্তা উড়ালপুলের অক্ষত অংশে বাইক,অটো, রিকসার মত হালকা গাড়ি চালানোর ভাবনাচিন্তা শুরু হয়েছে। ইতিমধ্যেই রাজ্যকে জমা দেওয়া প্রাথমিক রিপোর্টে বিবেকানন্দ উড়ালপুল দিয়ে গাড়ি চলা সম্ভব নয় বলে জানিয়ে দিয়েছে খড়গপুর আইআইটির বিশেষজ্ঞ কমিটি। কমিটিকে দ্রুত চূড়ান্ত রিপোর্ট জমা দিতে বলা হয়েছে। তারপরই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে রাজ্য।

    বছর ঘুরতে চললেও এখনও অনিশ্চিত পোস্তা উড়ালপুলের ভবিষ্যত। প্রাথমিক রিপোর্টে বিবেকানন্দ উড়ালপুল দিয়ে গাড়ি চলা সম্ভব নয় বলে আগেই জানিয়েছে খড়গপুর আইআইটি। একই দাবি বিশেষজ্ঞ সংস্থা রাইটসেরও। ভাঙা বিবেকানন্দ উড়ালপুলের রক্ষণাবেক্ষণই রাজ্যের কাছে বড় চ্যালেঞ্জ।

    ৩১ মার্চ, ২০১৬

    গিরিশ পার্কের কাছে উড়ালপুলের একটি অংশ ভেঙে পড়ে। মৃত্যু হয় একুশজনের । তবে পোস্তা বাজার ও গিরিশ পার্ক মোড়ের দিকে উড়ালপুল এখনও অক্ষত। ইতিমধ্যেই খড়গপুর আইআইটি, ন্যাশনাল টেস্ট হাউস ও রাইট-এর মতো বিশেষজ্ঞ সংস্থাকে দিয়ে পরীক্ষা করানো হয়েছে। তাদের রিপোর্টে বহু ক্ষেত্রেই একাধিক গাফিলতির প্রমাণ মিলেছে। আইআইটি খড়গপুরের বিশেষজ্ঞদের প্রাথমিক রিপোর্ট বলছে---

    - পোস্তা উড়ালপুলের বাকি অংশ এখনই ভেঙে পড়ার সম্ভাবনা নেই ---উড়ালপুলের অক্ষত অংশ ভারি যান চলাচলের উপযুক্ত নয় ---এই অংশে চলতে পারে হালকা গাড়ি ---চলতে পারে বাইক, সাইকেল, অটোর মতো যানবাহন --না হলে ভেঙে ফেলতে হবে পোস্তা উড়ালপুল

    রিপোর্টে বলা হয় উড়ালপুল তৈরিতে নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহার করা হয়েছে। ত্রুটি আছে নকশায়েও। রিপোর্ট খতিয়ে দেখে ইনজিনিয়ার ও বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে একাধিকবার বৈঠক করেন মুখ্য সচিব । রাজ্য মনে করছে-----

    উড়ালপুল ভাঙা অসম্ভব?

    ---পোস্তা উড়ালপুল ভাঙা অসম্ভব ---ভাঙতে গেলে বিপুল পরিমাণ অর্থ খরচ হবে ---অসুবিধায় পড়বেন আশপাশের বাসিন্দারা

    এই উড়ালপুল দিয়ে বাইক, সাইকেল, অটোর মত হালকা যানবাহন চালানোর ভাবনাচিন্তা শুরু করেছে রাজ্য। দ্রুত চূড়ান্ত রিপোর্ট জমা দিতে বলা হয়েছে বিশেষজ্ঞ কমিটিকে। উড়ালপুলের প্রতিটি ইঞ্জি, পিলার, জয়েন্ট, তলার মাটি ফের পরীক্ষা করছেন বিশেষজ্ঞ কমিটির সদস্যরা। তাঁদের রিপোর্ট পাওয়ার পরই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে রাজ্য। তবে যেখানে উড়ালপুলের মাঝের অংশই ভাঙা সেখানে কিভাবে হালকা যানবাহন চলবে, তাই নিয়ে উঠছে প্রশ্ন।

    First published: