Home /News /kolkata /
শহরের নতুন আকর্ষণ ‘রুফটপ স্কাইওয়াক’

শহরের নতুন আকর্ষণ ‘রুফটপ স্কাইওয়াক’

অত্যন্ত বিজ্ঞানসম্মত উপায় তৈরি হচ্ছে ‘রুফটপ স্কাইওয়াক’৷ যা পাশাপাশি থাকা তিন-চারটে আবাসনকে একসঙ্গে যুক্ত করছে ৷

  • CNN-News18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #কলকাতা:  দুটো বাড়ি কাছাকাছি থাকলে এক ছাদ থেকে আরেক ছাদ লাফিয়ে যাওয়ার অভ্যাস হয়তো অনেকেরই আছে ৷ উত্তর ভারতের দিল্লি-উত্তরপ্রদেশ সহ অনেক জায়গাতেই এই দৃশ্য হামেশাই দেখা যায় ৷ ছোট্ট বাচ্চা থেকে যুবকরা যেখানে এক বাড়ির ছাদ টপকে সহজেই পাশের বাড়ির ছাদে চলে যান ৷ কিন্তু অনেক পুরোনো এই অভ্যাস এখন বদলানোর সময় এসেছে ৷ এখন রিয়াল এস্টেট সংস্থাগুলি এমন প্রজেক্ট তৈরি করছে যেখানে পাশের লাগোয়া বাড়ির ছাদে যেতে আর লাফ দেওয়ার প্রয়োজন নেই ৷ কারণ অত্যন্ত বিজ্ঞানসম্মত উপায় তৈরি হচ্ছে ‘রুফটপ স্কাইওয়াক’৷ যা পাশাপাশি থাকা তিন-চারটে আবাসনকে একসঙ্গে যুক্ত করছে ৷

    স্কাইওয়াক তো শহরের রাস্তাঘাটে আমরা অনেক জায়গাতেই দেখেছি ৷ রাস্তা পারাপারের কাজেই নিত্যযাত্রীরা এটি ব্যবহার করে থাকেন ৷ যদিও এদেশের মানুষ স্কাইওয়াক চড়ে ‘সময় নষ্ট’ করার চেয়ে  জীবনের ঝুঁকি নিয়েই রাস্তা পারাপার করতে ভালবাসেন ৷ কিন্তু নিজের বাড়ির ছাদে স্কাইওয়াক থাকলে হয়তো তা বারবার ব্যবহার করতে অবশ্যই চাইবেন প্রত্যেকেই ৷ সায়েন্স সিটির ধারে একটি বিল্ডিং তৈরি হচ্ছে ৷ যেখানে প্রথম দেখা যায় দু’টো বিল্ডিংকে একসঙ্গে যুক্ত করেছে একটি ‘স্কাই ব্রিজ’ ৷ কিন্তু এবার শহরে যে ট্রেন্ড এসেছে , তা হল রুফটপ স্কাইওয়াক ৷ যেখানে মানুষ এক আবাসন থেকে আরেক আবাসনে পায়ে হেঁটেই সহজে চলে যেতে পারবেন ৷

    Siddha-galaxia

    গত বছর নভেম্বর মাসেই শহরে প্রথম ‘রুফটপ স্কাইওয়াক’ তৈরির কাজ শুরু করে কলকাতার এক প্রথম সারির রিয়াল এস্টেট সংস্থা সিদ্ধা গ্রুপ ৷ শহরের দীর্ঘতম সেই স্কাইওয়াকের কাজ ২০১৯-এর মধ্যেই শেষ হয়ে যাবে বলে সংস্থার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে ৷ কিন্তু শুধু ওইটুকু করেই সন্তুষ্ট থাকতে চান না তাঁরা ৷ ইতিমধ্যেই কলকাতা ও তাঁর সংলগ্ন অঞ্চলে একাধিক প্রজেক্টের কাজ শুরু করে দিয়েছে এই রিয়াল এস্টেট সংস্থা ৷ যার প্রত্যেকটাতেই রয়েছে এই রুফটপ স্কাইওয়াক ৷ সিদ্ধা গ্রুপের মার্কেটিং  ম্যানেজার পিঙ্কল নন্দী জানান, ‘‘ আমাদের সংস্থার ম্যানেজিং ডিরেক্টর সঞ্জয় জৈন এবং প্রিন্সিপ্যাল আর্কিটেক্ট জয়প্রকাশ আগরওয়াল দু’জনেই শহরে নতুনত্ব কিছু আনতে আগ্রহী ৷ রাজারহাটে যখন সেভাবে বড় আবাসন গড়ে ওঠেনি তখন আমাদের সংস্থাই ৩২১টি অ্যাপার্টমেন্ট নিয়ে প্রথম একটি কমপ্লিট স্টুডিও অ্যাপার্টমেন্ট কমপ্লেক্স তৈরি করে ৷ তার আগে ওই কনসেপ্টে কোনও প্রজেক্ট হয়নি এই শহরে ৷ এরপর এই রুফটপ স্কাইওয়াক বানানোর পরিকল্পনাও প্রথম এরাজ্যে করি আমরাই ৷ বিদেশে এই কনসেপ্ট থাকলেও এখানে এটাই প্রথম ৷ অনেকটা সিঙ্গাপুরের মারিনা বে-র ধাঁচেই এখন রুফটপ তৈরি হচ্ছে আমাদের প্রতিটি প্রজেক্টে ৷ রিয়াল এস্টেট ব্যবসার বৃদ্ধির গতি এই শহরে হয়তো কিছুটা কম ৷ কিন্তু কাজে নতুনত্ব আনার মাধ্যমেই ভবিষ্যতে আরও ভাল ব্যবসা করার ব্যাপারে আশাবাদী সংস্থা ৷ ’’

    Sky_Walk_With_Swimming_Pool_Evening_2016.07.27_HIRES1

    গত বছর ‘দীর্ঘতম’ রুফটপ স্কাইওয়াকের শিলান্যাস হয়ে গেলেও এবছর ‘উচ্চতম’ স্কাইওয়াক বানানোর কাজ শুরু করে দিয়েছে সিদ্ধা ৷ যার নাম ‘স্কাই’ ৷ ৩১তম তলায় তৈরি এই স্কাইওয়াকই শহরের আপাতত সবচেয়ে উঁচুতে তৈরি রুফটপ স্কাইওয়াক ৷  এর আগে ১.১ কিমি দীর্ঘ জগার্স পার্ক যেমন তৈরি হয়েছিল ৷ এবার সবচেয়ে উঁচুতে তৈরি স্কাইওয়াকেও সমস্ত সুযোগ-সুবিধা থাকছে ৷ মধ্যবিত্ত থেকে উচ্চবিত্ত সকলের সাধ্যের মধ্যেই রুফটপ  স্কাইওয়াক-সহ আবাসন তৈরি করছে সংস্থা ৷ জিম, সুইমিং পুল, বাস্কেটবল কোর্ট, টেনিস কোর্ট এসব তো আজকাল যে কোনও আবাসনেই থাকে ৷ কিন্তু এই সমস্ত কিছুই যদি আপনার বাড়ির ছাদে থাকে, তাহলে তো দারুণ হয় বলুন !

    First published:

    Tags: Kolkata, Longest Skywalk, Real Estate Business, Rooftop Skywalk, Siddha Group, Tallest Skywalk

    পরবর্তী খবর